channel 24

সর্বশেষ

  • হাঁটুপানিতে ঈদের নামাজ আদায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের

  • বৈশাখী টেলিভিশনের সিনিয়র সাংবাদিক অশোক চৌধুরী সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত

  • করোনা ভয় উপেক্ষা করেই সাবেক সংসদ সদস্য মকবুলের জানাজায় হাজারো মানুষ

  • খবর পেলেই করোনায় মৃতদের দাফন বা সৎকারে ছুটে যান কাউন্সিলর খোরশেদ

  • পবিত্র ঈদুল ফিতরে দুঃসময় কাটিয়ে সুদিন ফেরার প্রার্থনা

  • দেশে করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৯৭৫

  • কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম জন্মবার্ষিকী আজ

  • ঈদ আনন্দে বেদনার ছাপ; জামাতে মানা হয়নি শারীরিক দূরত্ব

  • ঈদেও কর্মব্যস্ত করোনার সম্মুখ যোদ্ধারা; স্বজনহারাদের হৃদয়ে বিষাদের সুর

  • ঈদের নামাজে সেজদারত অবস্থায় ইমামের মৃত্যু

  • বিশ্বজুড়ে অব্যাহত করোনায় মৃত্যুর মিছিল

  • করোনা প্রতিরোধে সরকারের কোনো সমন্বয় নেই: ফখরুল

  • আ.লীগের সাবেক এমপি হাজী মকবুলের দাফন সম্পন্ন

  • ভিন্ন এক প্রেক্ষাপটে এলো এবারের ঈদ

  • ৮ বছর পেরিয়ে নয়ে পা রাখলো চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

কুমিল্লার জিয়াপুর ও বিরামকান্দি গ্রাম লকডাউন

কুমিল্লার জিয়াপুর ও বিরামকান্দি গ্রাম লকডাউন

কুমিল্লার তিতাস উপজেলার বিরামকান্দি গ্রাম ও বুড়িচং উপজেলার জিয়াপুর গ্রাম লকডাউন করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

তিতাস উপজেলার বিরামকান্দি গ্রামের আক্রান্ত ওই ব্যক্তি ঢাকায় একটি চালের আড়তে চাকরি করতেন। ওই ব্যক্তি চারদিন আগে ঢাকায় জ্বর ও সর্দিতে আক্রান্ত হয়ে বাড়ি আসেন। পরে তিতাস উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ ওই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠায়। বৃহস্পতিবার তার করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে।

বৃহস্পতিবার বিকালে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার জিয়াপুর গ্রামের দুইটি শিশু করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর দেয় জেলা সিভিল সার্জন। পরে ওই গ্রামটিও লকডাউন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরুল হাসান জানান, দুই শিশুর করোনা পরীক্ষার ফলাফলে পজেটিভ থাকায় জিয়াপুর গ্রামকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত লকডাউন করা হয়েছে।

এ নিয়ে একই দিনে জেলার ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবে তাদের তিনজন-ই ঢাকায় আক্রান্ত হয়ে কুমিল্লায় আসেন।

কুমিল্লা সিভিল সার্জন ডা. মো. নিয়াতুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, আক্রান্ত ব্যক্তি ঢাকায় একটা চাল কলে কাজ করতেন। তার শরীরে করোনা উপসর্গ দেখা দেয়ায় গত বুধবার (৮ এপ্রিল) তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আজ (বৃহস্পতিবার) ওই ব্যক্তির করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। আপাতত বাড়িতে তার চিকিৎসা চলবে। উপজেলা থেকে তার শারীরিক অবস্থার মনিটরিং করা হবে। তারপর অবস্থা বুঝে তাকে উপজেলায় কিংবা জেলায় আইসোলেশনে আনা হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর