channel 24

সর্বশেষ

  • ঝড়ের শঙ্কা: দেশের সব সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত

  • গণস্বাস্থ্যের কিট ব্যবহার বন্ধে ঔষধ প্রশাসনের চিঠি

  • ২৮ মে থেকে সৌদিতে কারফিউ শিথিল

  • করোনা চিকিৎসায় 'হাইড্রক্সি ক্লোরোকুইন' দেওয়া বন্ধের পরামর্শ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

  • করোনার সম্মুখ যোদ্ধা গণমাধ্যমকর্মী ও পুলিশের ঈদ

  • বিষাদের ঈদ: নিম্নআয়ের অনেকের ঘরেই জ্বলেনি চুলা

  • একটু স্বস্তির খোঁজে শেষ বিকেলে রাজধানীর হাতিরঝিলে মানুষের ভিড়

  • করোনায় চিকিৎসক আর স্বাস্থ্যসেবীদের ঈদ কাটছে পরিবার ছাড়াই

  • হাঁটুপানিতে ঈদের নামাজ আদায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্তদের

  • বৈশাখী টেলিভিশনের সিনিয়র সাংবাদিক অশোক চৌধুরী সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত

  • করোনা ভয় উপেক্ষা করেই সাবেক সংসদ সদস্য মকবুলের জানাজায় হাজারো মানুষ

  • খবর পেলেই করোনায় মৃতদের দাফন বা সৎকারে ছুটে যান কাউন্সিলর খোরশেদ

  • পবিত্র ঈদুল ফিতরে দুঃসময় কাটিয়ে সুদিন ফেরার প্রার্থনা

  • দেশে করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৯৭৫

  • কাজী নজরুল ইসলামের ১২১তম জন্মবার্ষিকী আজ

সৌন্দর্য বর্ধনে মিষ্টি কুমড়া

সৌন্দর্য বর্ধনে মিষ্টি কুমড়া

নান্দনিক মিষ্টি কুমড়া। শোভা পাচ্ছে বাসা কিংবা অফিসের টেবিলে। এক সময় মাটির তৈরি শোপিস ঘরের সৌন্দর্য্য বাড়ালেও এখন অনেকেই করছেন জমিতে চাষ হওয়া মিষ্টি কুমড়া ও লাউ। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটে হচ্ছে গবেষণাও। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এ কুমড়ায় বাসার শোভা থাকবে ৬ থেকে ৭ মাস, তাই নাম হয়েছে অর্নামেন্টাল গোর্ড।

অফিস কক্ষের টেবিলে শোভা পাওয়া এই মিস্টিকুমড়া ও লাউগুলোকে হটাৎ দেখলে যেকেউ বলবেন মাটির তৈরি।

কিন্তু রংপুর কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মঞ্জুয়ারা পারভীনের দাবি, অফিস কক্ষে সাজিয়ে রাখা এই পণ্যগুলো এসেছে কৃষকের মাঠ থেকে। যেগুলোকে বলা হচ্ছে অর্নামেন্টাল গোর্ড।  

তার দাবি, তৈরি করা শো-পিচের মত দেখালেও প্রাকৃতিক জেনে অবাক হয়েছেন তিনি। পরে অফিস কক্ষ সাজাতে কিনেছেন ওরনামেন্টাল গোর্ড। অন্যান্য শিক্ষকরা বলছেন, সৌন্দর্য বর্ধনকারী মিষ্টিকুমড়াগুলো দেখে মুগ্ধ হয়েছেন তারা।

দেশের ইতিহাসে অর্নামেন্টাল গোর্ড নিয়েপ্রথম গবেষণা শুরু করেন, বাংলাদেশ কৃষি ইনস্টিটিউটের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. কবিতা আনজু-মান-আরা। তিনি বলেন, দেশে ওরনামেন্টাল গোর্ডের চাহিদা পুরনে ২০টি জাত নিয়ে চলছে গবেষণা।

রংপুর বুড়ির হাট আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রে এই ফসলটি নিয়ে চলছে গবেষণা। রোগ বালাই কম আর বেশী উৎপাদনশীল হওয়া, কৃষকরা গুণবেন বাড়তি মুনাফা, এমনটাই দাবি বিজ্ঞানীদের।

বিজ্ঞানীদের দাবি, চারা রোপনের নব্বই দিনের মধ্যে পরিপক্ক হয় ওরনামেন্টাল গোর্ড। যা বাসা বাড়ি কিংবা অফিসে সাজিয়ে রাখা যায় দশ মাস ধরে।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর