channel 24

সর্বশেষ

  • কাজের মেয়ে ভয়ংকর!

  • পঞ্চম দফায় ৩১ পৌরসভায় ভোট ২৮ ফেব্রুয়ারি

  • খুলনা বিভাগীয় শ্রেষ্ঠ জয়িতা রোকেয়া বেগম

  • সিলেটে ভরা মৌসুমেও সবজির দাম চড়া

  • চার বছরই সমালোচনার শীর্ষে ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

  • ক্যান্সার ও হৃদরোগে কার্যকরী সূর্যমুখীর তেলবীজ

  • নতুন নতুন পন্থা বেছে নিচ্ছে অপহরণকারীরা

  • মৌলভীবাজারে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে হামলা

  • অর্থনৈতিক উন্নতিতে সম্ভাবনাময় ফসল মাশরুম

  • ফ্রি ট্রান্সফার ফিতে এসি মিলানে মারিও মানজুকিচ

  • জুনের মধ্যে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু করতে চায় বাংলাদেশ

  • সুস্মিতা সেনের আগমনে হুগলী জেলায় খুশির জোয়ার

  • মেহেরপুরের গাংনীতে অবৈধ ইটভাটায় অভিযান

  • রাজশাহীতে মোটরসাইকেলের কাগজপত্র চাওয়ায় সার্জেন্টকে পিটিয়ে জখম

  • কীর্তনখোলাসহ দেশের সব নদী দখল মুক্ত করা হবে: নৌপ্রতিমন্ত্রী

নাটোর ও নেত্রকোণায় নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপ

নাটোর ও নেত্রকোণায় নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপ

বিভিন্ন জায়গায় নদী উদ্ধারে অভিযান চললেও তেমন তৎপরতা নেই। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রভাবশালী দখলদারদের না করে পুনর্বাসন ছাড়াই উচ্ছেদ করা হচ্ছে ছিন্নমূল মানুষদের। আর নেত্রকোণায় অদৃশ্য ইশারায় বন্ধ মগড়া নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান।

বিভিন্ন জায়গায় নদী উদ্ধারে অভিযান চললেও নাটোরে তেমন তৎপরতা নেই। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রভাবশালী দখলদারদের না করে পুনর্বাসন ছাড়াই উচ্ছেদ করা হচ্ছে ছিন্নমূল মানুষদের। আর নেত্রকোণায় অদৃশ্য ইশারায় বন্ধ মগড়া নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান।

নাটোরের আত্রাই, বড়াল, নন্দকুজার মতো নদীর তীর দখল করে চলছে 'স' মিল ব্যবসা। বসানো হয়েছে মোবাইল ফোনের টাওয়ারও।

প্রশাসনের উচ্ছেদ অভিযানের আওতায় আসেনি এসব প্রভাবশালীরা। অথচ উচ্ছেদ করা হয়েছে নাটোর শহরের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া নারদ নদী দখল করে বসবাসকারী ছিন্নমূল মানুষদের। শেষ আশ্রয়স্থল হারিয়ে এখন দিশেহারা তারা।

প্রভাবশালীদের উচ্ছেদে অভিযান না চালানোয় শঙ্কা প্রকাশ করেছেন সুশীল সমাজ।

নদী রক্ষা কমিটির সভাপতি রেজাউল করিম রেজা বলেন, যেসব নদী অবৈধভাবে দখল করে রাখা হয়েছে সেগুলোতে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার মাধ্যমে নদীর স্বাভাবিক গতি প্রবাহ ঠিক রাখা জরুরী।

যদিও স্থানীয় প্রশাসন বলছে, প্রাথমিকভাবে ১৫শ দখলদারের তালিকা তৈরি করে শুরু হয়েছে উচ্ছেদ অভিযান যা চলবে নদী তীর দখলমুক্ত না হওয়া পর্যন্ত।

পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী হাসান বলেন, নদী নালা উদ্ধারে সর্বচ্চো প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

নাটোরের জেলা প্রশাসক শাহরিয়াজ বলেন, যেসব খাল বিল নদী নালা অবৈধভাবে দখল করা হয়েছে সেসব উদ্ধার করা হবে।

এদিকে, হঠাৎ-ই বন্ধ হয়ে গেছে নেত্রকোণার মগড়া নদীর উচ্ছেদ অভিযান। যদিও এজন্য প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপকে দায়ী করছেন স্থানীয়রা।

আর প্রশাসনের দাবি, উচ্চ আদালতের নির্দেশেই বন্ধ রয়েছে উচ্ছেদ অভিযান। মামলা নিষ্পত্তি হলেই শেষ করা হবে উচ্ছেদ কাজ।

নেত্রকোণা সদরে সহকারী কমিশনার বুলবুল আহমেদ বলেন, আদালতের স্থগিতাদেশ থাকায় কিছু স্থাপনায় অভিযান চালানো যায়নি। তবে আইনানুগভাবে বিষয়টি মোকাবেলা সাপেক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

নেত্রকোণা শহরের মগড়া নদীর দুপাড়ে ৩১৬টি অবৈধ স্থাপনা চিহ্নিত করে উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু করেছিলো স্থানীয় প্রশাসন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর