channel 24

সর্বশেষ

  • ডিএমসিতে করোনা রোগীদের ওষুধ না পাওয়ার অভিযোগ

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • মহামারির মধ্যে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার জেরে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র

  • আন্তর্জাতিক জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী দিবস আজ

  • এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল মিলবে সম্পূর্ণ অনলাইনে

  • এগারো লাখ রোহিঙ্গার বোঝা আর বইতে পারছে না বাংলাদেশ

  • করোনায় বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি ৩ লাখ ৫৯ হাজার

  • সাধারণ ছুটির মেয়াদ না বাড়ানোয় কর্মস্থলে ফিরছে মানুষ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা

  • বগুড়ার ’চাষী বাজারে’ ২৫ ব্যবসায়ী করোনায় আক্রান্ত

  • গণপরিবহন চালু করতে নানা কৌশল; স্বাস্থ্যবিধি মানা নিয়ে সংশয়

  • আগুনে মুত্যুতে ইউনাইটেড হাসপাতালের গাফিলতি; মানতে নারাজ কর্তৃপক্ষ

  • ৩১ মে চালু হচ্ছে স্টক এক্সচেঞ্জে শেয়ার লেনদেন

  • ক্রিকেটের বাইরে সাকিব আল হাসানের জানা-অজানা গল্প

  • অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলবে ট্রেন, নৌপথে সিদ্ধান্ত কাল

লোকসানে অভিমানে হবিগঞ্জের কৃষকরা, অনাবাদি রাখছেন জমি

লোকসানে অভিমানে হবিগঞ্জের কৃষকরা, অনাবাদি রাখছেন জমি

অব্যাহত লোকসানের কারণে বোরো আবাদে আগ্রহ হারাচ্ছেন হবিগঞ্জের চাষীরা। চলতি বোরো মওসুমে অনেক জমি অনাবাদি রাখছেন অভিমানী কৃষকরা। তবে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ বলছে, স্থায়ী হবে না তাদের অভিমান। শেষ পর্যন্ত অর্জিত হবে লক্ষ্যমাত্রা। আর এরই মধ্যে বিকল্প শস্যে আগ্রহী করা হচ্ছে কৃষকদের।

বোরোর মৌসুম শেষ হতে চললেও, পতিত হয়ে পরে আছে হাওরের এসব ধানী জমি।

ধান উৎপাদকরা বলছেন, ন্যায্য দাম না থাকায় ধানের উৎপাদন ব্যয় তুলতে পারেন না। তাছাড়া আছে শ্রমিক সংকট, মিলছে না বর্গা চাষীও। তাই ফেলে রেখেছেন আবাদী জমি।

কৃষকরা বলেন, জমি চাষ করে ১৫-২০ হাজার টাকা লসে আছি। ন্যায্যমুল্যে ধানের দাম না হলে অনেক জমি অনাবাদি পড়ে থাকবে। এখনও অনেক জমি অনাবাদি পড়ে আছে।

ধান চাষে অনাগ্রহে বিক্রি কমেছে বীজ এবং সারের। ফলে ডিলারদের গুদামে আটকে আছে বিপুল পরিমাণ বীজ এবং সার।

এবারে বোরোর আবাদে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন নিয়ে সংশয় আছে স্বয়ং হবিগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের। হবিগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক মো. আতিকুল হক বলেছেন, ধানের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করা গেলেই কেবল কৃষকের আগ্রহ ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

তবে আশার কথা হচ্ছে, কৃষি মন্ত্রণালয় ইতিমধ্যেই ধানের উৎপাদন ব্যয় কমানোর জন্য নিয়েছে ব্যবস্থা।  

জেলায় এবছর বোরোর আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ১ লাখ ২০ হাজার হেক্টর জমি হলেও এখন পর‌্যন্ত আবাদ হয়েছে মাত্র ১ লাখ হেক্টরে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর