channel 24

সর্বশেষ

  • চালের দাম বৃদ্ধিতে মিলারদের সিন্ডিকেট দায়ী, দাবি পাইকারি বিক্রেতাদের

  • গোপন বৈঠক ও ষড়যন্ত্র করে লাভ নেই্, বিএনপিকে কাদের

  • দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকায় মানবেতর দিন কাটাচ্ছে জাবি'র দোকান মালিকরা

  • ঢাবি শিক্ষার্থীদের কল্যাণে নতুন নতুন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে: এ কে আজাদ

  • হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে চালু হল হিমঘর

  • ১ অক্টোবর থেকে সৌদি ও ওমান প্রবাসীরা দেশে ফিরতে পারবেন

  • 'মৃত কিশোরী'র জীবিত ফিরে আসার ঘটনা বিচারিক তদন্তের নির্দেশ

  • বান্দরবান পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে বাড়ছে পর্যটক, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

  • আতঙ্ক নয়, সচেতনতাই করোনা প্রতিরোধে মুখ্য ভূমিকা রাখবে: তাপস

  • নির্বাচনে হারলেও শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে চান না ট্রাম্প

  • টানা বৃষ্টিতে তিস্তাসহ কয়েকটি নদীর পানি বৃদ্ধি

  • প্রতি ভরিতে স্বর্ণের দাম কমলো ২৪৪৯ টাকা

  • নানা সংস্কারের ফলে পুঁজিবাজার নিয়ে সবার প্রত্যাশা বেড়েছে

  • রপ্তানি পণ্যে যুক্ত হলো প্রক্রিয়াজাত কাজুবাদাম

  • ইংলিশ লিগ কাপ: রাতে নামছে লিভারপুল ও ম্যান সিটি

বিদ্যুৎকেন্দ্রের পাশের গ্রামেই নেই বিদ্যুৎ সুবিধা

বিদ্যুৎকেন্দ্রের পাশের গ্রামেই নেই বিদ্যুৎ সুবিধা

আলোর নীচেই অন্ধকার এ প্রবাদের প্রতিচ্ছবিই যেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সোনারামপুর গ্রাম। দেশের বৃহত্তম পাওয়ার স্টেশন আশুগঞ্জ থেকে মাত্র দেড় কিলোমিটার দূরে এ গ্রাম। কিন্তু সেখানে নেই আলোর ঝলকানি। সন্ধ্যার সাথে সাথে গ্রামটি নিমজ্জিত হয় অন্ধকারে। চোর-ডাকাতের ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় রাত কাটে চরবাসীর।

মেঘনার বুক চিরে জেগে ওঠা ছোট্ট গ্রাম সোনারামপুর। দৈর্ঘ্য ২ কিলোমিটার আর প্রস্থে আধা কিলোমিটার। বসবাস ৬ হাজার মানুষের।

দেশের বৃহত্তম আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন থেকে মাত্র দেড় কিলোমিটার দূরে অবস্থান এ চরের। কিন্তু এতো কাছেও পৌঁছায়নি বিদ্যুতের আলো। যাতে চরম ভোগান্তিতে জেলে নির্ভর এ গ্রামের বাসিন্দারা।

এলাকাবাসী জানান, 'কারেন্টের মধ্যে থেকে আমরা কারেন্ট পাই না এই একটা আমাদের দুঃখ। এই কারেন্টের জন্য আমরা বহু জায়গায় ঘুরছি কিন্তু কোন জায়গায় সারা পাচ্ছি না। বিদ্যু উৎপাদন হয় এখানে অথচ আমাদের গ্রামে নেই। আমরা চাই আমাদের ঘরে ঘরে বিদুৎ আসুক যাতে বাচ্চাদের পড়ালেখার জন্য উপকারি হয়।'

সৌস বিদ্যুতে কিছুটা চাহিদা পূরণ করছেন কেউ কেউ। যদিও জনপ্রতিনিধির আশ্বাসের কার্পন্য নেই এতটুকুও।

আশুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান হানিফ মুন্সি বলেন, এলাকার প্রতিনিধি হিসেবে পরিকল্পনা, চেষ্টা করে যাচ্ছি অতি দ্রুত যাতে পিডিবির বিদুৎ এখানে পৌঁছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামসুজ্জামান জানান, চরের অবকাঠামোগত সমস্যার কারণে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া যাচ্ছে না। এখানেও সেই পুরনো আশ্বাস।

এ চরবাসীর প্রতিটি রাত কাটে চোর-ডাকাতের ভয়ে। তাই দ্রুত বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হতে চান তারা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর