channel 24

সর্বশেষ

  • জাতীয় বীমা দিবস উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী: শেখ কবির

  • মুজিব বর্ষে বাংলাদেশ গেমসের মশাল প্রজ্জ্বলন গোপালগঞ্জে

  • প্রথমবার ওয়ানডে দলে জায়গা পেয়ে রোমাঞ্চিত আফিফ-নাঈম

  • সহিংসতা কমলেও দিল্লিতে আতঙ্কে ঘরবাড়ি ছাড়ছেন মুসলমানরা

  • শনিবার দেশব্যাপী জেলা ও মহানগরে বিএনপির বিক্ষোভ

  • ফতুল্লায় আটটি অবৈধ ভবন ভেঙে দিল ভ্রাম্যমাণ আদালত

  • রাবিতে বিভাগের নাম ফলিত পরিসংখ্যান করার দাবিতে শিক্ষার্থীদের অনশন

  • দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলমান আছে: আইজিপি

  • গাজীপুরে আনসার-ভিডিপি একাডেমিতে মৌলিক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

  • যশোর-৬ ও বগুড়া-১ আসন উপনির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা

  • করোনা আতঙ্কে ওমরাহ পালনে সৌদির নিষেধাজ্ঞা, টিকিট করে বিপাকে অনেকে

  • ৭ মার্চ আর্মি স্টেডিয়ামে জয় বাংলা কনসার্ট

  • উৎসবমুখর পরিবেশে চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে মনোনয়ন জমা

  • চলচ্চিত্রের প্রেমে পড়েছেন শার্লিন জামান

  • লিঁওর মাঠে অঘটনের শিকার জুভেন্টাস

যশোরে গৃহবধূ ধর্ষণ ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তার সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি: পিবিআই

যশোরে গৃহবধূ ধর্ষণ ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তার সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি: পিবিআই

যশোরের শার্শায় আলোচিত গৃহবধু ধর্ষণের ঘটনায় প্রাথমিক তদন্তে সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি পুলিশ কর্মকর্তা খায়রুলের। মঙ্গলবার দুপুরে যশোর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম, কে, এইচ, জাহাঙ্গীর হোসেন এ দাবি করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, বাদীর দায়েরকৃত অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত ৩ জন আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আসামীদের আদালতে সোপর্দ করা হয়। তাদের মধ্যে একজন আসামী আদালতে স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। এছাড়া আটককৃত ৩ জনের পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়।

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি পর্যালোচনায় দেখা যায়, স্বীকারোক্তি প্রদানকারী আসামী বাদীর পূর্ব পরিচিত এবং পারিবারিকভাবে তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। এ ঘটনার সাথে গোড়পাড়া ক্যাম্পের আইসি সাব ইন্সপেক্টর খায়রুল আলমের জড়িত থাকার বিষয়টি প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়নি। এঘটনায় প্রাথমিকভাবে একজন ব্যাক্তির সম্পৃক্ততা পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে পুলিশ রিপোর্ট দাখিলের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

গত বছর ২ সেপ্টেম্বর যশোরের শার্শা উপজেলার লক্ষ্মণপুর এলাকায় দুই সন্তানের জননী এক গৃহবধূ (৩০) পুলিশের এসআই খায়রুল আলম ও সোর্স কামরুজ্জামান ওরফে কামারুল কর্তৃক সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হন বলে অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় ৩ সেপ্টেম্বর শার্শা থানায় এসআই খায়রুলসহ ৪ জনের নাম উল্লেখ করে শার্শা থানায় একটি মামলা করেন তিনি। পরবর্তীতে মামলাটি পিবিআই এর কাছে হস্তান্তর করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর