channel 24

সর্বশেষ

  • ফের উত্তপ্ত নির্বাচন কমিশন, কর্তৃত্ব নিয়ে সিইসি-কমিশনারদের বাকবিতণ্ডা

  • পাকিস্তানে ফিরলো টেস্ট ক্রিকেট

  • চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: রাতে মুখোমুখি বায়ার্ন মিউনিখ-টটেনহ্যাম

  • আইসিজেতে মামলার এখতিয়ার নেই গাম্বিয়ার: মিয়ানমারের আইনজীবী

  • রাজ্যসভায়ও নাগরিকত্ব বিল পাশ; অগ্নিগর্ভ আসাম-ত্রিপুরায় সেনা মোতায়েন

  • বিজয়ীর বেশে দেশে ফিরলো দশ স্বর্ণজয়ী আর্চারি দল

  • খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য রিপোর্ট সুপ্রিম কোর্টে জমা; জামিন শুনানি কাল

  • গরু ছাগল চিনলেই চালক, দায়িত্বশীলদের কথা এমন হতে পারে না: হাইকোর্ট

  • আখাউড়া সীমান্তে নারী ও শিশুসহ ৯ রোহিঙ্গা আটক

  • বনানীতে মাটি চাপা অবস্থায় চীনা নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার

  • চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

  • কেরানীগঞ্জে অগ্নিদগ্ধ ৩৩ জন ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি, কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি ঘিরে আদালত প্রাঙ্গণে নিরাপত্তা জোরদার

  • ইলিয়াস কাঞ্চনের বিরুদ্ধে শ্রমিকদের আন্দোলন নোংরামি: হাইকোর্ট

  • শারীরিক প্রতিবন্ধকতা দমাতে পারেনি দুই ভাই-বোনকে

ধান উৎপাদন: দাম কম হওয়ার আশঙ্কা কৃষকের

ধান উৎপাদন: দাম কম হওয়ার আশঙ্কা কৃষকের

কুড়িগ্রামে আমনের ভালো ফলন হলেও বাজারে দাম কম হওয়ার আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। নেত্রকোণায় আমন ধানে বাদামি ঘাস ফড়িংয়ের আক্রমণে বেশ কিছু গ্রামে ফসলের ক্ষতি হয়েছে। কৃষকদের অভিযোগ, কৃষি কর্মকর্তা ঠিকমতো মাঠ পরিদর্শন না করায় এ পরিস্থিতি। যদিও কৃষি বিভাগের দাবি, ফসলের ক্ষতি খুব বেশি পরিমাণে হয়নি।

হেমন্তের পাকা ধান, গ্রামে গ্রামে বাউল গান; এ যেনো কৃষকের আনন্দের বান। তবে নেত্রকোনায় বাদামী ঘাস ফড়িং কৃষকের সে আনন্দ মলিন করে দিয়েছে।

পোকার আক্রমণে সবুজ সতেজ মাঠ এখন খড়ে পরিণত হয়েছে। সদর উপজেলার দক্ষিণ বিশিউড়া, লক্ষীগঞ্জ, রৌহা, মদনপুরসহ বেশ কিছু ইউনিয়নে একই অবস্থা। কৃষি কর্মকর্তার অভিযোগ মাঠ পর্যায়ের কৃষকদের অবহেলার কারণেই ফসলের এমন ক্ষতি হয়েছে।

তবে কোন কর্মকর্তার দায়িত্ব পালনে অবহেলা পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

ক্ষেতের আল ধরে ধানের আটি নিয়ে ফেরার দৃশ্য দেখা যায় কুড়িগ্রামে। কৃষক-কৃষানীরা ব্যস্ত ধান মাড়াইয়ের কাজে। তারা বলেছেন, খরচ কিছুটা বেশি হলেও এবার ভালো ফলন হয়েছে। তবে, দাম কম থাকায় লোকশানের আশঙ্কা করছেন তারা।

কৃষি বিভাগ বলেছে, সরকারিভাবে সরাসরি প্রকৃত কৃষকের কাছে থেকে ধান কিনলে লোকসান হবেনা কৃষকের।

কুড়িগ্রামে প্রায় ২ লাখ ৯৪ হাজার কৃষক রোপা আমন চাষ করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর