channel 24

সর্বশেষ

  • এসএ গেমস: ভারোত্তোলনে মাবিয়া আক্তার, জিয়ারুল ইসলাম...

  • ফেন্সিংয়ে ফাতেমা মুজিব স্বর্ণ জিতেছেন; বাংলাদেশের স্বর্ণ ৭

  • কারো নির্দেশে নয়, হস্তক্ষেপমুক্ত বিচার বিভাগ চাই: বিচারপতি নুরুজ্জামান

  • রাষ্ট্রের তিনটি বিভাগের মধ্যে সমন্বয় থাকা প্রয়োজন...

  • একের কাজে অন্যের হস্তক্ষেপ ন্যায়বিচার বাধাগ্রস্ত করে: প্রধানমন্ত্রী

  • খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে নাটক করছে সরকার: ফখরুল...

  • মুক্তি দাবিতে রাজধানীসহ দেশের সব জেলায় বিক্ষোভ কাল

  • স্টামফোর্ডের শিক্ষার্থী রুম্পাকে ধর্ষণ ও হত্যার বিচার দাবিতে...

  • ধানমন্ডি ও সিদ্ধেশ্বরীতে সহপাঠীদের মানববন্ধন

  • অন্যায়ভাবে চাকরিচ্যুতি ও ছাঁটাইয়ের অভিযোগে...

  • এসএ টিভির কার্যালয়ে তালা দিয়েছেন আন্দোলনরত সাংবাদিকরা

  • এসএ গেমস: ভারোত্তোলন: ৭৬ কেজিতে স্বর্ণ জিতেছেন মাবিয়া আক্তার...

  • আসরে এটি বাংলাদেশের পঞ্চম স্বর্ণ...

  • ৮১ কেজি ওজন শ্রেণিতে রৌপ্য জিতেছেন জোহরা খাতুন...

  • ক্রিকেট: নেপালকে ৪৪ রানে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ...

  • স্কোর: বাংলাদেশ ১৫৫/৬ (নাজমুল হোসেন ৭৫*) নেপাল ১১১/৯

সিলেটের কবিরের হাল না ছাড়ার গল্প

সিলেটের কবিরের হাল না ছাড়ার গল্প

মাত্র ১১ বছর বয়সে বন্ধ হয়ে যায় পড়ালেখা। ব্রিটিশ নাগরিক লুক ডুয়েলের সহায়তায় শেখেন ইংরেজী ও কম্পিউটার শিক্ষা। এখন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন তিনি। সিলেটের যুবক কবির উদ্দীন এভাবে কাটছে সময়।

সিলেটের খাদিমপাড়া। কম্পিউটারে জটিল সব কাজ করছেন নানা বয়সের শিশু কিশোররা। কেউ শিখছেন প্রোগ্রামিং, কেউ গ্রাফিক্স। শেখার ধরন ভিন্ন হলেও যে বিষয়ে মিল, তা হচ্ছে, সবাই কাজ শিখছেন বিনামূল্যে।

২০০৪ সালে ১১ বছর বয়সে পড়ালেখা ছেড়ে দেন, কৃষক বাবার সন্তান কবির উদ্দিন। ওই বছর পরিচয় হয় ব্রিটিশ নাগরিক লুক ডুয়েলের সাথে। এরপরই বদলে যেতে থাকে তার জীবনের গল্প। লুক ডুয়েল অবসরে কবিরকে ইংরেজি ভাষা শেখানোর পাশাপাশি কম্পিউটারেও আগ্রহী করে তোলেন। ভর্তি করেন ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে।

পড়ালেখা শেষ করে কম্পিউটারে ডিপ্লোমা অর্জন করেন কবির। এরপর চাকরির পেছনে না ছুটে শুরু করেন ঝরেপড়া শিশুদের দক্ষ করে গড়ে তোলার কাজ। প্রায় তিন বছর ধরে সাড়ে তিনশো শিক্ষার্থীকে বিনামূল্যে কম্পিউটার শেখাচ্ছেন কবির।

এ বিষয়ে কবিরের জীবন বদলে দেয়া লুক ডুয়েল জানান, তিনি এমন কিছু করতে চেয়েছেন যাতে একজনের মাধ্যমে আরও দশজন উপকৃত হন। কবির সে পথেই হাঁটছেন।

কবিরের বাসায় সুবিধাবঞ্চিত শিশু-কিশোররার বিনামূল্যে কম্পিউটার শিখলেও তাদের দিয়েই নানা রকম ফ্রিল্যান্সিংয়ের কাজ করেন কবির যা দিয়ে চলে তার সংসার।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর