channel 24

সর্বশেষ

  • রেডজোন থেকে ইয়েলো জোনে চট্টগ্রামের উত্তর কাট্টলী

  • রাতে মাঠে নামছে চেলসি ও আর্সেনাল, মুখোমুখি এসি মিলান-য়্যুভেন্তাস

  • রাশিয়ান লিগে শিরোপা ধরে রাখলো জেনিত সেন্ট পিটার্সবার্গ

  • ম্যাঙ্গো ট্রেনের পর এবার যুক্ত হচ্ছে এনিমেল ট্রেন

  • জোসে মরিনিয়োকে ২০০তম জয় উপহার দিলো টটেনহ্যাম

  • বরিশালে তরুণ-তরুণীর একসাথে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

  • বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবিতে নিহতদের পরিবার ন্যায় বিচার পাবে: নৌ প্রতিমন্ত্রী

  • ওয়ারীর লকডাউনে বিড়ম্বনায় ব্যবসায়ীরা

  • পদ্মা নদীতে নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ ৪

  • কুমিল্লায় প্রাইভেটকার খাদে পড়ে একই পরিবারের ৩ জন নিহত

  • করোনায় দেশে আরও ৫৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩০২৭

  • বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় তদন্ত প্রতিবেদন জমা

  • বিজিবির ১১৯ সদস্যের মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিলের আদেশ স্থগিত

  • রিজেন্ট হাসপাতাল সিলগালা করার সিদ্ধান্ত

  • বর্ষায় নাব্য সংকটে নৌযান চলাচল

সিরাজগঞ্জে ট্রেন দুর্ঘটনা: কারণ উদঘাটন করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি

সিরাজগঞ্জে ট্রেন দুর্ঘটনা: কারণ উদঘাটন করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি

মাত্র চার মাসের ব্যবধানে ভয়াবহ দুটি ট্রেন দুর্ঘটনা সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায়। ফলে নানা প্রশ্ন আর উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে এ অঞ্চলের ট্রেন যাত্রীদের। রেল দুর্ঘটনার এসব কারণ উদঘাটন করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি তাদের। এছাড়া রেল কর্তৃপক্ষকে আরও সচেতন হওয়ার আহবান জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

চার মাস আগে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার সলপ এলাকায় ট্রেন-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে বর-কনেসহ নিহত হন ১১জন।

এরপর গেল বৃহস্পতিবার উল্লাপাড়া স্টেশন এলাকায় ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে বগিতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে প্রাণহানি না হলেও রেলের বগি ও ইঞ্জিনের ব্যাপক ক্ষতি হয়।  

এরপর থেকেই ট্রেনের যাত্রী ও এলাকাবাসীর কাছে দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে রেলযাত্রা। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান করে রেলযাত্রা আরও সহজ করার দাবি জানিয়েছেন তারা।

এলাকাবাসী জানান, দীর্ঘদিনের সংস্কারের অভাব রয়েছে রেললাইনে, এগুলোর উত্তরণ চাই আর এই ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজের সংস্কার চাই। এই দুর্ঘটনা একটু তদন্ত করা হোক যাতে এই ধরণের দুর্ঘটনা কেন হচ্ছে? কিভাবে হচ্ছে এর একটা যথাযথ পদক্ষেপ দেওয়া হউক। যেন রেল একটা স্বস্তিদায়ক ভ্রমনের মাধ্যম হয়।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোফাজ্জল হোসেন বলেন, রেলের যারা ড্রাইভার থাকে, যারা সিগনালিং কাজে নিয়োজিত এরা সবাই সরকারি কর্মচারী। তদন্ত কমিটির রির্পোটে যখন এরা দোষী সাবস্ত হয় তখন এদের বিরুদ্ধে ডিপার্টমেন্টাল ব্যবস্তা নেওয়া হয়।

নতুন রেলসেতু নির্মাণসহ ঝুঁকিপূর্ণ সেতুগুলোও দ্রুত মেরামতের আশ্বাস দিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। তিনি বলেন, আমাদের যে লাইনগুলো আছে সেগুলো হয়তো দুই-পাঁচ বছর সময় লাগতে পারে এত দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করা সম্ভব না। তাই এটা ঝুঁকিমুক্ত করার জন্য যে সংস্কার প্রয়োজন আমরা খুব অল্প দিনের মধ্যে তা করবো।  

ঢাকা-রাজশাহী, ঢাকা-খুলনা, ঢাকা-রংপুরের ব্যস্ততম এ রুট দিয়ে প্রতিদিন ৩০টি ট্রেন যাতায়াত করে।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর