channel 24

সর্বশেষ

  • রাষ্ট্রীয় ব্যস্ততার কারণেই ভারত যাননি স্বরাষ্ট্র-পররাষ্ট্রমন্ত্রী: কাদের

  • খালেদা জিয়াকে জামিন না দেয়ার সিদ্ধান্ত আদালতের নয়, সরকারের: রিজভী

  • কেরাণীগঞ্জের প্লাস্টিক কারখানার অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আরও ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • ব্রিটেনের নির্বাচনে টিউলিপসহ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারীর জয়

  • যুক্তরাজ্যে নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেল কনজারভেটিভ পার্টি

আমনের ফলন ভালো হলেও ন্যায্য দাম নিয়ে শঙ্কায় কৃষকেরা

আমনের ফলন ভালো হলেও ন্যায্য দাম নিয়ে শঙ্কায় কৃষকেরা

দেশের বিভিন্ন স্থানে চলছে আমন ধান কাটা মৌসুম। ফলন ভালো হওয়ায় খুশি নওগাঁ ও জয়পুহোটের কৃষকরা। কিন্তু শঙ্কা আছে ন্যায্য দাম পাওয়া নিয়ে। আর অসময়ে বৃষ্টিতে নাটোরের কৃষকদের ফসল নষ্ট হচ্ছে কারেন্ট পোকার আক্রমণে। এ অবস্থায় কৃষকদের দাবি, ধানের ন্যায্য দাম ও প্রণোদনার।

মাঠ ভরা সোনালী ধানের দোল। এ আনন্দে দুলছে কৃষকের মন। এ বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ভালো ফলন হয়েছে নওগাঁ ও ফরিদপুরে। স্বর্ণা জাতের ধান বিঘা প্রতি গড়ে হচ্ছে ২১ মন।

ফরিদপুর বিএডিসি সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. মনোয়ার হোসেন খান জানান, ফরিদপুরে এবার আধুনিক যন্ত্র ব্যবহারে খরচ কমেছে ধান কাটার।

তবে বাম্পার ফলনের আনন্দ নিমেষেই মিঁইয়ে যায় ভালো দাম না পাওয়ার শঙ্কায়। কৃষকের অভিযোগ, কৃষি কার্ড না থাকায় সরকার নির্ধারিত গুদামে ধান দিতে পারেন না তারা।

এদিকে নাটোরের কৃষকের মনে বাসা বেঁধেছে অন্য দুর্ভাবনা। অসময়ের বৃষ্টিতে কারেন্ট পোকার আক্রমণে দিশেহারা তারা। স্থানীয় কৃষি কর্মকর্তাদের দাবি, ক্ষতি পুষিয়ে নিতে দেয়া হচ্ছে সহায়তা। ভালো দাম পেলে পুষিয়ে যাবে ক্ষতি।

প্রতি মন ধান উৎপাদনে এ বছর কৃষকের খরচ সাড়ে ৭'শ থেকে ৮'শ টাকা। তারা বলছেন, ধানের দাম হাজার-এগারশো হলে হাতে কিছু থাকবে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, এবার আমনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ কোটি ৫৩ লাখ ৫৭ হাজার টন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর