channel 24

সর্বশেষ

  • প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশের স্পিনে ধরাশায়ী জিম্বাবুয়ে

  • ক্যাম্পাসেই করলেন গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান

  • দেশের অর্থনীতি সিঙ্গাপুরের চেয়ে শক্তিশালী: প্রধানমন্ত্রী

  • চাঁপাইনবাবগঞ্জে ধর্ষণের পর শিশু হত্যা, সিরাজগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার

  • ঢাকায় মেট্রোরেলের মকআপ ট্রেন, মতিঝিল-দিয়াবাড়ি রুট চালু আগামী বছর

  • ইতিহাস বিভাগের দাবিতে আজও উত্তাল গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়

  • চীনকে ১৮ লাখ মেডিকেল সামগ্রী দিলো বাংলাদেশ

  • করোনাভাইরাস: চীনে আটকা পড়া ১৯৮ বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর দেশে ফেরার আকুতি

  • বেত্রাঘাতের প্রতিশোধ নিতে শিক্ষককে খুন, একজনের মৃত্যুদণ্ড

  • ‘কচুরিপানা খাওয়া’ নিয়ে বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী

  • রাজধানীর আরামবাগে ফ্ল্যাট থেকে বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার

  • স্মার্ট এগ্রোরোবট উদ্ভাবন করেছেন ২ শিক্ষার্থী

  • টানা পাঁচদিন পর ফের পতন পুঁজিবাজারে

  • ফজলে কবিরকে গভর্নর পদে চুক্তিতে নিয়োগ

  • ময়মনসিংহে যুব বিশ্বকাপজয়ী রাকিবুলকে সংবর্ধনা

তীব্র স্রোত ও নাব্য সংকটে প্রায় অচল শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুট

তীব্র স্রোত ও নাব্য সংকটে প্রায় অচল শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুট

তীব্র স্রোত আর নাব্য সংকটে প্রায় অচল শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুট। বেশিরভাগ সময়ই বন্ধ থাকছে ফেরি চলাচল। কর্তৃপক্ষ বলছে, দিনের কিছু সময় ২/৩টি কে-টাইপ ফেরি চালানো গেলেও, রাতে কিছুতেই সচল রাখা যাচ্ছে না। এতে ঘাটের দুই পাড়ে আটকা পড়েছে শত শত যানবাহন।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুট। উত্তাল পদ্মা; ঘাটে ব্যাক্তিগত ও জরুরি পন্যবাহীসহ গণপরিবহনের দীর্ঘ সারি...।

তীব্র স্রোত ও পদ্মার মাঝনদীতে পলি জমে নাব্যতা সৃষ্টি হওয়ার কার্যত অচল, দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল বাসীর অন্যতম এই প্রবেশপথ। গত আড়াই মাস ধরে চলছে এই অচলাবস্থা। সপ্তাহ খানেক ধরে সমস্যা আরো প্রকট হয়েছে। প্রতিদিন রাত ৮ টার পর থেকে পরের দিন সকাল ১০/১১টা পর্যন্ত পুরোপুরি বন্ধ থাকছে ফেরি চলাচল। দিনের কিছু সময় ১৭টির মধ্যে ২/১ টি কে-টাইপ ফেরি চলাচলও রাতে পুরোপুরি বন্ধ থাকছে ফেরি সার্ভিস। তাই সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েছে, ঘাটে আটকা পড়া যাত্রী ও যানচলকরা। যানজটে আটকা পড়ে নষ্ট হচ্ছে কাঁচামালসহ মূল্যবান পন্যসামগ্রী।

ড্রেজিং বিভাগ বলছে, তীব্র স্রোত ও উজান থেকে আসা পলি জমে পদ্মার বিভিন্ন অংশে প্রতিনিয়ত সৃষ্টি হচ্ছে ডুবোচর। ১০/১২ টি ড্রেজার দিয়ে রাত-দিন খনন কাজ করলেও তা, খুব একটা কাজে আসছে না। আর বিআইডব্লিউিটিসির চেয়ারম্যান জানান, স্রোতের তীব্রতা না কমলে ফেরি চলাচল কিছুতেই স্বাভাবিক করা সম্ভব নয়।

শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক না থাকায় লঞ্চ ও স্পিডবোটে ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন লাখো মানুষ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর