channel 24

সর্বশেষ

  • পরীক্ষার হার না বাড়ালে বাংলাদেশের পরিণতি হতে পারে ব্রাজিলের মতো

  • দেশে ষাটোর্ধ্ব মানুষের মৃত্যুর হার ৪২ শতাংশ, আক্রান্তদের মধ্যে তরুণরাই বেশি

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে সোমবার থেকে চালু গণপরিবহন, রোববার থেকে লঞ্চ

  • করোনায় বিশ্বে প্রাণহানি ছাড়িয়েছে ৩ লাখ ৬৪ হাজার, সুস্থ ২৫ লাখ

  • বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা ট্রাম্পের

  • জিয়াউর রহমানের ৩৯তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

  • বিচারপতিদের শপথ ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে; ফুল কোর্ট সভা বাতিল

  • লিবিয়ায় নিহত ২৬ বাংলাদেশির মধ্যে ২৩ জনের পরিচয় মিলেছে

  • 'আদালতের অনুমতি ছাড়া মোরশেদ খানের বিদেশ যাওয়া আইন সিদ্ধ হয়নি'

  • ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন আশরাফুল

  • শ্বেতাঙ্গ পুলিশের নৃশংসতায় ৯ রাজ্যে বিক্ষোভ; ৪ পুলিশ অফিসার বরখাস্ত

  • মাটিতে পুঁতে রাখার ১১ মাস পর ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • সোমবার থেকে চলবে গণপরিবহন, রোববার নৌযান

  • জন্মের মাত্র একদিনের মাথায় প্রাণঘাতী করোনার সাথে যুদ্ধ

চাঁদপুরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু

চাঁদপুরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু

চাঁদপুরে মা ও শিশু হাসপাতাল নামে একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসকের ভুলের কারণে হালিমা আক্তার নামে এক প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রোববার (০৬ অক্টোবর) রাতে চাঁদপুর শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে অবস্থিত মা ও শিশু হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত চিকিৎসক ডাক্তার নাজমুন নাহার মুন্নী ও হাসপাতালের স্টাফরা।

পুলিশ জানায়, গত শনিবার রাতে বালিয়া গ্রামের প্রসূতি হালিমা আক্তার শহরের মা ও শিশু হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভর্তি হন। গতকাল রোববার (০৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় তিনি একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থা অবনতি হলে ঢাকায় নেয়ার পরামর্শ দেন কর্তব্যরত চিকিৎসক নাজমুন্নাহার মুন্নি। পরে গুরুতরবস্থায় হালিমা আক্তারকে সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মৃতের বড় ভাই লিটন শেখ জানান,  গত শনিবার তার বোন হালিমাকে সিজার করানোর জন্য ওই হাসপাতালের পরিচালক মারুফের মাধ্যমে হাসপাতালে ভর্তি করান। পরদিন রোববার রাতে গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নাজমুন্নাহার মুন্নি হালিমার সিজার করালে তার একটি ছেলে সন্তান হয়। কিন্তু নবজাতক জীবিত থাকলেও প্রসূতি মায়ের মৃত্যু ঘটে।
 
তাদের অভিযোগ, অপারেশন শেষ হলে হাসপাতালের দায়িত্বে থাকা মারুফ তাদেরকে বলেন, রোগীর অবস্থা ভালো না তাকে ঢাকার হাসপাতালে নিতে হবে। এই বলে তারা তাদেরকে কিছু না জানিয়ে রোগীকে এ্যাম্বুলেন্সে উঠিয়ে দেন। তাদের কথায় স্বজনদের সন্দেহ হলে তারা রোগীকে ঢাকায় না নিয়ে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর