channel 24

সর্বশেষ

  • খালেদা জিয়ার দণ্ড স্থগিতের মেয়াদ বাড়াতে পরিবারের আবেদন

  • জনসনের ভ্যাকসিন আনার উদ্যোগ সরকারের

  • জামিন পেলেন কার্টুনিস্ট কিশোর

  • ২৭তম দিনের মতো রাজপথে সু চি সমর্থকরা

  • হবিগঞ্জে বিজিবির অভিযান, রকেট লঞ্চারের ১৮টি গোলা উদ্ধার

  • ইংলিশ লিগে উল্ভসকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করলো ম্যান সিটি

  • পঞ্চম দফায় ভাসানচরের পথে ২ হাজার ২৬০ রোহিঙ্গা

  • শহীদ মিনারে সাংবাদিক শাহীন রেজার মরদেহে সর্বস্তরের শ্রদ্ধা

  • করোনা টিকা নিতে এখনও সিদ্ধান্ত নেননি খালেদা জিয়া

  • তৃতীয় দফায় কোভিড টেষ্ট হয়েছে টিম বাংলাদেশের

  • এক অনন্য রেকর্ডের মালিক সিআর সেভেন

  • হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বন্ধ যাত্রী পারাপার

  • ভরিতে ১ হাজার ৫শ ১৬ টাকা কমলো স্বর্ণের দাম

  • একুশে গ্রন্থ মেলায় বিক্রি নিয়ে শঙ্কায় প্রকাশক-লেখক

  • দেশে ১০ জনের একজন কানে শোনে না

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাড়ছে নারী ও শিশু নির্যাতন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাড়ছে নারী ও শিশু নির্যাতন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গত ৭ মাসে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন দেড় শতাধিক। এমন তথ্য দিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাড়ছে নারী ও শিশু নির্যাতন বিষয়ক মামলা। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া তথ্য বলছে, গত সাত মাসে ধর্ষণের অভিযোগে হাসপাতালে এসেছেন শিশু, কিশোরী ও প্রতিবন্ধীসহ ১৬৭ জন। কিন্তু মেডিকেল পরীক্ষায় মাত্র পাঁচ ভাগের শরীতে ধর্ষণের আলামত মিলেছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন মো: শাহ আলম বলেন, সময় মতো হাসপাতালে না আসায় অনেক ক্ষেত্রে ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায় না। এতে করে ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকছে প্রকৃত অপরাধীরা। এছাড়া প্রয়োজনীয় সাক্ষীর অভাবে এসব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি না হওয়ায় এ ধরনের অপরাধ বাড়ছে বলেও মনে করেন তিনি।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, মামলা করেও প্রতিকার পাচ্ছেন না তারা। উল্টো নানা সময়ে তাদেরকে হুমকি ধমকি দিচ্ছে অভিযুক্তরা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার পাবলিক প্রসিকিউটর বলছেন, অনেক সময় প্রয়োজনীয় সাক্ষীর অভাবে এসব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করা সম্ভব হয় না। ফলে জেলায় বাড়ছে নারীর প্রতি সহিংসতা।

জেলায় নারী বা শিশু নির্যাতন বাড়ার কথা স্বীকার করে পুলিশ সুপার মো: আনিসুর রহমান বলেন, এসব ঘটনায় প্রশাসন সজাগ রয়েছে। অভিযোগ পাওয়া মাত্রই গুরুত্বসহকারে অভিযুক্তকে চিন্হিত করার ক্ষেত্রে প্রশাসন সর্বদা সচেষ্ট বলে জানান ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার পুলিশ সুপার।  

তবে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের অনেক মামলাই হয় ব্যক্তিগত ও পারিবারিক বিরোধের জেরে। ফলে প্রকৃত ঘটনা তদন্ত করে দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি অনেকের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর