channel 24

সর্বশেষ

  • আদালতে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ ক্ষমার অযোগ্য: কাদের

  • সরকারই আদালত অবমাননা করেছে: ফখরুল

  • চট্টগ্রামে মেরিন ওয়ার্কশপে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, দগ্ধ ৭

  • ট্রাম্পকে অভিসংশনে খসড়া প্রস্তাব তৈরিতে হাউজ জুডিশিয়ারি কমিটিকে স্পিকারের নির্দেশ

  • পেনশন সংস্কারের বিরুদ্ধে ধর্মঘটে অচল ফ্রান্স

বিভিন্ন স্থানে ছেলেধরা আতঙ্ক: গণপিটুনিতে নিহত ৩, আটক ৪

বিভিন্ন স্থানে ছেলেধরা আতঙ্ক: গণপিটুনিতে নিহত ৩, আটক ৪

পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে, এমন গুজবের মধ্যেই দেশের বিভিন্ন স্থানে তৈরি হয়েছে ছেলেধরা আতঙ্ক। এরইমধ্যে রাজধানী ও নারায়ণগঞ্জে গণপিটুনিতে নিহত হয়েছে তিনজন। বিভিন্ন স্থানে গণধোলাইয়ের পর পুলিশে দেয়া হয়েছে অন্তত চারজনকে।

শনিবার (২০ জুলাই) সকালে রাজধানীর বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এক নারীকে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নেয়া হলেও বাঁচানো যায়নি তাকে।

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে এক শিশুকে ধরে নেয়ার চেষ্টা করছিলো ওই যুবক। ওই শিক্ষার্থীর চিৎকার করলে তাকে নিজের সন্তান হিসেবে পরিচয় দেয় ওই যুবক। কিন্তু সন্দেহ হলে তাকে আটক করে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা। একই এলাকায় ছেলেধরা সন্দেহে শারমিন বেগম রেশমা নামে এক নারীকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

এদিকে কেরানীগঞ্জে 'ছেলেধরা' সন্দেহে দুই যুবককে গণপিটুনি দেয় এলাকাবাসী। এতে একজন নিহত হয়। অন্যজনকে গুরুতর আহতবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার (২০ জুলাই) সকাল সাড়ে আটটার দিকে কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন হযরতপুর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, শনিবার সকালে ওই দুই যুবক গ্রামে ঘোরাঘুরি করতে থাকে। তারা শিশুদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করে। এতে তাদের উপর সন্দেহ হলে এলাকাবাসী ধরে গণপিটুনি দেয়।

গাজীপুর, ময়মনসিংহ ও কুষ্টিয়া ও চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ছেলে ধরা সন্দেহে গণধোলাই দেয়া হয় চারজনকে।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুবাস চন্দ্র সাহা জানান, ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যশোর সনাক সভাপতি সুকুমার দাস বলেন, গণপিটুনিতে হত্যা নয় বরং অপরাধীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রকৃত রহস্য উন্মোচন করতে হবে।

বিভিন্ন স্থানে ছেলে ধরা গুজবে উদ্বিগ্ন অভিভাবকরাও। এ বিষয়ে সরকারের কঠোর পদক্ষেপ চেয়েছেন তারা।

নিউজটির ভিডিও-

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

দেশ 24 খবর