channel 24

সর্বশেষ

  • রাজধানীতে গৃহবধূর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

  • ২০২২ সালের মধ্যে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষকে টিকা দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • আফগানিস্তান ইস্যুতে বাতিল হল সার্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক

  • নেতাকর্মীদের সাথে ৫ম দিনের মতো বৈঠকে বিএনপি

  • ১০ মাসেই রাজশাহী মেডিকেলের চেহারা বদলেছেন ব্রি. জে. শামীম ইয়াজদানী

  • খুলনায় যৌতুক মামলায় সিআইডি কর্মকর্তা কারাগারে

  • চাঁদপুর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালকসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

  • সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে পদ্মার ইলিশ

  • আইনি কাঠামোতে আসছে ই-কমার্স খাত

  • মহেশখালিতে রিটার্নিং কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ফল পাল্টে দেয়ার অভিযোগ

  • সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কমিশনকে সর্বাত্মক ক্ষমতা দেয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

  • ভোটার তালিকায় নেই লোকমান, অর্ধশতাধিক নতুন মুখ

  • একাধিকবার গর্ভপাত, মাতৃত্বের স্বাদ বঞ্চিত গৃহবধূর আদালতে মামলা

  • পরিবারে বাল্য বিয়ে থাকলে ভিজিডি নয়: সংসদীয় কমিটি

  • চ্যানেল 24 ও সমকাল কার্যালয়ে এমপি নিক্সন

চট্টগ্রামে করোনার মধ্যে ডেঙ্গুর হানা, মৃত্যু ২

চট্টগ্রামে করোনার মধ্যে ডেঙ্গুর হানা, মৃত্যু ২

চট্টগ্রামেও করোনার মধ্যে চোখ রাঙাচ্ছে ডেঙ্গু। আবার ডেঙ্গু রোগীদের কেউ কেউ আক্রান্ত হচ্ছেন করোনায়। তবে দুই রোগের চিকিৎসা পদ্ধতি ভিন্ন হওয়ায় পরিস্থিতি জটিল হয়ে এরই মধ্যে মারা গেছেন ২ জন। চিকিৎসকরা বলছেন, করোনার কারণে এমনিতেই আইসিইউ সংকট। তাতে গুরুতর ডেঙ্গু রোগীদের জন্য এ সংকট আরো প্রকট। যদিও ডেঙ্গুর বাহক এডিস মশা নিধনে খুব একটা সুখবর নেই সিটি করপোরেশনের কাছে।

চলতি মৌসুমে চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২ জন। এছাড়া, হাসপাতালে চিকিৎসা নেন আরো অন্তত ৫জন।

করোনার মধ্যেই ডেঙ্গু। চিকিৎসকরা বলছেন, কেউ কেউ একসাথে ডেঙ্গু আর করোনা দুটোতেই আক্রান্ত হচ্ছে। চিকিৎসার ধরন ভিন্ন ভিন্ন হওয়ায় রোগীকে সুস্থ করে তোলাই কঠিন হয়ে পড়ছে। আবার হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ বা এসডিইউ করোনা রোগীদের জন্য ব্যস্ত থাকায় তেমন মিলছেনা গুরুতর ডেঙ্গু রোগীর জন্য।

আরও পড়ুন: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ফল বিতর্ক, এক বিষয়ে গণফেল

অবশ্য সিভিল সার্জন বলছেন, বেসরকারিতে সংকট থাকলেও সরকারি হাসপাতালে করোনার প্রায় সমপরিমাণ আইসিইউ রয়েছে অন্য রোগীদের জন্য।

তবে ডেঙ্গু ভয় জাগালেও এডিস মশা কোনভাবে নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছে না সিটি করপোরেশন। তাই এডিসের উপস্থিতি ও ওষুধের কার্যকারিতা জানতে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়কে। গবেষকরা বলছেন, লার্ভার নমুনা নেয়া ৫৭ স্থানের মধ্যে ১৫ জায়গায় মিলেছে এডিসের অস্তিত্ব। সব ওষুধে কার্যকারিতা না থাকায় নিধন হচ্ছে না মশা।

মশক নিধনে একশ দিনের ক্রাশ প্রোগ্রাম ছাড়াও লার্ভার উৎস জানতে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার কথাও বলছে করপোরেশন।

এসিএন/

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর