channel 24

সর্বশেষ

  • চিকিৎসকসহ নানা সংকটে সিলেট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও হাসপাতাল

  • ফরিদপুরে ছাত্রলীগের সাবেক নেতৃবৃন্দের অন্যন্য নজির

  • ঈদকে সামনে রেখে অনলাইনে বাড়ছে গয়না বিক্রি

  • বড় পতনের পর ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত পুঁজিবাজারে

  • যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা দোষী সাব্যস্ত

  • লকডাউনের মধ্যেই অভ্যন্তরীণ রুটে বিমান চলাচল শুরু

  • লকডাউনে গলি মহল্লার ভিড় এখন মূল সড়কে

  • স্কুল বন্ধ থাকায় অনিশ্চয়তায় কোটি শিক্ষার্থীর জীবন, বেড়েছে বাল্যবিবাহ

  • শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করছে বাংলাদেশ

  • দাতাদের সাথে আলোচনার পর ভাসানচরে অর্থায়নের সিদ্ধান্ত: জাতিসংঘ

  • ভারতে আরও ভয়াবহ হচ্ছে করোনা, একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ২০২১

  • লঙ্কানদের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ

  • জামালপুরে সুজন নামে এক ব্যক্তিকে গলা কেটে হত্যা

  • খুলনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় এনটিভির সাংবাদিক আবু তৈয়ব গ্রেপ্তার

  • চালু হচ্ছে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট

খাগড়াছড়িতে বেপরোয়া চাঁদাবাজিতে ব্যাহত খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচী

খাগড়াছড়িতে বেপরোয়া চাঁদাবাজিতে ব্যাহত খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচী

আঞ্চলিক সংগঠনগুলোর বেপরোয়া চাঁদাবাজিতে খাগড়াছড়িতে ব্যাহত খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচী। সৃষ্টি হচ্ছে খাদ্য সংকটের মতো ভয়াবহ পরিস্থিতিও। দীর্ঘদিনে পরিবহনে চাঁদাবাজি শ্রমিকদের মারধোর ও চালানপত্র ছিনিয়ে নেয়াসহ সড়কে নির্যাতনের কোন প্রতিকার না হওয়ায় শেষে ধর্মঘটে যেতে বাধ্য হয়েছেন সংশ্লিষ্টরা

খাগড়াছড়িসহ তিন পার্বত্য জেলায় সরকারের নিরাপদ খাদ্য কর্মসূচীয় আওতায় গত তিন দশক ধরে রেশন পাচ্ছে ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরনার্থী বাঙ্গালী গুচ্ছগ্রাম ও শান্তিচুক্তির আলোকে আত্মসমর্পন করা বারো হাজারের বেশি পরিবার। যারা প্রতি তিনমাস পর পর প্রকল্প চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে পান এসব খাদ্যশস্য।

কিন্তু খাদ্যশস্য পরিবহনে জড়িত ঠিকাদারদের কাছ থেকে আঞ্চলিক সংগঠনগুলোর বেপরোয়া চাঁদা আদায় শ্রমিকদের মারধোর ও চালানপত্র ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে গত ১৮ ফেব্রুয়ারী থেকে ধর্মঘট চলছে খাগড়াছড়ির ঠিকাদারদের। ফলে ত্রাণ পাচ্ছেন না দীঘিনালার সাড়ে ৪ হাজারেরও বেশি উপজাতীয় শরনার্থী পরিবার। তাতে ব্যাহত হচ্ছে খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচী সৃষ্টি হচ্ছে খাদ্য সংকটের মতো ভয়াবহ পরিস্থিতি।     

ধর্মঘট আহবানকারীরা বলছেন শ্রমিকদের নিরাপত্তা চাঁদাবাজি ও হয়রানি বন্ধ না হলে ধর্মঘট চালিয়ে যাবেন তারা। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে পদক্ষেপ নেয়ার কথা বলছে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী। 

তবে এই চাঁদাবাজির বিষয়ে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সেই আঞ্চলিক সংগঠনগুলোর কেউই কথা বলতে রাজি হননি। 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর