channel 24

সর্বশেষ

  • জাতিসংঘের মিশনে যাচ্ছেন বাংলাদেশি ৪ নারী বিচারক

  • ৭ মার্চের ভাষণ বাঙালীর মুক্তির সনদ: এ কে আজাদ

  • শেখ জামালের জয়ে শেষ হলো বিপিএলের প্রথম পর্ব

  • শঙ্কায় জুনের এশিয়া কাপ, ঘরোয়া ক্রিকেট করবে বিসিবি

  • কলকাতায় বিজেপির বিশাল শোডাউন; মমতাকে ব্যঙ্গ মোদির

  • নোয়াখালীতে সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার ১

  • ৭ মার্চের ভাষণ স্বাধীনতার ঘোষণা নয়: বিএনপি

  • ৭ মাস পর গণভবনের বাইরে প্রধানমন্ত্রী

  • কুষ্টিয়ায় এনআইডি জালিয়াতি: ৫ জনের বিরুদ্ধে ইসির মামলা

  • বান্দরবান সরকারি মহিলা কলেজে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধন

  • চট্টগ্রামে নানা আয়োজনে পালিত হল ৭ মার্চ

  • ৭ মার্চের ভাষণই স্বাধীনতার ঘোষণা: প্রধানমন্ত্রী

  • চট্টগ্রামের নগর পরিকল্পনাবিদ ইঞ্জিনিয়ার আলী আশরাফের মৃত্যু

  • রোজা রেখেও নেয়া যাবে করোনার টিকা

  • পল্লী বিদ্যুৎ বোর্ড ও সমিতিতে ট্রেড ইউনিয়ন নয়: হাইকোর্ট

চট্রগ্রাম বিমানবন্দরে স্বর্ণ জব্দ: সন্দেহ বিমান স্টাফদের দিকে

চট্রগ্রাম বিমানবন্দরে স্বর্ণ জব্দ: সন্দেহ বিমান স্টাফদের দিকে

চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে দেড়শ পিস স্বর্ণের বার জব্দ হয়েছে। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) কাস্টমস,শুল্ক গোয়েন্দা ও এনএসআই কর্মকর্তারা যৌথভাবে বিমান বাংলাদেশের একটি ফ্লাইট থেকে ১৭ কেজি ৪শ' গ্রাম ওজনের প্রায় ১০ কোটি টাকার এসব বার আটক করে। তবে এর সাথে জড়িত কেউ ধরা না পড়লেও বিমানের দু’জন স্টাফ এর সাথে জড়িত রয়েছে বলে ধারণা করছে একটি গোয়েন্দা সূত্র।

সূত্রটি জানিয়েছে, মেকানিক্যাল শাখার মাহবুবুল আলম মিঠু এবং ক্লিনার হারাধন স্বর্ণ চোরাচালানের সাথে জড়িত থাকতে পারে বলে তারা ধারণা করছেন। তারা দীর্ঘদিন ধরে নজরদারিতে রয়েছেন। তবে একবারের জন্য ধরা না পড়লেও একাধিক সংস্থা তাদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। এ বিষয়ে মাহবুবুল আলম মিঠুর মোবাইলে রিং দিলে তিনি পরিচয় পাওয়ার পর থেকে আর মোবাইল ধরেননি। এমনকি এসএমএস দিয়েও কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি।

সুত্র জানিয়েছে, সোমবার সকালে আবুধাবি থেকে চট্রগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দরে ছেড়ে আসা বিমান বাংলাদেশ এয়ার লাইন্সের ফ্লাইট বিজি ওয়ান টু এইটে বিপুল পরিমাণ স্বর্ণবার রয়েছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালায় কাস্টমস, শুল্ক গোয়েন্দা এবং এনএসআই কর্মকর্তারা।

তল্লাশির এক পর্যায়ে দুটি আসনের সিটের নিচে এসি প্যানেল থেকে বিশেষ প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। পরে প্যাকেট দুটি থেকে ১৭ কেজি ৪শ' গ্রাম ওজনের প্রায় ১০ কোটি টাকা মূল্যমানের স্বর্ণেরবার উদ্ধার করা হয়। তবে কাউকে আটক করা যায়নি। সুরক্ষিত জয়গায় এভাবে স্বর্ণ পাচারের সাথে বিমানের কেউ না কেউ জড়িত বলে গোয়েন্দা কর্মকর্তারা ধারণা করছেন। এরই অংশ হিসাবে প্রাথমিকভাবে বিমানের ওই দুই স্টাফকে তারা সন্দেহের প্রথমে রাখছেন। সূত্রমতে, ভেতরের কেউ জড়িত না থাকলে এভাবে স্বর্ণবার আনা সম্ভব নয়। ঘটনায় মামলা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর