channel 24

সর্বশেষ

  • চালু হচ্ছে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট

  • মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও গর্ভপাতের অভিযোগ

  • ফেভারিট শ্রীলঙ্কার সামনে স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশও

  • কচুরিপানায় ভাগ্য বদলেছে দুই শতাধিক নারীর

  • মামুনুলের নজর ছিলো ধর্মকে পুঁজি করে ক্ষমতা দখলে: পুলিশ

  • ফোর্বসের 'থার্টি আন্ডার থার্টি এশিয়া' তালিকায় ৯ বাংলাদেশি

  • তিনে ওঠার হাতছানি নিয়ে রাতে মাঠে নামছে চেলসি

  • সুপার লিগের বিপক্ষে জোট বেঁধেছে পুরো বিশ্ব

  • করোনায় মারা গেলেন কর কমিশনার আলী আজগর

  • চট্টগ্রামে সাতটি এলাকাকে উচ্চ সংক্রমিত ঘোষণা করলেও নেই তৎপরতা

  • চট্টগ্রামে ভয়ংকর হয়ে উঠেছে করোনা, বাড়ছে প্রাণহানি

  • করোনার ভ্যাকসিনে মিলছে সুফল, সিভাসুর গবেষণা

  • ধান সংকটে স্থবির কুষ্টিয়ার বৃহত্তম চালের মোকাম

  • কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যান-লরি সংঘর্ষে ৩ জনের প্রাণহানি

  • লঙ্কা টেস্টে টাইগারদের ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা দেখছেন ফাহিম

রাশিয়া থেকে আমদানি করা গমে ১২শ টন গায়েব!

রাশিয়া থেকে আমদানি করা গমে ১২শ টন গায়েব!

রাশিয়া থেকে আমদানি করা গমের ১২শ টন গায়েব নিয়ে, এখনও ধোঁয়াশা কাটেনি। তদন্তে দেশের সাইলোতে অনিয়ম আর চুক্তিতে জালিয়াতির বিষয়টি উঠে এলেও, কাউকে দায়ী করা হয়নি। এ নিয়ে টানাপোড়েনে থমকে যায়, গত বছরের শেষ চালানটি। ফলে এখন টনপ্রতি ৯৮ ডলার বাড়তি দরে নিতে হচ্ছে। এতে সরকারের অপচয় হচ্ছে ৮২ কোটি টাকার বেশি।

গেল বছর এককভাবে জিটুজি ভিত্তিতে ৬ লাখ টন গম আমদানির জন্য রাশিয়ার সাথে চুক্তি করে সরকার। উদ্দেশ্য, অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটানো।

প্রথম তিন চালানে সব ঠিক থাকলেও; পরের দুই চালানের প্রায় ১ লাখ টন গম খালাসে বিপত্তি বাধে। কেননা, চট্টগ্রাম ও মোংলা সাইলোতে ১২শ টনের মতো গম চুরির অভিযোগ তোলে রাশিয়া। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তদন্ত করে খাদ্য বিভাগ। তবে তাতে কাউকে দায়ী করা হয়নি।

অবশ্য তদন্তে উঠে আসে দেশি-বিদেশি নানা অনিয়মের কথা। প্রতিবেদনে বলা হয়, আলোচিত চালানটি খালাসকালে নথিপত্রে একটি লাইটার জাহাজে গমের ঘাটতি দেখা দেয়। যা চাপা দিতে সাইলো সুপার অন্য একটি লাইটারে বেশি গম দেখিয়ে দেন। এতে চুরি নিয়ে সন্দেহ বাড়ে। তবে তা অস্বীকার করেন সাইলো সুপার।

রাশিয়া থেকে গম পরিবহনকারী প্রতিষ্ঠান সেভেন সীজের স্বত্বাধীকারী ছিলেন এই তদন্ত কমিটিতে। তাঁর অভিযোগ, বহির্নোঙ্গরে পৌঁছার পর গম পরিমাপের প্রক্রিয়া নিয়ে জালিয়াতি করেছে রাশিয়া। তাতে শঙ্কা, দেশটিই পরিমাণে কম সরবরাহ করেছে।       

এই টানাপোড়েনে গেল বছরের ষষ্ঠ চালানের ১ লাখ টন গম পাঠায়নি রাশিয়া। যার দর নির্ধারিত ছিল টন প্রতি ২শ ৫৮ ডলার। কিন্তু পরে দাম বেড়ে যাওয়ায় সম্প্রতি বাংলাদেশ ৩শ ৫৬ ডলারে চালানটি কেনার চুক্তি নবায়ন করতে বাধ্য হয়। এতে সরকারের গচ্চা যেতে পারে ৮২ কোটি টাকার বেশি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর