channel 24

সর্বশেষ

  • ওয়ানডে অভিষেকের অপেক্ষায় রোমাঞ্চিত ৩ তরুণ

  • ফরিদপুরে উচ্চ ফলনশীল পাট বীজে ভালো ফলন হওয়ায় খুশি চাষিরা

  • ট্রাম্প সমর্থকদের স্বশস্ত্র বিক্ষোভের শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে নিরাপত্তা জোরদার

  • আইসক্রিমেও করোনাভাইরাস!

  • ১১ বছরের শিশু ধর্ষক কিনা, তিন ধরনের রিপোর্ট; হাইকোর্টের ক্ষোভ

  • উত্তপ্ত সিরাজগঞ্জ, দোষীদের শনাক্তের দাবি পুলিশের

  • দিনাজপুরে ইউএনও'র ওপর হামলা মামলার চার্জ গঠন

  • মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে: সেনাপ্রধান

  • এমসি কলেজে ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণ মামলার স্বাক্ষ্যগ্রহণ ২৪ জানুয়ারি

  • নোয়াখালীর হাতিয়ায় নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন

  • করোনার টিকা নিতে আগ্রহী নন বিশ্বের ৭২ শতাংশ কৃষ্ণাঙ্গ

  • সৌদিতে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের নতুন পাসপোর্ট দেয়া হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • মহামারিতে এসেছে দেশের সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স

  • চট্টগ্রামে বিরামহীন প্রচারণা চালাচ্ছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা

  • ব্রিসবেন টেস্টের তৃতীয় দিনে ৫৪ রানে এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া

চট্টগ্রামে ভিজিট ভিসায় হয়রানি, কন্ট্রাক্ট ছাড়া যেতে পারছেন না অনেকেই

চট্টগ্রামে ভিজিট ভিসায় হয়রানি, কন্ট্রাক্ট ছাড়া যেতে পারছেন না অনেকেই

নানা উদ্দেশ্যে ভিজিট ভিসায় আরব আমীরাতসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। তবে চট্টগ্রামে সম্প্রতি তা যেন অসম্ভব হয়ে উঠেছে। বিমানবন্দরে তথাকথিত 'কন্ট্রাক্ট' ছাড়া কেউ যেতে পারছে না বলে অভিযোগ। প্রতিদিনই গড়ে ৪০-৫০ জনকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে বিমানবন্দর থেকে। এই কাজে আছে ইমিগ্রেশন পুলিশ, ট্রাভেল এজেন্ট আর বিমানবন্দরের কিছু অসাধু কর্মীর একটি চক্র।

ইকবাল হোসেন। বাড়ি চট্টগ্রামের চন্দনাইশে। সংযুক্ত আরব আমীরাতে থাকা অসুস্থ ভাইকে দেখতে যেতে চেয়েছিলেন। তবে সব ঠিক থাকলেও আটকে দিয়েছে ইমিগ্রেশন পুলিশ। 

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শাহআমানত বিমানবন্দরে দেখা মেলে এমন আরো অনেকের, যারা যেতে চেয়েছিলেন ভিজিট ভিসায়। অভিযোগ, বাড়তি টাকা না দেয়ায় বিমানবন্দর থেকে ফেরত দেয়া হয় তাদের। 

চট্টগ্রাম থেকে এখন প্রতিদিন আমিরাতে যাচ্ছে গড়ে ৫শ'। অভিযোগ এজন্য আশ্রয় নিতে হচ্ছে তথাকথিত চুক্তির। কিন্তু টাকার অঙ্কে হেরফের বা চুক্তি না করলেই কাউকে কাউকে ফিরতে হচ্ছে বাড়ি। প্রতিদিন গড়ে ৪০-৫০ জনকে এভাবে ফেরানো হচ্ছে বিমানবন্দর থেকে।

অভিযোগ, এই চক্রে রয়েছে ইমিগ্রেশন পুলিশের কিছু অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারী, ট্র্যাভেল এজেন্ট আর বিমানবন্দরের কিছু কর্মী। তবে অভিযোগ অস্বীকার করছেন এজেন্টরা। আর বক্তব্য দেয়নি ইমিগ্রেশন পুলিশ। অবশ্য এক্ষেত্রে নিয়মের ব্যতয় হচ্ছে কিনা খোঁজ নেবার কথা বলছে জনশক্তি অফিস।

দীর্ঘদিন এমপ্লয়মেন্ট ভিসা বন্ধ থাকলে সম্প্রতি ভিজিট ভিসা চালু করে সংযুক্ত আরব আমিরাত। যা পরে পরিবর্তনের মাধ্যমে কাজের সুযোগও রেখেছে দেশটি। ফলে ভ্রমণের পাশাপাশি চাকরির উদ্দেশ্যেও যাচ্ছে কেউ কেউ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর