channel 24

সর্বশেষ

  • দুদকের মামলায় টেকনাফের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর কারাগারে

  • থানচিতে চাঁদের গাড়ি খাদে পড়ে ৩ শ্রমিকের মৃত্যু, আহত ৫

  • ভারতের উপহারের ২০ লাখ ডোজ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর

  • বিকেএসপিতে যোগ দিচ্ছেন বিদেশি কোচিং স্টাফ

  • পিকে হালদারের লুটপাট ও অর্থপাচার ঘটনায় গ্রেপ্তার আরো দুই

  • কাল সিরিজ জয়ের হাতছানি টাইগারদের

  • গাজীপুরের কোনাবাড়িতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে বাধা

  • ভোলায় পেঁয়াজ চাষে ইউপি চেয়ারম্যানের চমক

  • পল্লবীতে সিটি করপোরেশনের উচ্ছেদ অভিযানে স্থানীয়দের বাধা

  • তালিকাভুক্ত ১৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৩ কোটি টাকা জরিমানা করবে বিএসইসি

  • পদত্যাগ করলেন ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের এমডি

  • আমদানি সংকট কমতে থাকায় গতি ফিরছে প্রসাধনী ব্যবসায়

  • ঘোষিত লভ্যাংশের অবণ্টিত অর্থ খরচ হবে পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতায়

  • দেশে আসলো করোনা টিকা 'কোভিশিল্ড'

  • ঝালকাঠি বাস টার্মিনাল: নেই যাত্রী ছাউনি, টয়লেট কিংবা বিশ্রামাগার

তিন দফায় মেয়াদ বাড়িয়েও নির্মাণ কাজ শেষ হয়নি পটিয়ার কালারপোল সেতু

তিন দফায় মেয়াদ বাড়িয়েও নির্মাণ কাজ শেষ হয়নি পটিয়ার কালারপোল সেতু

তিন দফায় মেয়াদ বাড়িয়েও চট্টগ্রামের পটিয়ার কালারপোল সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করতে পারেনি সড়ক ও জনপদ বিভাগ। ফলে একটি সেতুর জন্য দীর্ঘদিন ধরে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে কয়েকলাখ মানুষকে। অভিযোগ, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের ধীরগতির কারণে শেষ হচ্ছেনা সেতুটির কাজ।

চট্টগ্রামের পটিয়া শিকলবাহা এলাকায় মুরারী খালের ওপর কালারপোল সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালে। যা শেষ হওয়ার কথা ছিল গতবছরের ৩০ জুন। 

তবে এরপর দেড় বছর পরও শেষ হয়নি নির্মাণকাজ। ফলে দুর্ভোগে আছে পটিয়ার কোলাগাঁও, কুসুমপুরা, হাবিলাসদ্বীপ ,ধলঘাটসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের মানুষ। কেননা, এসব এলাকার মানুষের চলাচলের প্রধান সড়ক এটি। তাই বাধ্য হয়ে প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় চলাচল করছেন স্থানীয়রা। 

স্থানীয়দের দাবি, প্রায় সময়ই বন্ধ থাকে নির্মাণ কাজ। এজন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের গাফিলতিকে দায়ি করছেন তারা।  

প্রকল্পটির কাজ পেয়েছে রানা বির্ল্ডাস নামের একটি প্রতিষ্ঠান। তবে নির্মাণ কাজের দেখভাল করছে জাকির এন্টারপ্রাইজ নামে আরেকটি প্রতিষ্ঠান। তাদের দাবি, দুই বার মেয়াদ বাড়িয়ে এখন পর্যন্ত শেষ হয়েছে ৬০ ভাগ কাজ। যদিও আগামী বছরের ৩০ জুনের মধ্যে পুরো কাজ শেষ করার কথা বলছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।  

১৯৯৫ সালে নির্মিত কালার পোল সেতুটি পণ্যবাহী জাহাজের ধাক্কায় ভেঙে যায় ২০০৭ সালের ১৮ নভেম্বর। পরে এটি নির্মাণের জন্য ২৭ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয় সরকার।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর