channel 24

সর্বশেষ

  • রেকর্ড পরিমাণ আমন ধান উৎপাদনের আশা টাঙ্গাইল ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়

  • ৩০ শতাংশ শেয়ার ধারণে ব্যর্থ বেশিরভাগ কোম্পানি

  • ফেব্রুয়ারিতে করোনার ভ্যাকসিন পাওয়ার আশা: স্বাস্থ্য সচিব

  • রিমোট কন্ট্রোল প্রযুক্তির মাধ্যমে ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে হত্যা

  • চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • করোনা সংক্রমণ বাড়লেও মাস্ক পরায় অনীহা

  • চিকিৎসায় গাফিলতিতেই কি হলো মারাদোনার মৃত্যু?

  • পাতার বাঁশিওয়ালা মকলেচুর রহমান

  • অসময়ে টাঙন নদীর ভাঙন; ঝুঁকিতে পাঁচ শতাধিক পরিবার

  • রায়ে আমৃত্যু উল্লেখ না করলে যাবজ্জীবন ৩০ বছর

  • সিরাজগঞ্জের হাটিকুমরুলে নির্মিত হচ্ছে ইন্টারচেঞ্জ সড়ক

  • অবশেষে করোনামুক্ত বাংলাদেশ হেড কোচ জেমি ডে

  • ব্রহ্মপুত্র নদে নিজেদের অংশে আড়াআড়ি বাঁধ তৈরি করছে চীন

  • করোনায় গত ২৪ ঘন্টায় সর্বোচ্চ আক্রান্ত যুক্তরাষ্ট্রে

  • সুদের টাকা নিয়ে বিরোধের জেরে ভাতিজার হাতে চাচা খুন

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সহিংসতার নেপথ্যে কারা?

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সহিংসতার নেপথ্যে কারা?

উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প উত্তপ্ত করার নেপথ্যে কোন মহলের কি ইন্ধন আছে? খোদ রোহিঙ্গাদের কারও কারও অভিযোগ, দেশের বাইরে থেকে ইন্ধন পেয়ে কিছু গ্রুপ সহিংসতা ছড়াচ্ছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সবশেষ তিনদিনে সংঘর্ষে সাতজন নিহত হবার পর পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক এই রোহিঙ্গা যুবক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও বার্তায় বলছিলেন, কিভাবে বা কারা জন্ম দিচ্ছে এই সংঘাতের।

ওই যুবকের মতে, সংঘাতের পেছনে থাকতে পারে বিশেষ কোন মহলের ইন্ধন। যার কলকাটি নাড়া হয় বাইরে থেকে। তাই, সাবধান করছিলেন সাধারণ রোহিঙ্গাদের।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পে সক্রিয় মুন্না বাহিনী আর আনাস বাহিনী। তাদের আধিপত্যের লড়াইয়ের নেপথ্যে দৃশ্যত বলা হচ্ছে, ক্যাম্পের নিয়ন্ত্রণ নেয়া।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হানাহানি নতুন নয়। তবে সবশেষ সংঘাত ভাবিয়ে তুলেছে প্রশাসনকেও।

সংঘাতের জন্য ইন্ধনের অভিযোগ গেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছেও। তাই বিষয়টি খতিয়ে দেখার কথা বলছেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. আনোয়ার হোসেন।

পরিস্থিতি আরও নাজুক হবার আগেই রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিরাপত্তা নিয়ে এখনই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেবার তাগিদ স্থানীয়দের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর