channel 24

সর্বশেষ

  • করোনার উপসর্গ নিয়ে বিভিন্ন স্থানে ১১ জনের মৃত্যু

  • জাতীয় দলে সিনিয়রদের বিকল্প তৈরিতে সময় লাগবে: মোহাম্মদ মিঠুন

  • সাধারণ ছুটিতে নতুন রুপে সেজেছে রাঙ্গামাটি পার্ক

  • লকডাউনের সুফল নিয়ে সংশয় ওয়ারির বাসিন্দাদের

  • পাপুল কর্মকাণ্ড: কুয়েতের জনশক্তি কর্মকর্তা ও এক রাজনীতিক কারাগারে

  • আদাবরে ৪ মাসের শিশুকে ব্লেড দিয়ে গলা কেটে হত্যা

  • 'নগরবাসীকে ডেঙ্গু থেকে সুরক্ষা দিতে শুরু হচ্ছে চিরুনি অভিযান'

  • মানব সেবায় অনন্য নজির নেত্রকোণার আব্দুল হামিদের

  • রাজধানীতে চালের দামের পরিবর্তন নেই; মসলার বাজার স্থিতিশীল

  • মুগদা মেডিকেলে নমুনা পরীক্ষা ঘিরে আনসার-রোগী হাতাহাতি

  • সংকটকালে শিশুর সুরক্ষা ও বিকাশ

  • পরের মৌসুমে মেসির বার্সা ছাড়ার গুঞ্জন

  • ইংলিশ লিগে ম্যান সিটিতে বিধ্বস্ত লিভারপুল

  • যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে সর্বোচ্চ ৫৫ হাজার করোনায় আক্রান্ত

  • চীনের সঙ্গে বিরোধপূর্ণ লাদাখ সীমান্ত পরিদর্শন করলেন মোদী

নিজের করোনা রিপোর্টে স্বাক্ষর করলেন নিজেই!

নিজের করোনা রিপোর্টে স্বাক্ষর করলেন নিজেই!

এতদিন চট্টগ্রামে করোনার নমুনা পরীক্ষার পর রিপোর্টে তার স্বাক্ষরের পরই তা প্রকাশ হতো। এবার এমন এক রিপোর্টে তিনি স্বাক্ষর করলেন, যেখানে আক্রান্ত হিসেবে তার নিজেরই নাম রয়েছে। তিনি চট্টগ্রামের ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি হাসপাতালের ল্যাব প্রধান ডা. শাকিল আহমেদ।

যার নেতৃত্বে গত দেড়মাস ধরে চলছে করোনার নমুনা পরীক্ষা। এপর্যন্ত কয়েকহাজার নমুনা পরীক্ষা করেছেন তিনি।  দিনের বেশিরভাগ সময়ই কাটান ল্যাবে। কাজে এতটাই সিরিয়াস বন্ধের দিনে রিপোর্ট প্রস্তুত করার লোক না থাকায় নিজের ছেলেকেই ল্যাবে নিয়ে এসে তা তৈরি করেছেন। সম্প্রতি চট্টগ্রামে ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনার যে জিনোম সিকোয়েন্স করা হয়েছে, সেটাতেও জড়িত তিনি। মঙ্গলবার রাতে সেই তারই করোনা পজিটিভের বিষয়টি নিশ্চিত হয়।

এরপর তিনি নিজেই আবেগঘন একটি পোস্ট দেন ফেসবুকে। যেখানে তিনি লিখেছেন 'ঘড়ির কাঁটায় রাত বারোটা বেজে এইমাত্র ঢলে পড়লো। ক্লান্ত কিন্ত সাহসী মনোবল নিয়ে নিজেই নিজের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট সাইন করলাম। দপ্তরগুলোতে মেইল করার পর কম্পিউটার অফ করে রুমের বাতি নিভাতে গিয়ে একটু থমকে গেলাম। অফিস ছেড়ে যাচ্ছি। কবে আবার আসা হবে জানি না। অল্প সংখ্যক সহকর্মী ঘিরে ছিলো। আবার অফিসের চেয়ারে বসে পড়লাম একটা ছবি তুলতে বল্লাম। তারা তুলে দিলো। নিজেরাও সাহসের সাথে গ্রুপছবি তুলতে চাইলো। বন্ধ করে বেরিয়ে এসে বাহিরের দরজায় দাড়ালাম। সবাই ঘিরে ছিলো। আবার ছবি তুলতে চাইলো। না করিনি। অনেক পেয়েছি এখান থেকে। বিনিময়ে কিছু দিতে পেরেছি কি না জানি না। সকল সহকর্মীদের ভীষণ মিস করবো। আল্লাহ সবাইকে ভালো রাখুন।'

তবে তার শারিরীক অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানান চিকিৎসকরা। তিনি রয়েছেন আইসোলেশনে। অবশ্য ল্যাবের কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চলছে বলে জানান হাসপাতালের পরিচালক ডা. এমএ হাসান। ইতোমধ্যে ল্যাবের দায়িত্ব নিয়েছেন একজন চিকিৎসক।

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর