channel 24

সর্বশেষ

  • ভারতের মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর হাতে অর্ধশত তারকার তালিকা

  • পাবনা-৪ উপনির্বাচনে জয় পেল আ. লীগ প্রার্থী

  • ঢাকার ক্লাবগুলোর সাথে নির্বাচনী প্রচারণায় সমন্বয় পরিষদ

  • করোনা টিকার সুষম বণ্টন করতে হবে; জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী

  • কাল শুরু ১৩ তম ফ্রেঞ্চ ওপেন

  • অলিম্পিকে ব্যয় সংকোচন নীতিতে হাঁটছে টোকিও

  • শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক দাবায় চ্যাম্পিয়ন ইন্দোনেশিয়ার সুশান্ত

  • কোয়ারেন্টিন থেকে আপাতত মুক্তি ক্রিকেটারদের

  • গণফোরাম সভাপতি ড. কামালকে ছাড়াই বিদ্রোহীদের বৈঠক

  • এমসি কলেজে ছাত্রলীগ কর্মীদের ধর্ষণ বর্বরতায় গ্রেপ্তার নেই ২৪ ঘণ্টায়ও

  • শেখ হাসিনার সরকার দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • মাদক বিষয়ক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের এডমিন দীপিকা

  • খুলনায় নলকূপ বসানোর গর্ত থেকে বের হচ্ছে গ্যাস

  • পাবনা-৪ উপনির্বাচনে চলছে ভোট গণনা

  • বাড়ছে নদ-নদীর পানি; শেষ সম্বল নিয়ে নিরাপদে ছুটছে মানুষ

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বে করোনার ৭টি জিনোম সিকোয়েন্স

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বে করোনার ৭টি জিনোম সিকোয়েন্স

এবার করোনাভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স করলো চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বে সরকারি তিনটি প্রতিষ্ঠান। দুই সপ্তাহের চেষ্টায় সাতটি ভাইরাসের জিনোম বিন্যাস করেন বিজ্ঞানীরা। যা দেশে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। এর সাথে মিল পাওয়া গেছে সৌদি আরব, সিঙ্গাপুরসহ চারটি দেশে পাওয়া ভাইরাসের। তারা বলছেন, এর মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জেলায় ভাইরাসের গতি-প্রকৃতি, উৎপত্তিস্থল এবং ভবিষ্যতে টিকা তৈরির বিষয়ে গবেষণা সহজ হবে।

দেশে অচেনা করোনা ভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্সের প্রথম খবর দেয় ঢাকার চাইল্ড হেল্থ রিসার্চ ফাউন্ডেশন। এবার সেই কাজটি করলো চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়-সিভাসুর নেতৃত্বে সরকারি তিনটি প্রতিষ্ঠান।   

গেল দুই সপ্তাহ ধরে নেক্সট জেনারেশন সিকোয়েন্সিং বা এনজিএস পদ্ধতিতে এই তথ্য বিন্যাস করেন গবেষকরা। বিভিন্ন জেলা থেকে সংগ্রহ করা ১২টি নমুনার মধ্যে সাতটি  ভাইরাসের জিনোম বিন্যাস করা হয়। যাতে মিল পাওয়া গেছে চারটি দেশে পাওয়া ভাইরাসের সাথে।

একসাথে সাতটি ভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স দেশে এটাই সর্বোচ্চ। গবেষকরা বলছেন, এই জিনোম বিন্যাসের ফলে কোন জেলায় কোন ধরনের ভাইরাস বিস্তার লাভ করেছে, উৎপত্তিস্থল, আনবিক গঠনের পরিবর্তন এবং দেশে টীকা উৎপাদন বিষয়ে গবেষণা সহজ হবে।

অধিকতর তথ্য উদঘাটনের জন্য আরও ২০টি নমুনা ঢাকার বিজেআরআই ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। যা এক সপ্তাহের মধ্যে জমা দেয়া হবে আন্তর্জাতিক ইনফ্লুয়েঞ্জা ডেটাবেজে। এই কাজে যুক্ত ছিলেন বিআইটিআইডি হাসপাতাল ও বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউটের চার গবেষকও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর