channel 24

সর্বশেষ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি খুনে মাফিয়াদের বিচার চান স্বজনরা

  • বাসভাড়া বৃদ্ধি মরার উপর খাড়াঁর ঘা

  • সীমিত পরিসরে সেবার নামে বাসভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব

  • চট্টগ্রামে এবার চিকিৎসা পেলেন না স্বাস্থ্য পরিচালকের মা!

  • কক্সবাজারে নতুন করে ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত

  • ভার্চুয়াল শপথ নিলেন ১৮ বিচারপতি

  • করোনাকালে অসহায়দের পাশে 'ওল্ড ল্যাবরেটরি অ্যাসোসিয়েশন'

  • মেহেরপুরে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন তিন চিকিৎসক

  • রিয়াল বেতিস-সেভিয়া ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরছে লা লিগা

  • প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা ছাড়া কোনো রোগীকে ফেরত দেওয়া যাবে না

  • সোমবার শুরু হচ্ছে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচল

  • কাল শুরু হচ্ছে সীমিত আকারে ট্রেন চলাচল

  • চট্টগ্রামে ১০ দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুন

  • চলে গেলেন সাবেক তারকা ফুটবলার গোলাম রব্বানী হেলাল

  • করোনায় দেশে আরও ২৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৭৬৪

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বে করোনার ৭টি জিনোম সিকোয়েন্স

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বে করোনার ৭টি জিনোম সিকোয়েন্স

এবার করোনাভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স করলো চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বে সরকারি তিনটি প্রতিষ্ঠান। দুই সপ্তাহের চেষ্টায় সাতটি ভাইরাসের জিনোম বিন্যাস করেন বিজ্ঞানীরা। যা দেশে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। এর সাথে মিল পাওয়া গেছে সৌদি আরব, সিঙ্গাপুরসহ চারটি দেশে পাওয়া ভাইরাসের। তারা বলছেন, এর মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জেলায় ভাইরাসের গতি-প্রকৃতি, উৎপত্তিস্থল এবং ভবিষ্যতে টিকা তৈরির বিষয়ে গবেষণা সহজ হবে।

দেশে অচেনা করোনা ভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্সের প্রথম খবর দেয় ঢাকার চাইল্ড হেল্থ রিসার্চ ফাউন্ডেশন। এবার সেই কাজটি করলো চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়-সিভাসুর নেতৃত্বে সরকারি তিনটি প্রতিষ্ঠান।   

গেল দুই সপ্তাহ ধরে নেক্সট জেনারেশন সিকোয়েন্সিং বা এনজিএস পদ্ধতিতে এই তথ্য বিন্যাস করেন গবেষকরা। বিভিন্ন জেলা থেকে সংগ্রহ করা ১২টি নমুনার মধ্যে সাতটি  ভাইরাসের জিনোম বিন্যাস করা হয়। যাতে মিল পাওয়া গেছে চারটি দেশে পাওয়া ভাইরাসের সাথে।

একসাথে সাতটি ভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স দেশে এটাই সর্বোচ্চ। গবেষকরা বলছেন, এই জিনোম বিন্যাসের ফলে কোন জেলায় কোন ধরনের ভাইরাস বিস্তার লাভ করেছে, উৎপত্তিস্থল, আনবিক গঠনের পরিবর্তন এবং দেশে টীকা উৎপাদন বিষয়ে গবেষণা সহজ হবে।

অধিকতর তথ্য উদঘাটনের জন্য আরও ২০টি নমুনা ঢাকার বিজেআরআই ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। যা এক সপ্তাহের মধ্যে জমা দেয়া হবে আন্তর্জাতিক ইনফ্লুয়েঞ্জা ডেটাবেজে। এই কাজে যুক্ত ছিলেন বিআইটিআইডি হাসপাতাল ও বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউটের চার গবেষকও।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর