channel 24

সর্বশেষ

  • চুক্তির বাইরে থাকা ক্রিকেটারদের আর্থিক সহায়তার করবে বিসিবি

  • পোশাক খাতে ২৪ ঘন্টায় ১৩ কোটি মার্কিন ডলারের ক্রয়াদেশ বাতিল

  • আজও নতুন করে কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়নি; সুস্থ হয়েছেন ১৫ জন

  • শিবচরে লকডাউনের ১০ দিনে নতুন সংক্রমিত না হওয়ায় জনমনে স্বস্তি

  • ঠাকুরগাঁওয়ে একই পরিবারের ৫ জন আইসোলেশনে

  • বরিশাল মেডিকেলে করোনা ইউনিটে থাকা একজনের মৃত্যু

  • দেশে করোনা মোকাবিলায় নেই পর্যাপ্ত অবকাঠামো সুবিধা: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

  • ইতালিতে প্রাণহানি ছাড়ালো ১০ হাজার, সংক্রমণের শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র

  • করোনা প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা মানছেন না অনেকেই

  • রাস্তায় পড়ে থাকা ফিনল্যান্ডের নাগরিককে হাসপাতালে নিলো পুলিশ

  • করোনায় শুধু মানুষই নয় বিপাকে পশু-পাখিও

  • বিশ্বজুড়ে ৩০ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণহানি

  • পর্যটকদের স্বর্গরাজ্যগুলো আজ জনমানবহীন

  • ক্রমেই অসহায় হয়ে উঠছে বিশ্ব

  • স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা সরঞ্জাম দিলো স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে ভাসছে তৈলাক্ত বর্জ্য, সাথে মিলছে ডলফিনসহ বিভিন্ন সামুদ্রিক প্রাণি

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে ভাসছে তৈলাক্ত বর্জ্য, সাথে মিলছে ডলফিনসহ বিভিন্ন সামুদ্রিক প্রাণি

কক্সবাজারের বিস্তীর্ণ সমুদ্র সৈকতে গত কয়েকদিন ধরে ভেসে আসছে একধরনের তৈলাক্ত বর্জ্য। সাথে মৃত কাছিম, ডলফিনসহ বিভিন্ন সামুদ্রিক প্রাণি। জেলেদের মতে, এই তৈলাক্ত বর্জ্যের কারণেই সাগরে মারা যাচ্ছে কাছিম-ডলফিন। যা কোন জাহাজের জ্বালানি বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের। তবে এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার কথা বলছে প্রশাসন।

কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের সোনারপাড়া সৈকত। যেখানে বালির ওপর কালো তৈলাক্ত বর্জ্যের আস্তরণ। গত তিনদিন ধরে দেখা মিলছে এই দৃশ্য। যেখানে তেলের বর্জ্য ছাড়াও ভেসে আসে মৃত কাছিম, ডলফিন ও অন্যান্য সামুদ্রিক প্রাণি। জেলেরা জানিয়েছে, শুধু সৈকত নয় সাগরেও ভাসছে মৃত ডলফিন।

কক্সবাজারের বলাকা হ্যাচারির মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মুদাব্বির রহমান খন্দকার বলেন, এসব বর্জ্য জাহাজের জ্বালানি থেকে সৃষ্ট। যা সমুদ্র ও প্রাণির জন্য খুবই ক্ষতিকর।

পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক শেখ নাজমুল হুদা বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে অবহিত আছেন প্রশাসন। এর প্রভাবে মারাত্বক ক্ষতির সৃষ্টি হতে পারে। তাই এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করার কথা জানান পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক।

কক্সবাজারের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মো. আশরাফুল আফসার বলেন, এমন ঘটনা কিভাবে ঘটেছে তার তদন্ত করা হবে। পাশাপাশি কিভাবে সমস্যা মোকাবেলা করা হবে সি ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

টেকনাফের সোনারপাড় পয়েন্ট থেকে খুড়ের মুখ পর্যন্ত প্রায় ৬০ কিলোমিটার সৈকতে বিচ্ছিন্নভাবে প্রাণি দেখা যাচ্ছে এই তৈলাক্ত বর্জ্য ও মৃত সামুদ্রিক।  

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর