channel 24

সর্বশেষ

  • চালু হচ্ছে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট

  • মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও গর্ভপাতের অভিযোগ

  • ফেভারিট শ্রীলঙ্কার সামনে স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশও

  • কচুরিপানায় ভাগ্য বদলেছে দুই শতাধিক নারীর

  • মামুনুলের নজর ছিলো ধর্মকে পুঁজি করে ক্ষমতা দখলে: পুলিশ

  • ফোর্বসের 'থার্টি আন্ডার থার্টি এশিয়া' তালিকায় ৯ বাংলাদেশি

  • তিনে ওঠার হাতছানি নিয়ে রাতে মাঠে নামছে চেলসি

  • সুপার লিগের বিপক্ষে জোট বেঁধেছে পুরো বিশ্ব

  • করোনায় মারা গেলেন কর কমিশনার আলী আজগর

  • চট্টগ্রামে সাতটি এলাকাকে উচ্চ সংক্রমিত ঘোষণা করলেও নেই তৎপরতা

  • চট্টগ্রামে ভয়ংকর হয়ে উঠেছে করোনা, বাড়ছে প্রাণহানি

  • করোনার ভ্যাকসিনে মিলছে সুফল, সিভাসুর গবেষণা

  • ধান সংকটে স্থবির কুষ্টিয়ার বৃহত্তম চালের মোকাম

  • কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যান-লরি সংঘর্ষে ৩ জনের প্রাণহানি

  • লঙ্কা টেস্টে টাইগারদের ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা দেখছেন ফাহিম

অভ্যন্তরীণ বিরোধে চট্টগ্রামে মেয়র পদে টিকিট মেলেনি নাছিরের

অভ্যন্তরীণ বিরোধে চট্টগ্রামে মেয়র পদে টিকিট মেলেনি নাছিরের

মরিয়া চেষ্টার পরও চট্টগ্রাম সিটিতে বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন কেন নিজ দলের মনোনয়ন পাননি-তা নিয়েই এখন সব আলোচনা। নানা মহল এজন্য দলের একটি অংশের তীব্র বিরোধীতা আর অভ্যন্তরীণ সমস্যাকে বড় করে দেখছেন। আরও কয়েকজন শীর্ষ নেতা মনোনয়ন চাইলেও অপেক্ষাকৃত তৃতীয় অবস্থান থেকে একজনকে প্রার্থী হিসেবে বেছে নেয় দলের হাউকমান্ড। এর ফলে কপাল পুড়েছে নাছিরের। দলের একজন প্রেসিডিয়াম সদস্যও বলেছেন, মনোনয়নের ক্ষেত্রে প্রার্থীর ভাবমূর্তিকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে এবার আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেয়েছেন নতুন মুখ। কিন্তু সেটা ছাপিয়ে আলোচনায় বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের বাদ পড়া। তিনি মরিয়া চেষ্টা চালালেও পাননি দলের টিকিট।

কেন মনোনয়ন পাননি আ জ ম নাছির, সেটা নিয়ে নানা ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ চলছে নানাস্তরে। বলা হচ্ছে, নিজের তরফে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালালেও চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের একটি বড় অংশই এবার তার বিরোধীতায় নামে। কারণ নানা বিষয়ে সাবেক মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারীদের সাথে তার দূরত্ব বেড়েছে। এরসাথে যোগ হয়েছে, আরও কিছু ইস্যু।

জানা গেছে, মাঠপর্যায় থেকে নাছির সম্পর্কে অনেক তথ্য গেছে দলের শীর্ষনেতৃত্বের কাছে। এসব দেখে তারা বিরাগভাজন হন তার ওপর। এরবাইরে যেকজন শীর্ষ নেতা মনোনয়ন চান তাদের দিলে গ্রুপিং আরও বাড়তে পারে আশঙ্কায় শেষপর্যন্ত বেছে নেয়া হয় অপেক্ষাকৃত স্বচ্ছ ভাবমূর্তির রেজাউল করিমকে।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, নানান বিবেচনায় নির্বাচনকে সামনে রেখে তাকে পরিবর্তন করা হয়েছে। রাজনীতিতে অনেক কিছুই আমাদের বিবেচনা করতে হয়। সকল বিবেচনায় কমিটি মনে করেছে যাকে আমরা দিয়েছি রেজাউল করিম তিনি একটা ভাল প্রার্থী এবং চট্টগ্রামের মানুষ এটি গ্রহন করবে।

অবশ্য এসব কিছু মানতে নারাজ আ জ ম নাছির। নিজেকে দাবি করেছেন শতভাগ সফল হিসেবে। তবে বাদ পড়া নিয়ে কোন মন্তব্য করতে চাননি তিনি। বলেন, এটাতো আর আমি বলতে পারবো না, এখানে জননেত্রী নির্ধারক। নিশ্চয় এখানে তিনি যেটা ভাল মনে করছেন সেটা করছেন।

২০১৫ সালে মেয়র নির্বাচিত হন আ জ ম নাছির। এরপর দেশের বিভিন্ন সিটি করপোরেশনে সরকারি দলের মেয়ররা মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা পেলেও একমাত্র ব্যতিক্রম তিনি। পাঁচবছর মর্যাদা ছাড়াই কাটিয়ে দেন নগর আওয়ামীলীগের এই নেতা।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর