channel 24

সর্বশেষ

  • নারীকে দাফনের পর জানা গেলো করোনা আক্রান্ত; ১০০ পরিবার লকডাউনে

  • মক্কা-মদিনায় কারফিউ জারি

  • করোনাভাইরাসে বিশ্বে প্রাণহানি ৫০ হাজার ২৩০

  • সুনামগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা ওমানফেরত একজনের মৃত্যু

  • রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসকের ব্যতিক্রম ত্রাণ বিতরণ

  • করোনা শনাক্তে বিনামূল্যে নমুনা পরীক্ষা শুরু

  • দরকার ছাড়া বেরুলেই ফেরত পাঠানো হচ্ছে ঘরে

  • সপ্তাহ না পেরুতেই ধৈর্যহারা নগরবাসী; দরকার ছাড়াও বেরুচ্ছেন বাইরে

  • পিপিই পরে সাঈদ খোকনের ত্রাণ বিতরণ

  • মুখে মাস্ক পরে ফ্লিমি স্টাইলে ফার্মেসিতে ডাকাতি

  • স্পেনে একদিনে প্রাণহানি ৯৫০, মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়েছে

  • করোনা গিলে খাচ্ছে গোটা বিশ্ব; প্রাণহানি ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে

  • গ্রামীণ জনপদে দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল কতটা সম্ভব?

  • চট্টগ্রামে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে কমেছে রোগী, বন্ধ প্রাইভেট চেম্বারও

  • গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪১ জনের নমুনা পরীক্ষা: আইইডিসিআর

কাপ্তাই লেকের বেশিরভাগ নৌযানের ফিটনেস ও নিরাপত্তা সরঞ্জাম নেই

কাপ্তাই লেকের বেশিরভাগ নৌযানের ফিটনেস ও নিরাপত্তা সরঞ্জাম নেই

পর্যটন শহর রাঙামাটিতে অন্যতম আকর্ষণ কাপ্তাই লেকে নৌভ্রমণ। তবে এই নৌভ্রমণ খুব একটা নিরাপদ নয়। কেননা, হ্রদে যে ৫ শতাধিক নৌযানে চড়ে পর্যটকরা হ্রদটি ঘুরে বেড়ায় তাতে থাকে না নিরাপত্তা সরঞ্জাম। এগুলো চলাচলে নেই কোন নিয়ন্ত্রণ। নেই ফিটনেসও। বহন করা হচ্ছে অতিরিক্ত যাত্রী। তবে গেল শুক্রবার বোটডুবে ৫ জনের মৃত্যুর পর এখন এসব নৌযান চলাচল নিয়ন্ত্রণে কঠোর হওয়ার কথা বলছে প্রশাসন।

বোট উল্টে গেছে। অথৈ পানিতে জীবন বাঁচাতে মরিয়া মানুষ। গত শুক্রবার রাঙ্গামাটির কাপ্তাই লেকে এমন চিত্র দেখা যায়। বোটডুবে সেখানে ১৫ জনের মতো প্রাণে গেলেও জীবনপ্রদীপ নিভে গেছে পাঁচজনের।

মূলত দুটি বোট পাল্লা দিতে গিয়েই ওই দুর্ঘটনা ঘটে। অভিযোগ রয়েছে, লেকে চলাচলরত বেশিরভাগ নৌযানে লাইফ বোটসহ নিরাপত্তা সরঞ্জাম নেই। আবার যেগুলোতে আছে সেগুলোও মানসম্পন্ন নয় বলে পড়তে চাননা যাত্রীরা।

লেকে পর্যটক বহনে নিয়োজিত আছে পাঁচশোর বেশি বোট। তবে এসব বোট চলাচলে কোন নীতিমালা বা নিয়ন্ত্রণ নেই। যার যেভাবে ইচ্ছে বোট নামাচ্ছে পানিতে। ফলে নৌযানগুলোর ফিটনেস নিয়েও প্রশ্ন আছে। যদিও শুক্রবারের দুর্ঘটনার পর এখন কঠোর হওয়ার কথা বলছে প্রশাসন। এতে নিরাপত্তা সরঞ্জাম বাধ্যতামূলক করার পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনে।

রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশীদ বলেন, সব বোটের ফিটনেস থাকতে হবে এবং প্রত্যক যাত্রীর জন্য একটি করে লাইফ জ্যাকেট বাধ্যতামূলক দিতে হবে।

রাঙামাটি জেলার বিআইডব্লিউটিএ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আমজাদ হোসেন জানান, কোন ভাল বোট নেই, সবগুলো ছোট ছোট বোট। নিজেরাই বানিয়েছে এইগুলো। জীবন সরজ্ঞাম নেই এমন কোন বোট ছাড়তে দেওয়া হচ্ছে না। টাইম টেবিল দেখতেছি, ফিটনেস দেখতেছি।

পর্যটন বোট ঘাটের ইজারাদার রহমত আলী বলেন, যে ঘটনা ঘটে গেছে তার পর থেকেই আমরা ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছি।

বছরে যে প্রায় ৫ লাখ পর্যটকের আনাগোনা হয় রাঙামাটিতে তার বড় অংশের গন্তব্যই কাপ্তাই লেকে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর