channel 24

সর্বশেষ

  • মাধ্যমিক পর্যন্ত পাঠ্যক্রমে কোন বিভাজনের দরকার নেই: প্রধানমন্ত্রী

  • জয়পুরহাটে মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাইনবোর্ড টাঙিয়ে নিয়োগ বাণিজ্য

  • স্বাস্থ্য প্রতিবেদন সন্তোষজনক না হলে স্বশরীরে খালেদাকে হাজির চান আইনজীবী

  • নাটোর ও নেত্রকোণায় নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপ

  • মসজিদের মিনারে মাইক ভেঙে হনুমানের ছবি সম্বলিত পতাকা উত্তোলন

  • গুড়িয়ে দেয়ার কিছুদিনেই ফের সচল শরীয়তপুরের ৮টি অবৈধ ইটভাটা

  • লতিফ সিদ্দিকীর দুর্নীতির মামলা হাইকোর্টে স্থগিত

  • রাসায়নিক বর্জ্যে দূষিত হচ্ছে হবিগঞ্জের করাঙ্গি নদী

  • ইভিএমে ফল গড়াপেটার অভিযোগ: সত্যতা মিললেও নির্বিকার নির্বাচন কমিশন

  • বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ৩ গোল খেয়ে বিদায়ের দ্বারপ্রান্তে চেলসি

  • চসিক নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র সংক্রান্ত কার্যক্রম বন্ধ

  • ধর্ম অবমাননায় 'নানীর বাণী ও 'দিয়া আরেফিন' বাজার থেকে প্রত্যাহারের আদেশ

  • টাকাসহ পিকে হালদারকে ‘কানাডা’ থেকে ফেরত আনা সম্ভব: বাংলাদেশ ব্যাংকের আইনজীবী

  • নাপোলির সাথে ১-১ গোলে ড্র বার্সেলোনার

  • আজও উত্তপ্ত দিল্লি, দুইদিনের সহিংসতায় নিহত ১৮

চসিক নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের চাপ

চসিক নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের চাপ

আসছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কে হচ্ছেন ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী? এ নিয়ে কৌতুহলের শেষ নেই নেতাকর্মীদের। এরইমধ্যে ১৫ জনের বেশি নেতা দলীয় মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন। তবে আলোচনার কেন্দ্রে রয়েছে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের চাপ। ৫৪টি পদের জন্য গতকাল পর্যন্ত ফরম নিয়েছেন প্রায় চারশ নেতাকর্মী। যা গত কয়েকটি নির্বাচনের মধ্যে রেকর্ড। এ নিয়ে দলের নেতারাই চিন্তিত।

চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের ভিড় এখন ঢাকায়। যার বড় অংশই প্রার্থী হতে চান কাউন্সিল পদে।

নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে সাধারণ এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হতে গত কয়েকদিনে দলীয় ফরম নিয়েছেন চার শতাধিক নেতাকর্মী। তাতে বর্তমান এবং সাবেক কাউন্সিলররা যেমন আছেন, আছেন অনেক তরুণ নেতাও।

চট্টগ্রাম নগরীর ২৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী সিরাজুল ইসলাম বলেন, কাউন্সিলর একটি ছাতার মতো। এখানে সব ধরনের লোকই আসবেন।

২৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী জাফরুল হায়দার সবুজ বলেন, সন্ত্রাস দুর্নীতির বিরুদ্ধে কাজ করার লক্ষ্যে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া।
     
মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে এমন অনেকে আছেন যাদের নিয়ে দলে হাস্যরস যেমন আছে তেমনি আছে নানা আলোচনাও। তবে এই সম্ভাব্য প্রার্থীর ভার নিয়ে এক প্রকার চিন্তিত নগর আওয়ামী লীগ।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল বলেন, যারা মনোনয়ন পাবেন না তাদের উচিৎ হবে দল মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করা।

কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের এই চাপের মধ্যে কৌতুহল থেমে নেই মেয়র পদে কে মনোনয়ন পাচ্ছেন তা নিয়েও। এরই মধ্যে অনেকে নিয়েছেন দলীয় ফরম। যার মধ্যে অন্যতম বর্তমান মেয়র। এছাড়া কয়েকজন নেতাও নিয়েছেন ফরম।   

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন বলেন, দলের নির্দেশে নির্বাচন করার সুযোগ পেলে বিজয় নিশ্চিত হবে।

তবে ক্ষমতাসীন দলের মতো এত তোড়জোর না থাকলেও নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপিও। মেয়র পদে প্রার্থীতা নিয়ে দলটিতেও আছে নানা আলোচনা।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা.শাহাদাত হোসেন বলেন, নির্বাচনে একাধিক প্রার্থী থাকতে পারে। সেক্ষেত্রে দল যাকে যোগ্য মনে করবে তাকেই মনোনয়ন দিবে।

১৫ ফেব্রুয়ারি আওয়ামীলীগের প্রার্থীতা চূড়ান্ত হবার কথা থাকলেও জানা যায়নি বিএনপির অবস্থান।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর