channel 24

সর্বশেষ

  • সিরাজগঞ্জে যুবলীগ নেতা ডিজে শাকিলের প্রতারণায় নিঃস্ব অনেকে

  • নতুন মোড় নিচ্ছে সিনহা হত্যা মামলা

  • প্রথমবারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিতে লাইপজিগ

  • সিনহা হত্যা: অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য ও সাক্ষিদের র‍্যাবের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু

  • দেশে ন্যায়পরায়ণতা প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

  • ১৫ আগস্টের নৃশংস হত্যাকাণ্ডে ছিল নানা ষড়যন্ত্র

  • কর্তৃপক্ষের মারধরে যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ৩ কিশোর নিহত

  • মহাখালী থেকে বশেমুরবিপ্রবি'র চুরি হওয়া ৩৪টি কম্পিউটার উদ্ধার

  • বদলে যাচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা ও সিটি করপোরেশনের নাম

  • রাজধানীতে লাইসেন্সবিহীন গ্লোবাল গেইনে র‍্যাবের অভিযান, আটক ৮

  • সিলেটে সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৩ জনসহ ৬ জন নিহত

  • ফেসবুক এজেন্ট এইচটিটিপুলের বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে মামলা

  • যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে দু'গ্রুপের সংঘর্ষে ৩ কিশোর নিহত

  • দুটি পেশাদার বাহিনীকে মুখোমুখি দাঁড় করানোর অপচেষ্টা অপ্রত্যাশিত: পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন

  • শ্রীলঙ্কা সফর ঘিরে সেরা প্রস্তুতি নিতে চান সৌম্য

অনিয়মের কারণে অপচয় হচ্ছে চট্টগ্রাম ওয়াসার ২৫ শতাংশ পানি

অনিয়মের কারণে অপচয় হচ্ছে চট্টগ্রাম ওয়াসার ২৫ শতাংশ পানি

উৎপাদিত পানির চারভাগের একভাগ অপচয় হচ্ছে চট্টগ্রাম ওয়াসায়। মেকানিক্যাল ত্রুটি, লাইন লস এবং নানা অনিয়ম-দুর্নীতির কারণে বছরে ক্ষতি দাঁড়ায় ৭০ কোটি টাকার বেশি। যা বন্ধ করা গেলে প্রায় সাত লাখ মানুষের সুপেয় পানির চাহিদা পূরণ করা যেতো। যদিও সিস্টেম লস থেকে উত্তরণে ডিস্ট্রিক্ট মিটারিং এরিয়া পদ্ধতি চালুর কথা বলছে ওয়াসা।

৬০ লাখ মানুষের নগরী চট্টগ্রামে এখন প্রতিদিন গড়ে ৩৯ কোটি লিটার পানি সরবরাহ করে ওয়াসা। সংস্থাটির দাবি, এতে করে চাহিদা মিটছে ৭০ শতাংশ নগরবাসীর।  

কিন্তু তথ্য বলছে, ওয়াসার উৎপাদিত পানির ২৫ থেকে ২৬ শতাংশ পানিই অপচয় হচ্ছে। যার পরিমাণ দাড়ায় দৈনিক দশ কোটি ১৪ লাখ লিটার। উৎপাদন খরচ প্রতি হাজার লিটার ১৯ টাকা হিসাবে, এই সিস্টেম লসে বছরে ক্ষতি প্রায় ৭০ কোটি ৩২ লাখ টাকা। অপচয় না হলে প্রতিজনের দৈনিক চাহিদা ১৫০ লিটার ধরে যার মাধ্যমে চাহিদা মিটতো আরো অন্তত সাড়ে পৌনে ৭ লাখ মানুষের।  

ক্যাবের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভাপতি এস এম নাজের হোসাইন বলেন, মেকানিক্যাল ত্রুটি, মিটার রিডারের কারসাজি, বিলিং ব্যবস্থার ত্রুটিসহ বিভিন্ন কারণে পানির অপচয় হচ্ছে।

অভিযোগ আছে, অনেক জায়গায় সরবরাহ লাইন সময়মতো মেরামত হয়না। কোথাও অবৈধ সংযোগের মাধ্যমে যে পানি দেয়া হচ্ছে তাও যোগ হচ্ছে সিস্টেম লসে। সবমিলে লাভ তুলে নিচ্ছে ওয়াসার একশ্রেণির কর্মকর্তা-কর্মচারি।

চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী একেএম ফজলুল্লাহ বলেন, অব্যাহত এই অপচয়ের লাগাম টেনে ধরতে এবার নজরদারির অংশ হিসেবে পুরো নগরীকে ৫৯টি জোনে ভাগ করে প্রতিটিতে আলাদা মাস্টার মিটার স্থাপন করা হবে।

২০২১ সালের মধ্যেই এই পদ্ধতি বাস্তবায়নের মাধ্যমে সিস্টেম লস এক অংকের ঘরে নামিয়ে আনার কথা বলছে ওয়াসা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর