channel 24

সর্বশেষ

  • করোনা আক্রান্ত দম্পতির স্থান হয়েছে পরিত্যক্ত মুরগীর খামারে

  • করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দেশে অর্ধলাখ ছাড়িয়েছে

  • চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত ৩ হাজার ছাড়ালো

  • গণপরিবহন বেড়েছে চট্টগ্রামের রাস্তায়

  • সিলেটে বাস শ্রমিকদের দুপক্ষের সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত কয়েকজন

  • তামাক খাতে দুই স্তরের কর কাঠোমো হলে রাজস্ব বাড়বে দ্বিগুণের বেশি

  • চাঁপাইনবাবগঞ্জে আম বেচা-কেনার উদ্বোধন

  • আসন্ন বাজেট ঘিরে সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলোর প্রস্তবনা

  • নোয়াখালীতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

  • একাডেমি কোচদের পাশে মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা

  • কুড়িগ্রামে বাসের ধাক্কায় এক পথচারি নিহত

  • মানবপাচারকারী চক্রের অন্যতম হোতা হাজী কামাল কারাগারে

  • ভাড়া বেশি নেয়ায় শ্যামলী পরিবহনকে ১০ হাজার টাকার অর্থদণ্ড

  • ওয়াদা পূরণের লক্ষ্যে কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করছি: তাপস

  • ইতালিয়ান লিগের সূচি চূড়ান্ত

পেঁয়াজের ঝাঁজের মধ্যেই ঊর্ধ্বমুখী ভোজ্যতেলের বাজার

পেঁয়াজের ঝাঁজের মধ্যেই ঊর্ধ্বমুখী ভোজ্যতেলের বাজার

পেঁয়াজের ঝাঁজের মধ্যেই হঠাৎ গরম ভোজ্যতেলের বাজার। চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে খুচরায় লিটারপ্রতি সয়াবিন চার থেকে পাঁচ টাকা আর পাম অয়েলের দাম বেড়েছে আট টাকা পর্যন্ত। বিশ্ববাজারে বুকিং রেট বেড়ে যাওয়ার অজুহাতে দাম বাড়িয়েছেন ব্যবসায়ীরা। অথচ যে বুকিং রেটের অজুহাত দেয়া হচ্ছে সেই বুকিংয়ের তেলই আসেনি বাজারে।

বেশবিছুদিন ধরে স্থিতিশীল থাকার পর ঊর্ধ্বমুখী ভোজ্যতেলের বাজার। তাতে, খুচরায় লিটারপ্রতি সয়াবিন চার টাকা আর পাম অয়েল বিক্রি হচ্ছে আট টাকা পর্যন্ত বেশী দামে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশে ভোজ্যতেলের পুরোটাই আমদানী নির্ভর। মিল মালিকরা প্রক্রিয়াজাতের পর যা বিক্রি করেন ডিলারদের কাছে। যারা সেল অর্ডার বা এস.ও এর মাধ্যমে বিক্রি করেন পাইকারী ও খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে।

গত বেশকিছুদিন ধরে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের বুকিং রেট বেড়ে চলছে। তাতে ১৫ দিনে টনপ্রতি সয়াবিন ও পাম তেলের বুকিং বেড়েছে দেড়শো ডলারেরও বেশী। এ কারণে মিল মালিকরা বাড়িয়ে দিয়েছেন দাম। যদিও বুকিং দেয়া কোন তেলই এখনও বাজারে আসেনি। তারপরও দাম বাড়িয়েছেন তারা।  

এদিকে, ভোজ্যতেলের পাইকারী ব্যবসায়ী আলমগীর পারভেজ বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে কিছুদিন ধরে বুকিং রেট বাড়লেও মঙ্গলবার ছিল কমতির দিকে। এই ধারা অব্যাহত থাকলে আবার কমে আসবে দাম।

দেশে সয়াবিন, পাম ও পাম সুপার এই তিন ধরণের ভোজ্যতেল বাজারজাত  হয়। সবমিলে বছরে চাহিদা ২৮ থেকে ৩০ লাখ মেট্রিক টন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

চট্টগ্রাম 24 খবর