channel 24

সর্বশেষ

  • ফিফটি দিয়ে বিশ্বকাপ অভিষেক রাঙালেন নাঈম

  • ফেসবুকে ধর্ম অবমাননা: আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি পরিতোষের

  • বুকে ব্যথা হৃদরোগের লক্ষণ নয় তো? করণীয় কী?

  • সম্প্রীতির মিছিলে প্রতিরোধের ডাক

  • ভারী বৃষ্টি ও বন্যায় ৩৪ জনের মৃত্যু

  • শাজাহান খানকে নৌকার বিরোধিতা না করার হুঁশিয়ারি জেলা আ.লীগ সভাপতির

  • আবারও জুটি বাঁধছেন যশ-নুসরাত

  • পাওয়ার প্লেতে বিবর্ণ বাংলাদেশ

  • মৌলভীবাজারে বিশেষ সংহতি সভা অনুষ্ঠিত

  • ভারত-পাকিস্তান সিরিজ আয়োজনে সৌরভ-রমিজ আলোচনা

  • লিটনের পর ফিরলেন মেহেদি

  • বাংলাদেশ-ভারত নৌ সচিব পর্যায়ের বৈঠক বুধবার

  • জীবন পেয়ে কাজে লাগাতে ব্যর্থ লিটন

  • দেড় বছর পর খুলল চবি, প্রাণ ফিরেছে ক্যাম্পাসে

  • মৌলভীবাজারে ক্ষতিগ্রস্ত পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার

দাদন ব্যবসায়ীদের দৌরাত্মে নিঃস্ব জয়পুহাটবাসী

দাদন ব্যবসায়ীদের দৌরাত্মে নিঃস্ব জয়পুহাটবাসী

জয়পুরহাটে দাদন ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম বেড়েই চলছে। বিপদে পড়ে তাদের কাছ থেকে ঋণ নিয়ে মহাবিপদে পড়েন স্থানীয়রা। কারণ বছর ঘুরতেই ঋণের অংক বেড়ে যায় কয়েক গুণ। পরে বাধ্য হয়ে পৈত্রিক জমি বিক্রি করতে হয়। এতে নিঃস্ব হয়ে গেছেন অনেকে। 

আরও পড়ুন: জনতা ব্যাংকে ১৩ হাজার কোটি টাকার ঋণ খেলাপি

জয়পুরহাট সদরের মাদারগঞ্জ বামনপাড়ার বাসিন্দা রতন ও লিপিকা দম্পতি। প্রায় ৫ বছর আগে প্রতিবেশী কল্পনা রানীর কাছ থেকে চড়া সুদে ঋণ নেন এক লাখ টাকা।  কয়েক বছরের ব্যবধানে সুদের টাকা পরিশোধ করতে বিক্রি করেছেন পৈত্রিক ৮ বিঘা জমি। তাতেও শোধ হয়নি পুরো টাকা। বর্তমানে পাওনা রয়েছে প্রায় ৫ লাখ টাকা। যা মরার উপর খাড়ার ঘা হয়েছে রতনের পরিবারে।

শুধু রতন দম্পতি নয়, দীর্ঘদিন দাদন ব্যবসায়ীদের চাপে অসহায় হয়ে পড়েছেন অনেক পরিবার। তাই বাধ্য হয়েই অভিযোগ করেন পুলিশ সুপারের কাছে। 

বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান পুলিশ সুপার।

দাদন ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম কমিয়ে আনতে শুধু আশ্বাস নয়, দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার দাবী স্থানীয়দের।

এএ/এফএইচ

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর