channel 24

সর্বশেষ

  • সাভারে মাদ্রাসায় শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

  • সাকিব-মেহেদীর ঘূর্ণিতে বিপর্যস্ত ক্যারিবীয়রা

  • গৃহকর্মী রেখা ও তার স্বামীর ১০ দিনের রিমান্ডে চেয়েছে পুলিশ

  • সব ডাক্তার নয়, করোনা চিকিৎসায় জড়িতদের আগে টিকা পাওয়া উচিত: জাফরুল্লাহ

  • নোটিশ নয়, যেকোনো সময় দখলদারদের উচ্ছেদের হুঁশিয়ারি মেয়রের

  • নোয়াখালীতে নোভাস নেটওয়ার্কের যাত্রা শুরু

  • সিরাজগঞ্জে জয়ী কাউন্সিলরকে হত্যার মূল আসামি গ্রেপ্তার

  • কক্সবাজার সৈকতে ভাঙন ঠেকাতে স্থায়ী বাঁধ নির্মাণের উদ্যোগ

  • ওবায়দুল কাদেরকে রাজাকারের বংশধর বললেন এমপি একরাম

  • করোনা মোকাবিলায় ১০টি নির্বাহী আদেশে বাইডেনের সই

  • ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

  • পৌরকর পরিশোধ করেও কাঙ্ক্ষিত সেবা পাচ্ছে না সরিষাবাড়ি পৌরবাসী

  • ভারতের কর্নাটকে পাথর খনিতে বিস্ফোরণ, নিহত ৮

  • কাশিমপুর কারাগারে কয়েদির নারীসঙ্গ; কারা অধিদপ্তরে তোলপাড়

  • পৌর নির্বাচনে কুষ্টিয়ায় একটি কেন্দ্রে শতভাগ ভোট নিয়ে তোলপাড়

বোয়িংয়ের ব্যবসা কমার শঙ্কা

বোয়িংয়ের ব্যবসা কমার শঙ্কা

তিন মাসের ব্যবধানে দুইটি 737 ম্যাক্স বিমান বিধ্বস্তের রেশ এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি বোয়িং। এরই মাঝে তাদের তৈরি আরেকটি বিমান বিধ্বস্তের খবর দিলো ইন্দোনেশিয়া। স্থানীয় সময় শনিবার, বিমান নিখোঁজ বার্তার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মার্কিন পুঁজিবাজারে কমে বোয়িংয়ের শেয়ারদর। দেখা দিয়েছে, বিশ্বব্যাপী তাদের বাজার ছোট হওয়ার শঙ্কাও।

সঙ্কট যেন পিছু ছাড়ছে না বোয়িংয়ের। 737 ম্যাক্স নিয়ে প্রায় দুই বছর ধরে চলা বিতর্ক যখন অবসানের পথে, তখনই দুর্ঘটনায় পড়লো আরেকটি বিমান। যদিও এবারেরটা ২০ বছরের পুরোনো।

যাত্রী, ক্রুসহ ৬২ আরোহী নিয়ে ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা থেকে উড্ডয়নের কয়েক মিনিটের মাথায় কন্ট্রোল রুমের সাথে 737-500 বিমানের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। এর প্রায় ১৮ ঘণ্টা পর ওই বিমানের সম্ভাব্য অবস্থান শনাক্ত করা হয়। ফ্লাইট রেকর্ডার থেকে পাওয়া সংকেত এবং স্থানীয় জেলেদের তথ্যের ভিত্তিতে, বিমানবন্দরের ২৪ কিলোমিটার উত্তরে লাকি দ্বীপের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় বিমানটির ধ্বংসাবশেষ।

এখনো জানা যায়নি দুর্ঘটনার কারণে। কিন্তু নতুন করে শঙ্কা দেখা দিয়েছে, প্রতিষ্ঠানটির ভবিষ্যৎ বাণিজ্য নিয়ে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মার্কিন পুঁজিবাজারে প্রায় দেড় শতাংশ কমেছে বোয়িংয়ের শেয়ারদর।

এই ঘটনার পর নতুন করে পরীক্ষা-নিরীক্ষার আওতায় আসতে পারে, বিভিন্ন দেশে থাকা বোয়িংয়ের সব বিমান।

কয়েক বছরের মধ্যে বোয়িংয়ের একাধিক বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা ঘটেছে। ভবিষ্যতে বোয়িংয়ের বিমানে যাত্রা থেকে বিরত থাকতে স্বজনদের পরামর্শ দেবো।

বোয়িং 737 ম্যক্স বিমান উড্ডয়নের অনুমতির পরই তাদের আরেকটি বিমান দুর্ঘটনা কবলিত হলো। কোনো ত্রুটি না থাকলে এই ধরনের ঘটনা ঘটতো না।

দুর্ঘটনা নিয়ে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয়নি ইন্দোনেশিয়া ও বোয়িং। এদিকে ২০১৮ ও ২০১৯ সালে 737 ম্যাক্স দুর্ঘটনায় নিহতের পরিবারকে ৫০ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে রাজি হয়েছে বোয়িং। একইসঙ্গে তথ্য গোপণ ও প্রতারণার অভিযোগে দিতে হচ্ছে আরো ২শ কোটি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর