channel 24

সর্বশেষ

  • সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের নবনিযুক্ত প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসারকে র‍্যাংক ব্যাজ পরিধান

  • ১০ বছর ধরে সবজি বিক্রি করে সংসার চালান লিপিকা

  • নাইজেরিয়ায় বোকো হারামের হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১১০ জনে

  • মানহানী মামলায় বোয়ালখালী থানার ওসিসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে সমন জারি

  • কক্সবাজারে ডাকাত দলের ৬ সদস্য গ্রেপ্তার

  • করোনায় দেশে আরও ৩৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২৫২৫

  • পোল্যান্ডে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, আক্রান্ত হচ্ছেন বহু বাংলাদেশি

  • আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়লো ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত

  • অপরাজেয় থাকার লক্ষ্যে বরিশালের মুখোমুখি চট্টগ্রাম

  • আসানসোলে গ্রামের একমাত্র হিন্দুর শেষকৃত্য করলেন মুসলিম প্রতিবেশীরা

  • করোনা ভ্যাকসিনের ৩ কোটি ডোজ বিনামূল্যে দেবে সরকার

  • 'জিয়াউর রহমানের নাম মুছে ফেলার ঘটনা সহ্য করা হবে না'

  • N-95 মাস্ক কেলেঙ্কারি: জেএমআই'র চেয়ারম্যানের জামিন কেন বাতিল নয়, হাইকোর্টের রুল

  • নুরসহ ৬ জনের ধর্ষণ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের সময় পিছিয়েছে

  • সম্রাট অসুস্থ, অভিযোগ গঠনের বিষয়ে আদেশ পেছালো

মীরসরাইয়ে অর্থনৈতিক অঞ্চলে ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণ দিতে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগ

মীরসরাইয়ে অর্থনৈতিক অঞ্চলে ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণ দিতে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগ

চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে অর্থনৈতিক অঞ্চলে ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণ নিয়ে উঠে নানা অভিযোগ। যা দূর করতে বিশেষ উদ্যোগ নেয় জেলা প্রশাসন। স্থানীয়ভাবে ক্যাম্প স্থাপন করে জমির প্রকৃত মালিকদের হাতে চেক হস্তান্তরের ব্যবস্থা করা হয়। এরই মধ্যে ২০৫ জনের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে ৩৩ কোটি ৮৭ লাখ টাকা। এতে সন্তোষ জানিয়েছেন সুবিধাভোগীরা।

মীরসরাইয়ে প্রায় ৩০ হাজার একর জায়গাজেুড়ে গড়ে উঠছে দেশের সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক অঞ্চল। প্রথমপর্যায়ে খাস আর ব্যক্তিমালিকানাধীন ভূমি মিলে কর্মযজ্ঞ চলছে প্রায় ২৬শ একরে।  

গেল প্রায় ২ বছর ধরে চলছে অধিগ্রহণ করা ভূমির মালিকদের ক্ষতিপূরণ প্রদান। তবে তাতে  বিপুল অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ ওঠে দালালচক্রের বিরুদ্ধে। তাই এদের তৎপরতা ঠেকাতে বিশেষ উদ্যোগ নেয় জেলা প্রশাসন। মীরসরাইতে স্থাপন করা হয় ক্যাম্প। প্রথম পর্যায়ে যেখানে মগাদিয়া মৌজার অধিগ্রহণ করা ৬শ ৩৬ একর জমির ক্ষতিপূরণ বাবদ ৪শ ৭৯ কোটি টাকা দেয়া হচ্ছে।     

এ প্রক্রিয়াকে স্বাগত জানিয়েছেন জমির মালিকরা। অবশ্য ক্ষতিপূরণের পুরো টাকা না পাওয়ারও অভিযোগও আছে কারো কারো।     

খাস আর আবাদি জমির মিশেল হওয়ায় এসব ভূমির প্রকৃতি নিয়ে শুরু থেকে ছিল নানা জটিলতা। তবে বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী জানিয়েছেন, ভূমি অধিগ্রহণ নিয়ে সব জটিলতাও কেটে গেছে। এখন আর কোন সংকট নেই।

পর্যায়ক্রমে বাকি ভূমিমালিকদেরও স্বচ্ছতার ভিত্তিতে ক্ষতিপূরণ দেয়ার কথা জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর