channel 24

সর্বশেষ

  • ব্রহ্মপুত্র নদে সুপার ড্যাম দিচ্ছে চীন; বাংলাদেশ-ভারতে তীব্র পানি সংকটের শঙ্কা

  • রংপুরে ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে নির্যাতিত শিশুকে উদ্ধার করলো পুলিশ

  • ফরিদপুরে আলুর বীজ বিক্রি হচ্ছে খাবার আলু হিসেবে

  • ভোলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির মৃত্যু

  • শারীরিক কর্মক্ষমতা বাড়ায় মুরগীর মাংস

  • পুত্রবধূর যৌতুক মামলার আসামি শতবর্ষী বৃদ্ধ এখন হাইকোর্টের বারান্দায়

  • ৫ম দিনের মতো স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি

  • খুলনায় ভাতিজাকে খুনের দায়ে চাচা পাঁচদিনের রিমান্ডে

  • রংপুরে শিশু ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় এক আসামির মৃত্যুদণ্ড

  • মাস্ক যেন ফ্যাশন, মুখে না থেকে ঝুলছে নানা জায়গায়

  • ভাস্কর্য ইস্যুতে উত্তপ্ত রাজপথ; বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধন-সমাবেশ

  • ভাস্কর্য ইস্যুতে মাঠে ৬০ পেশাজীবী সংগঠন, বাবুনগরী-মামুনুলকে গ্রেপ্তার দাবি

  • কম বয়সে বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেবার রেকর্ড রাব্বির

  • গ্লোবের ভ্যাকসিন ট্রায়ালে সহায়তা করবে আইইডিসিআর

  • চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশে যুক্ত হলো কার পেট্রোলিং

সারা দেশে চলছে পণ্যবাহী নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘট

সারা দেশে চলছে পণ্যবাহী নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘট

গতকাল দফায়-দফায় মালিক-শ্রমিকদের সাথে বিআইডব্লিউটিএ'র বৈঠকেও কোনো সিদ্ধান্ত না আসায়, পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী মধ্যরাত থেকে শুরু হয়েছে ধর্মঘট। ধর্মঘটে স্থবির হয়ে পড়েছে চট্টগ্রাম বন্দরের লাইটার জাহাজসহ অভ্যন্তরীণ রুটে সবধরনের পণ্য পরিবহন। ব্যবসায়ীরা বলছেন, মালিক-শ্রমিকদের মধ্যে বোঝাপড়ার অভাবে খেসারত দিতে হচ্ছে সবাইকে। আর শ্রমিকদের দাবি, নৌযান মালিক আর সরকারের সদিচ্ছার অভাবেই সমস্যা দূর হচ্ছে না।

চট্টগ্রামের কর্ণফুলির ১৬টি ঘাটসহ সারাদেশে পণ্য নিয়ে অলস বসে আছে এমন ৬শ ৬৬টি লাইটার জাহাজ। বড় জাহাজ থেকে পণ্য বোঝাইয়ের অপেক্ষায় আছে আরো ৩শ ০৫টি। এই স্থবিরতা সোমবার রাতে শুরু হওয়া দেশব্যাপি অনির্দিষ্টকালের নৌযান ধর্মঘটের কারণে।

১১ দফা দাবি পূরণে কাজ বন্ধ রেখেছে নৌশ্রমিকরা। যার অন্যতম চাঁদাবাজি-ডাকাতি বন্ধ, খ্যাদ্যভাতা প্রদান, দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ ১০ লাখ টাকা নির্ধারণ, নিয়োগ ও পরিচয়পত্র প্রদান, নৌপরিবহন অধিদফতরের হয়রানি বন্ধ, নিরাপদ চলাচল ইত্যাদি।

নেতারা বলছেন, দাবিগুলো নতুন নয়। অনেকবার পূরণের আশ্বাস দিয়েও বা বাস্তবায়ন হয়নি। নৌযান মালিক আর সরকারের আন্তরিকতার অভাবেই সংকট কাটছে না। 

ব্যবসায়ীরা বলছেন, বারবারই নৌযান মালিক-শ্রমিকদের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে ব্যবসা-বাণিজ্যে। যার অন্যতম চট্টগ্রাম বন্দর কেন্দ্রিক পণ্য পরিবহন। যেখানে লাইটারিং কার্যক্রম বন্ধ থাকলে প্রতিদিনের জন্য একেকটি মাদার ভ্যাসেলকে ডেমারেজ দিতে হয় ১০-১৫ হাজার ডলার।   

৩ হাজারের মতো লাইটার জাহাজসহ সারাদেশে পণ্যবাহী নৌযান রয়েছে কম-বেশি ২ লাখ। যাতে শ্রমিক নিয়োজিত ৫ লাখের মতো।

 

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর