channel 24

সর্বশেষ

  • বিকেএসপিতে সাকিবের ফিট হয়ে ওঠার গল্প

  • নোয়াখালীতে বিবস্ত্র করে গৃহবধূ নির্যাতনে স্বামী স্বামী জড়িত

  • ফুডপান্ডার বিরুদ্ধে ভ্যাট গোয়েন্দার মামলা

  • জুলাইয়ের পর পুঁজিবাজারে দর বাড়ার শীর্ষে বিমা খাত

  • মহানবীকে অবমাননা: আজও দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ

  • করোনাকালে ক্ষতিতে প্রান্তিক মানুষ, নিশ্চিন্তে সরকারি কর্মীরা

  • ৭ মাস পর পর্যটকদের জন্য খুলছে সুন্দরবন, লাউয়াছড়া ও মাধবকুন্ড

  • সিলেটে রায়হান হত্যায় পুলিশ সদস্য আশেক এলাহী গ্রেপ্তার

  • এবার নতুন বছরে হচ্ছে না বই উৎসব: শিক্ষামন্ত্রী

  • স্বাধীনতার গৌরব উজ্জ্বল রাখতে সবাইকে সচেষ্ট থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • স্কুল-কলেজের ছুটি বাড়লো ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত

  • নেসকোর অস্থায়ী মিটার রিডার ও বিল বিতরণকারীদের অবস্থান ধর্মঘট

  • বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনে আবারো উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র

  • অপারেশন থিয়েটারের পেছনে রাখা হয়েছে পালানোর ব্যবস্থা!

  • পাঁচ হাজার টাকা দিলেই মিলবে পঞ্চাশ হাজার টাকা!

পেঁয়াজের পর এবার চালের বাজারে অস্বস্তি

পেঁয়াজের পর এবার চালের বাজারে অস্বস্তি

পেঁয়াজের বাজার কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসতে না আসতেই এবার অস্থির চালের বাজার। সরকারি চাল সংগ্রহ শেষ হতে না হতেই সবচেয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য চালের দাম বেড়ে গেছে। গত দু-তিন দিনে প্রায় সব ধরনের সিদ্ধ চালের দাম কেজিতে গড়ে পাঁচ টাকা বেড়েছে।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে দাম বাড়াচ্ছে অসাধু চক্র। এ পরিস্থিতিতে বাজার নিয়ন্ত্রণে অভিযান জোরদার করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবং একইসঙ্গে জেলা প্রশাসকদের চিঠি দিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়।

পাইকারি ও খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, মিল মালিকরা বৈরী আবহাওয়ায় ধান প্রক্রিয়াজাত করে চাল উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার কথা বলছেন। আমন মৌসুমের আগে চালের ঘাটতির অজুহাতে দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। যদিও এখন বেশিরভাগ অটো রাইস মিলে চাল উৎপাদনে আবহাওয়ার কোনো প্রভাব নেই। এ ছাড়া বোরো ও আউশ ধানের বেশ সরবরাহ আছে। এ অবস্থায় দাম বৃদ্ধির যৌক্তিক কারণ নেই।

রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে গত তিন দিনের ব্যবধানে খুচরায় সব ধরনের চাল কিনতে কেজিতে গড়ে পাঁচ টাকা বেশি গুনছেন ক্রেতারা। মাঝারি মানের চাল লতা ও বিআর-২৮ এখন ৪৮ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪৪ থেকে ৪৫ টাকা। বাজারে মোটা গুটি ও স্বর্ণা চাল তেমন পাওয়া যাচ্ছে না। দু-একটি দোকানে বিক্রি হলেও তা এখন একই হারে বেড়ে ৪৪ থেকে ৪৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। আর সরু চাল মিনিকেটের কেজি ৫৮ থেকে ৬০ টাকায় পৌঁছেছে, যা ছিল ৫২ থেকে ৫৪ টাকা। মানভেদে নাজিরশাইল চাল বিভিন্ন দামে বিক্রি হচ্ছে। যে মানের নাজিরশাইল আগে ৫৫ থেকে ৬০ টাকা কেজি ছিল, তা এখন বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকায়। মোটা চালের দাম বেড়ে ৪৪ থেকে ৪৫ টাকা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর