channel 24

সর্বশেষ

  • ইংল্যান্ডে দু'দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা

  • টেস্ট না করেই রিপোর্ট দিতো রিজেন্ট হাসপাতাল

  • রিজার্ভ থেকে ঋণ নিয়ে উন্নয়ন কাজে লাগানো যায় কিনা, তা ভেবে দেখার পরামর্শ

  • আর্থিক সংকটে পাইওনিয়ার লিগ খেলা ফুটবলাররা

  • খুলনার সেই সালামকে মুক্তির নির্দেশ আদালতের

  • উপনির্বাচন ইসির এখতিয়ার, এতে সরকারের হাত নেই: কাদের

  • সাঈদ হোসেন চৌধুরীকে ওয়ান ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ

  • মেসির বার্সেলোনা ছাড়ার গুঞ্জন উড়িয়ে দিলেন ক্লাব সভাপতি

  • দিনাজপুরে বিআরটিসির বাসচাপায় নিহত ৫

  • লাপাত্তা হওয়া ক্রেস্ট সিকিউরিটিজর মালিক স্ত্রীসহ আটক

  • চট্টগ্রামে অস্থায়ী ক্যাম্পের মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন একদল যুবক

  • মাদক নিয়ন্ত্রণে কাওরান বাজারে রেল লাইনের পাশের বস্তিতে উচ্ছেদ অভিযান

  • র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমতি দিলো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • মানবপাচারের সাথে এমপি পাপুলের সম্পৃক্ততা খতিয়ে দেখছে সিআইডি

  • করোনায় দেশে আরও ৪৪ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২০১

সরকার অগ্রীম মূল্য নির্ধারণ করে ক্রয় করায়, কৃষকরা নায্যমূল্যে ধান বিক্রি করতে পেরেছে

সরকার অগ্রীম মূল্য নির্ধারণ করে ক্রয় করায়, কৃষকরা নায্যমূল্যে ধান বিক্রি করতে পেরেছে

এ বছর সরকার অগ্রীম ধানের মূল্য নির্ধারণ করে ক্রয় শুরু করায়, নীলফামারীতে গত বছরের তুলনায় কৃষকরা বেশি মূল্যে ধান বিক্রি করছে। ছোট ছোট চালকলগুলো আগের বছরের চেয়ে বেশি বরাদ্দ পেয়েছে। জেলার খাদ্য কর্মকর্তা বলছেন, অগ্রীম মূল্য নির্ধারণ ও ক্রয় অব্যাহত রাখলে প্রান্তিক কৃষক ধানের নায্যমূল্য পাবেন।

ধান কাটার ধুমেই সরকার নির্ধারণ করে দিয়েছে ধানের দাম। সাথে ক্রয়োদেশও। তাতেই তুলনামুল ভাল দাম পাচ্ছেন কৃষকরা।

নীলফামারীর কৃষকদের দাবি, সরকারের আগাম সিদ্ধান্তের কারণে, এবার মোটাধান বিক্রি করছেন ৬শ থেকে ৭শ টাকা। অথেচ গেল বছর তা ছিল, ৪ শ টাকা। আর চিকন ধানে পাচ্ছেন ৮ শ থেকে ৯শ টাকা।

ধানের দামে শুধু কৃষকরাই খুশি না, লাভের গুড়ের ভাগ পেয়েছেন, আড়ৎদার চালকল মালিকরাও।

জেলার খাদ্য নিয়ন্ত্রন কর্মকর্তা কাজী সাইফুদ্দিন জানান, মে মাসের ১৭ তারিখ থেকে আগামী ৩১ আগষ্ট পর্যন্ত কৃষক ও ৫৪৭ টি চালকলের কাছ থেকে সরাসরি ধান ও চাল ক্রয় করা হবে। তার মতে অগ্রীম মূল্য নির্ধারন করায় একদিকে কৃষকের ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত হচ্ছে, অন্যদিকে সরকারের খাদ্য মজুদ কার্যক্রম সফলভাবে পরিচালিত হচ্ছে।

নীলফামারী জেলায় এ বছর ১৬ হাজার ৭৯৮ মেট্রিক টন ধান ও ২০ হাজার ৭৬৬ মেট্রিক টন চাল ক্রয় করা হবে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর