channel 24

সর্বশেষ

  • অবসর নয়, টেস্ট দলে ফেরার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে: মাহমুদুল্লাহ

  • ভারতের পশ্চিম ও মধ্যাঞ্চলের ৫ রাজ্যে পঙ্গপালের হানা

  • মাধবপুরে জমি দখল নিয়ে সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১০

  • যমুনা নদীতে নৌকাডুবিতে দুজনের মরদেহ উদ্ধার

  • আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মুশফিকের ১৫ বছর

  • করোনায় মানবতার সেবায় দৃষ্টান্ত চাঁদপুরের চিকিৎসক দম্পতি

  • করোনায় ডেপুটি স্পিকারের স্ত্রী আনোয়ারা রাব্বীর মৃত্যু

  • করোনা আতঙ্কে ঘর থেকেই বের হননি রাজধানীর বেশিরভাগ মানুষ

  • লাদাখে মুখোমুখি ভারত ও চীনের সেনাবাহিনী

  • দুর্যোগে জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকারের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে বিএনপি: কাদের

  • করোনায় দেশে আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১৬৬

  • নিজের কিট দিয়ে করোনা পজিটিভ ডা. জাফরউল্লাহ

  • মানসিক অবস্থা ভালো হলেও শারীরিকভাবে সুস্থ নন খালেদা জিয়া

  • ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত খুলনার কয়রাসহ ৫ উপজেলার মাছ চাষী

  • দেশে রেকর্ড চাল উৎপাদনের আশা, উঠে আসবে বিশ্বের তিন নম্বরে

করোনার প্রভাবে আমদানি-রপ্তানিতে জোর ধাক্কা

করোনার প্রভাবে আমদানি-রপ্তানিতে জোর ধাক্কা

করোনাভাইরাসের প্রভাবে রপ্তানির সঙ্গে কমছে আমদানিও। এনবিআর তথ্য বলছে, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারির তুলনায় মার্চে আমদানি কমেছে ৯ শতাংশ আর রপ্তানি কমেছে সাড়ে ২৩ শতাংশ। বিশ্লেষকরা বলছেন, এ পরিস্থিতিতে দেশের রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে না।

করোনার ধাক্কায় বিভিন্ন দেশের সাথে কমেছে, ব্যবসা-বাণিজ্য। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের তথ্য বলছে, গত মাসে পণ্য আমদানি হয়েছে ৪২ হাজার ৭৫৮ কোটি টাকা। ফেব্রুয়ারিতে যা ছিল ৪৬ হাজার ৯১১ কোটি টাকা। অর্থাৎ এক মাসে আমদানি কমেছে, ৯ শতাংশ।   

রপ্তানি কমেছে আরও। ফেব্রুয়ারিতে ২৭ হাজার ২২৫ কোটি টাকা রপ্তানি হলেও; মার্চে তা ঠেকেছে ২০ হাজার ৮০১ কোটি টাকায়। অর্থাৎ কমেছে, সাড়ে ২৩ শতাংশ।

আমদানি-রপ্তানির বড় অংশীদার তৈরি পোশাকখাতের ব্যবসায়ীরা বলছেন, দেশের পোশাক খাতের অবস্থা আগে থেকেই ভাল ছিল না। করোনার ধাক্কায় এটি আরও খারাপ হয়েছে।

ডিএসএল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহাঙ্গির আলোম বলেন, চাহিদা যেখানে ছিল সেখানেই তো লকডাউন। কেউ তো এখন জামাকাপড় কিনছে না খুব একটা। এবং আগামীতেও মানুষ তাঁর মৌলিক চাহিদার মধ্যে ঔষধ আর খাদ্যটা কিনবেন পরে জামাকাপড়ে যাবে। হয়তো মৌসুম শেষ হলে তাও দরকার হতে পারে। তবে আমার মনে হয় এটা সাময়িক। আমার মনে হয় ২/৩মাস পুরো বিশ্বেই মন্দা থাকবে। তারপরে হয়তো আবার আগের জায়গায় ফিরে আসবে। কারণ আমরা বিশ্বাস করি করোনা মানুষের কাছে পরাজিত হবে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, এটা নিশ্চয়ই দেশের অর্থনীতির জন্য দুঃসংবাদ। এতে প্রভাব পড়বে, বৈদেশিক বাণিজ্য ভারসাম্যে।

 সিপিডির সম্মানীয় ফেলো মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, যে অবস্থা চলছে সেটা যেন আমরা কাটীয়ে উঠতে পারি।

বিআইডিএসের জেষ্ঠ্য গবেষক নাজনিন আহমেদ বলেন, আমাদের খুব গুরুত্বের সাথে দেশীয় বাজার নির্ভর, দেশীয় কাঁচামাল নির্ভর যে শিল্প তাঁদের উৎপাদন যেন খুব দ্রুত শুরু করা যায় অবশ্যই স্বাস্থ্য ঝুঁকি না বাড়িয়ে সেটার দিকে খেয়াল করতে হবে। বিশেষ করে অতি ক্ষুদ্র শিল্প যেগুলো অনেক ক্ষেত্রেই গৃহ ভিত্তিক সেগুলোর উৎপাদন ঠিক রাখার চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

আগামী জুন পর্যন্ত আমদানি-রপ্তানি আরো কমার আশঙ্কা করছেন তারা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর