channel 24

সর্বশেষ

  • বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করেছে জাতিসংঘ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি খুনে মাফিয়াদের বিচার চান স্বজনরা

  • বাসভাড়া বৃদ্ধি মরার উপর খাড়াঁর ঘা

  • সীমিত পরিসরে সেবার নামে বাসভাড়া ৮০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব

  • চট্টগ্রামে এবার চিকিৎসা পেলেন না স্বাস্থ্য পরিচালকের মা!

  • কক্সবাজারে নতুন করে ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত

  • ভার্চুয়াল শপথ নিলেন ১৮ বিচারপতি

  • করোনাকালে অসহায়দের পাশে 'ওল্ড ল্যাবরেটরি অ্যাসোসিয়েশন'

  • মেহেরপুরে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন তিন চিকিৎসক

  • রিয়াল বেতিস-সেভিয়া ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরছে লা লিগা

  • প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা ছাড়া কোনো রোগীকে ফেরত দেওয়া যাবে না

  • সোমবার শুরু হচ্ছে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচল

  • কাল শুরু হচ্ছে সীমিত আকারে ট্রেন চলাচল

  • চট্টগ্রামে ১০ দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুন

  • চলে গেলেন সাবেক তারকা ফুটবলার গোলাম রব্বানী হেলাল

টিসিবির পণ্য বিক্রি কিছুটা স্বস্তি দিয়েছে নিম্নআয়ের মানুষকে

টিসিবির পণ্য বিক্রি কিছুটা স্বস্তি দিয়েছে নিম্নআয়ের মানুষকে

নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য ন্যাযমূল্যে টিসিবির পণ্য বিক্রি কিছুটা স্বস্তি দিয়েছে নিম্নআয়ের মানুষকে। তবে তালিকায় আরও কিছু নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য রাখার দাবি ক্রেতাদের। এদিকে, ক্যাবের সভাপতির দাবি, পরিস্থিতি বিবেচনায় টিসিবির পণ্য বিক্রির পরিধি আরও বাড়ানো উচিত।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১৭ মার্চ থেকে সারা দেশের নিম্নআয়ের মানুষের জন্য ন্যায্যমূল্যে পণ্য বিক্রি শুরু করে টিসিবি। প্রায় ৩৫০ ট্রাকের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কাছে যা পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

করোনা পরিস্থিত বিবেচনায় ২৯ মার্চ থেকে ৫ দিনের সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। এতে অঘোষিত ১০ দিনের লকডাউনে নিম্নবিত্ত মানুষের আয়ের পথ বন্ধ হয়ে যায় অনেকাংশে। বাজারগুলোতে বাড়তে থাকে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য দাম।

এর মাঝেও টিসিবির খোলাবাজারে ন্যায্য দামে পণ্য বিক্রি কিছুটা স্বস্তি দিয়েছে ভোক্তাদের। টিসিবির ট্রাক থেকে একজন ভোক্তা কিনতে পারছেন চারটি পণ্য।

টিসিবি কর্মচারিরা বলছেন, আমাদের এখানে চিনি আর ডাল ৫০টাকা, তেল ৮০টাকা লিটার। পেঁয়াজ ৩৫টাকা, তবে এখনও আমাদের পেঁয়াজ দেয়নি, দিলে আমরা আবার বিক্রি করবো।

খোলাবাজারে কমদামে এসব পণ্য পেয়ে খুশি ক্রেতারা। তবে তাদের দাবি, আরও কিছু নিত্যপণ্য এ তালিকায় যুক্ত করার।

কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ বা ক্যাবের সভাপতি গোলাম রহমান বলছেন, পরিস্থিতি বিবেচনা করে, সরকারের উচিত এই সুবিধা আরও বাড়ানো। সেইসাথে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান তার।

মুজিববর্ষের এই বিশেষ পণ্য বিক্রি ৩১ মার্চ শেষ হলেও, রমজান উপলক্ষে ১ এপ্রিল আবারো শুরু হচ্ছে ন্যাযমূল্যে টিসিবির পণ্য বিক্রি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর