channel 24

সর্বশেষ

  • যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় ৭ বাংলাদেশিসহ প্রাণহানি ১৭৮৩ জন

  • মরদেহ থেকে ছড়ায় না করোনা, প্রয়োজন সচেতনতার

  • করোনায় বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি লাখো ছুঁই ছুঁই, আক্রান্ত প্রায় ১৬ লাখ

  • কুমিল্লার জিয়াপুর ও বিরামকান্দি গ্রাম লকডাউন

  • চীনের প্রেসিডেন্টকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর চিঠি

  • করোনায় ভিন্ন আঙ্গিকে পালিত হচ্ছে পবিত্র শবে বরাত

  • জাতীয় অধ্যাপক ও ভাষা সৈনিক ড. সুফিয়া আহমেদ মারা গেছেন

  • বিশ্বজুড়ে ভারি হচ্ছে লাশের পাল্লা, প্রাণহানি ছাড়ালো ৯৫ হাজার

  • রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনা সংক্রমণ রোধে বিশেষ ব্যবস্থা

  • শবে বরাতে ঘরে বসে ইবাদতের পরামর্শ, কবরস্থান-মাজারে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা

  • দেশে প্রথমবারের মতো একদিনে আক্রান্ত শতাধিক

  • খাগড়াছড়িতে হামের প্রকোপ, আক্রান্ত ২ শতাধিক শিশু

  • অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর স্থগিত

  • লকডাউনের পরও রাজধানীতে মানুষকে ঘরে রাখা যাচ্ছে না

  • ব্যক্তিগত-প্রাতিষ্ঠানিক ত্রাণের তালিকায় নেই শিশু খাদ্য

করোনা মোকাবেলায় অনলাইনে অফিস করছেন অনেকে

করোনা মোকাবেলায় অনলাইনে অফিস করছেন অনেকে

করোনা মোকাবেলায় ঘরে বসে অফিসের কাজ করার ব্যবস্থা করেছে বেশকিছু প্রতিষ্ঠান। ফলে অনলাইনেই চলছে মিটিং, যোগাযোগ এমনকি শ্রেণিকক্ষের ক্লাসও। বাংলাদেশের প্রেক্ষিতে এটি একেবারে নতুন হলেও, স্বস্তিতে সবাই। তাদের মতে, এই ব্যবস্থা বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানে চালু করা গেলে, মোকাবেলা করা যাবে করোনা সংক্রমণ। একই সাথে সমানতালে চালানো যাবে সার্বিক কাজকর্মও।

করোনা আতঙ্কে প্রায় থমকে গেছে জনজীবন। চিরচেনা কোলাহল নেই রাজধানীতে। সারাদেশই যেন এক রকম অবরুদ্ধ; অদৃশ্য এক শত্রুর হাত থেকে বাঁচতে। কিন্তু এর মাঝেও নিত্য কাজকর্ম থেমে নেই একেবারে। প্রযুক্তি আর অত্যাধুনিক পদ্ধতির সংমিশ্রণে অনেকের কর্মজীবন এখন পেয়েছে খানিকটা ভিন্নরূপ।

দিলশাদ হোসেন দোদুল। পেশায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক। অন্যদিনগুলোতে এই সময়ে  পাঠদানে ব্যস্ত থাকলেও এখন খানিকটা অবসরে। সচেতনতা বজায় রেখে বেশিরভাগ সময় কাটাচ্ছেন ঘরে। সময় পার করছেন বই পড়ে। মাঝে মধ্যে সময় দিচ্ছেন গবেষণার কাজেও।

দোদুলের মতো ঘরে বসেই অবসরে হয়তো কাটছে অনেকের সময়। কিন্তু একেবারে থেমে নেই কাজকর্ম। কারণ বহু প্রতিষ্ঠান চালু করেছে হোম অফিস। প্রযুক্তির সহায়তা আগের মতোই চলছে মিটিং। যাকে সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত মনে করছেন বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের এক কর্মকর্তা।  

সঙ্কটের এই সময়ে বিকল্প পদ্ধতি চালু করেছে অন্যান্য কর্পোরেট অফিসগুলো। কর্মীদের উপস্থিতি নামিয়ে আনা হয়েছে অর্ধেকে। এছাড়া সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতেও কাজ করেছে প্রতিষ্ঠানগুলো।

বেসরকারি ছাড়া, সরকারি প্রতিষ্ঠান এবং সংস্থাগুলোও এই সময়ে নিয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর