channel 24

সর্বশেষ

  • দু'বছর ধরে লাইসেন্স ছাড়াই লাজ ফার্মার ব্যবসা

  • জাভি হার্নান্দেজই হচ্ছেন বার্সেলোনার কোচ: ক্লাব প্রেসিডেন্ট

  • আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলতে বাধা নেই ম্যান ইউ'র

  • টাকা চাইলেই পাওনাদারদের ওপর নামতো জেকেজির নির্যাতনের খড়গ

  • বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, ১০টি নদ-নদীর পানি বিপৎসীমার উপরে

  • হজ্জ্ব ক্যাম্পে কোয়ারেন্টিন শেষে বাড়ি ফিরলো ৯৬ কুয়েত প্রবাসী

  • সর্দিজ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ৬ জনের মৃত্যু

  • ৭ মার্চকে 'জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস' ঘোষণার প্রস্তাব মন্ত্রিসভায় সম্মতি

  • লাজ ফার্মায় র‌্যাবের অভিযান

  • সাবরিনার কাছে রিমান্ডে মিলতে পারে ভুয়া করোনা সনদ বাণিজ্যের তথ্য

  • না ফেরার দেশে চলে গেলেন আর্চবিশপ মজেস এম কস্তা

  • পোলিও পায়ের শক্তি কেড়ে নিলেও দমে যাননি নড়াইলের গোপিনাথ

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে কমিউনিটি সেন্টার খোলার দাবি বাবুর্চিদের

  • কক্সবাজার সৈকতে পাওয়া গেছে আরও ৫টি কচ্ছপের মৃতদেহ

  • অনলাইনে হয়ে গেল কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি সম্মেলন

সপ্তাহ ব্যবধানে ডিএসই প্রধান সূচক কমেলো ১৫৫ পয়েন্ট

সপ্তাহ ব্যবধানে ডিএসই প্রধান সূচক কমেলো ১৫৫ পয়েন্ট

টানা ৪ সপ্তাহ ধরে সূচকের বড় পতনের মধ্যে রয়েছে দেশের পুঁজিবাজার। নানা প্রণোদনার পরও ইতিবাচক ধারায় ফেরাতে ব্যর্থ সরকার। তবে শেয়ারের ভিত্তিমূল্য পরিবর্তনে বিএসইসির সিদ্ধান্তের পর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ডিএসইতে প্রধান সূচক বাড়ে প্রায় পৌনে ৪শ' পয়েন্ট।

আবারো সূচকের বড় পতন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে। গেলো সপ্তাহে ৪ কার্যদিবসের মধ্যে সূচক কমে ৩ কার্যদিবসেই। আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৬০ পয়েন্ট কমে সপ্তাহ শুরু হয় ৩ হাজার ৯৬৯ পয়েন্টে। সোম ও বুধবার কমে মোট ৩৬৬ পয়েন্ট।

পতন ঠেকাতে আগের ৫ কার্যদিবসের ক্লোজিং প্রাইজকে ভিত্তিমূল্য হিসাব করে বৃহস্পতিবার লেনদেন শুরু হয় দুপুর ২টায়। পরের ৩০ মিনিটে ৩৭১ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শেষ হয় ৩ হাজার ৯৭৪ পয়েন্টে; যা এর আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ১৫৫ পয়েন্ট কম।

সূচকের সঙ্গে কমে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৩৭৩ কোটি টাকা। সপ্তাহের সর্বোচ্চ ৪২৯ কোটি টাকা লেনদেন হয়, বুধবার। সর্বনিম্ন ৪৯ কোটি টাকা লেনদেন হয় বৃহস্পতিবার।

আগের সপ্তাহের চেয়ে ১০৩ কোটি টাকা কমে গড় লেনদেন নামে, ৩১৪ কোটি টাকায়। সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হওয়া ৩৫৮ কোম্পানি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম কমে ৩০৪টির; বেড়েছে ৪৫টির। অপরিবর্তিত ছিলো ৯টির দাম।

ডিএসইতে দাম বাড়ার শীর্ষে ছিলো মুন্নু সিরামিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স কো.লি., গ্রিন ডেলটা মিউচ্যুয়াল ফান্ড, ড্যাফোডিল কম্পিউটার্স লিমিটেড ও FAS ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লি.।

দাম কমার শীর্ষে ছিলো বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কো.লি., ডেলটা স্পিনার্স লিমিটেড, ফারইস্ট ফাইন্যান্স অ্যান্ড, ইনভেস্টমেন্ট লি., এক্সিম ব্যাংক ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড।

সপ্তাহজুড়ে সূচক কমেছে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ। প্রথম কার্যদিবসে সার্বিক সূচক সিএএসপিআই কমে ৪৯০ পয়েন্ট। পরের ৩ কার্যদিবসে আরো ১ হাজার ১৯০ কোটি টাকা কমে সপ্তাহ শেষ হয় ১০ হাজার ৯৬৩ পয়েন্টে; যা এর আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ১ হাজার ৬৮০ পয়েন্ট কম।

সূচকের সঙ্গে কমে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয় সপ্তাহের সর্বোচ্চ ২৪ কোটি টাকা। সর্বনিম্ন ১ কোটি টাকা লেনদেন হয় বৃহস্পতিবার।

সপ্তাহের ব্যবধানে ১৩ কোটি টাকা কমে গড় লেনদেন হয় ১৩ কোটি টাকা। লেনদেন হওয়া ২৯৫ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম কমে ২৮২টিরই। বাড়ে মাত্র ৮টির; আর অপরিবর্তিত ছিলো ৫টির দাম।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর