channel 24

সর্বশেষ

  • স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা সরঞ্জাম দিলো স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস

  • আকিজ গ্রুপের হাসপাতাল তৈরিতে জনতার ক্ষোভ

  • জনগণকে সচেতন হবার আহ্বান জানিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ

  • শৈশব থেকেই বলিষ্ঠ নেতৃত্বের অধিকারী ছিলেন বঙ্গবন্ধু

  • স্পেনে আরও ৮৩২ জনের প্রাণহানি

  • কাল থেকে সংসদ টেলিভিশনে শ্রেণী ভিত্তিক পাঠদান চলবে

  • ৭ দিন নিষেধাজ্ঞা বাড়লো বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের

  • রাঙ্গামাটিতে জীবাণুনাশক ছিটিয়েছে সেনাবাহিনী

  • ফাঁকা ঢাকা; মানুষের সচেতনতায় কাজ করছে সেনা সদস্যরা

  • শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে স্বাবলম্বী লালমনিরহাটের হাফিজুর

  • 'অর্থনীতি পুনরুদ্ধার প্যাকেজ' বিলে সই করেছেন ট্রাম্প

  • মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নাগরিকের সঙ্গে সম্মানজনক আচরণ করার নির্দেশ

  • বন্ধ হচ্ছে কারখানা; চাকরি হারানোর ঝুঁকিতে ২০ লাখ শ্রমিক

  • চট্টগ্রামে করোনা প্রতিরোধে সেনাবাহিনী ও জেলা প্রশাসনের অভিযান

  • টেকনাফে 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ৪

করোনাভাইরাসের প্রভাবে ক্ষতির মুখে দেশের ট্যুর অপারেটর ও বিমান সংস্থাগুলো

করোনাভাইরাসের প্রভাবে ক্ষতির মুখে দেশের ট্যুর অপারেটর ও বিমান সংস্থাগুলো

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে ক্ষতির মুখে, দেশের ট্যুর অপারেটর ও উড়োজাহাজ সংস্থাগুলো। এই মৌসুমে, বেশিরভাগ বিদেশি পর্যটক বাতিল করেছেন, বাংলাদেশ ভ্রমণ। কমে গেছে, দেশ থেকে বিদেশ যাওয়া পর্যটকের সংখ্যাও।

চীনের করোনা ভাইরাসের ভয় আতঙ্কের প্রভাব দেশের বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন খাতেও। বাংলাদেশে এমনিতেই বিদেশি পর্যটক তুলনামূলক কম আসে। তবে করোনা ভাইরাসের কারণে অনেকে তাদের সফর বাতিল করছে।

বাংলাদেশ বিদেশি পর্যটকদের বিভিন্ন ধরণের সেবা দেয়া ট্যুর অপারেটরের মালিক তৌফিক রহমান। রাশিয়া ও চীন থেকে অনেক বিদেশি পর্যটক দেশের আসার সিদ্ধান্ত শেষ মুহূর্তে বাতিল করেছে। এতে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ  পর্যটন সংশ্লিষ্ট অনেকেই। শুধু বিদেশি নয় দেশ থেকেও বিদেশে ঘুরতে যাওয়া যাত্রীও কমেছে।

প্যাসিফিক এশিয়া ট্রাভেক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক তৌফিক রহমান বলছেন, আমাদের স্লোভেনিয়ার একটা গ্রুপ ছিল, তো স্লোভেনিয়াতেও করোনা ভাইরাস নেই আর বাংলাদেশেও নেই। কিন্তু এখন ওই পরিবারটি বলছে যে তাঁরা এই মুহুর্তে আর আসবে। না। এর মধ্যে আমাদের হোটেল বুকিং হয়ে গেছে, ট্রেনেরর টিকিট, সুন্দরবনের ফিস সবকিছুই জমা দেওয়া হয়ে গেছে। সব কিছু মিলিয়ে আমরা মনে করছি যে করোনাভাইরাসেই এই বিষয়টা ওনেকদিন ধরেই থাকবে।

বাংলাদেশে যাতায়াতকারী চীনের উড়োজাহাজ সংস্থা চায়না সাউদার্ন সপ্তাহে সাতদিনের পরিবর্তে চারদিন আর চায়না ইস্টার্ন তিনদিন ফ্লাইট কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষ মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।
তবে ইউএসবাংলা এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ বলছে, যাত্রী তুলনামূলক কমে গেছে।  তারপরও দেশের ফেরা যাত্রীদের স্বার্থে ফ্লাইট অপারেট সপ্তাহে সাত দিন অব্যাহত আছে।

ইউএসবাংলার মহাব্যবস্থাপক কামরুল ইসলাম বলছেন, গত ২১শে জানুয়ারি থেকে ১০ই ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত গড়ে প্রতি ফ্লাইটে ৪০জন মানুষ ফ্ল্যই করেছে। আমরা এখানে বিজনেসটাকে নয় সার্ভিসটাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি।

এ বিষয়ে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব বলেন, সারা বিশ্বের মতো দেশে ও এয়ারলাইন্স ও পর্যটন খাতে করোনা ভাইরাসের প্রভাব পড়েছে। সরকার তা মোকাবেলায় চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মহিবুল হক বলেন, করোনার প্রভাব যে সারা পৃথিবীতে কিছুটা পরছে সেখানে বাংলাদেশেও যে কিছুটা পরবে তা অস্বীকার করার কোন কারণ নেই। এটা বাস্তবতা। এটা সবারই নিয়ন্ত্রণের বাইরে তবে আমরা এটাকে ওভারকাম করার চেষ্টা করছি।

এভিয়েশন বিশেষজ্ঞরা বলেন, সরকারের বেশি করে দেশ করোনা ভাইরাস মুক্ত এবং ভাইরাস প্রতিরোধে গৃহীত পদক্ষেপের প্রচারণা বাড়াতে হবে সব ক্ষেত্রে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর