channel 24

সর্বশেষ

  • ডাকঘরে সঞ্চয় স্কিমে সুদের হার কমানোর সিদ্ধান্তে দুশ্চিন্তায় নিম্ন ও মধ্যবিত্তরা

  • গানে গানে বাংলা ভাষাকে ছড়িয়ে দিচ্ছেন জাপানিজ দম্পতি

  • করোনা আতঙ্কে ভুতুড়ে নগরী দক্ষিণ কোরিয়ার দায়েগু

  • দৌলতদিয়াতে আরেক যৌনকর্মীর জানাজা অনু‌ষ্ঠিত

  • চাঁপাইনবাবগঞ্জে ধর্ষণ ও হত্যায় অভিযুক্ত বন্দুকযুদ্ধে নিহত

  • কল্পনার রং আর নকশার কারুকাজে শহীদ মিনারের প্রতিটি সড়ক একেকটি ক্যানভাস

  • মাগুরায় ছাত্রলীগ-ছাত্রদলের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

  • একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

  • নারীর গৃহস্থালী কাজকে সরাসরি জাতীয় আয়ে যুক্ত করার সুযোগ এখনো নেই: অর্থমন্ত্রী

  • শুক্রবার থেকে পাওয়া যাবে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে টেস্ট টিকিট

  • ফরিদপুরে ওবায়দুর রহমানের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া মাহফিল

  • ফের ঢাকার বাতাস বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত

  • একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত গোটা দেশ

  • বাংলা ওয়েবসাইট চালু করলো মার্কিন দূতাবাস

  • চুড়িহাট্টায় আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণসহ ৮ দফা দাবি

ব্যাংকিং খাতের নানা সংকটেই পুঁজিবাজারে দুরাবস্থা; মত অর্থনীতিবিদদের

ব্যাংকিং খাতের নানা সংকটেই পুঁজিবাজারে দুরাবস্থা; মত অর্থনীতিবিদদের

মূলত ব্যাংকিং খাতের নানা সংকটের কারণেই বর্তমানে পুঁজিবাজারে দুরাবস্থা। এমন মত অর্থনীতিবিদদের। তারা বলছেন, তারল্য সংকট, আমানত ওবেসরকারি ঋণের প্রবৃদ্ধি কম, বড় অংকের খেলাপী ঋণ এবং সরকারি ঋণ বাড়ায় ব্যাংকিং খাতের ওপর থেকে আস্থা কমে গেছে মানুষের। সেই সাথে পুঁজিবাজারে আসছে না দেশি-বিদেশি ভালো কোনো প্রতিষ্ঠান। জটিলতার সমাধান হয়নি গ্রামীনফোনের সাথেও।

দীর্ঘ দিন ধরে নানা সমালোচনার পরও আলোর মুখ দেখেনি পুঁজিবাজার। উল্টো, সাম্প্রতিক সময়ে সূচকের অবস্থান নেমেছে তলানিতে।
 
এমন অবস্থায় প্রশ্ন উঠছে কেন পুঁজিবাজারের এমন অবস্থা, আর কেনইবা অবস্থার পরিবর্তন ঘটছে না।

বিষয়টি নিয়ে কথা হয় অর্থনীতিবিদ এবং সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড. এ বি মির্জ্জা আজিজুল ইসলামের সাথে। পুঁজিবাজারের এমন দুরাবস্থার জন্য ব্যাংকিং খাতের নানা সংকটকেই দায়ী করছেন তিনি। বলেন, ক্রমবর্ধমান শ্রেণীকৃত ঋণ, তারল্য সংকট, ব্যাংকের উপর সাধারণ মানুষের আস্থা কমে গেছে তার একট প্রমাণ হচ্ছে ব্যাংকিং খাতে আমানতের প্রবৃদ্ধির হার কমে যাচ্ছে। বেসরকারি খাতেও ঋণের প্রবৃদ্ধি অনেক কমে গেছে। কারণ ব্যাংকিং খাতের লাভ আসে ঋণের মাধ্যমে এবং কতটুকু ঋণ দিতে পারবে সেটা নির্ভর করে আমানতের উপর।

বাংলাদেশ সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ সিদ্দিকী বলেন, 'তারল্যটা আসতে হবে ব্যাংক থেকে, ব্যাংক থেকেই যেটা সারপ্রাইজ মানি সেটা পুজিঁবাজারে আসবে। এখন ব্যাংকের অবস্থা এরকম সরকারের একটা ঋণ বেড়েই গেছে, ব্যাংকের ডিফলডার অনেক বেড়ে গেছে। ব্যাংকের ইমেজ কালচারের একটা সমস্যা হয়ে গেছে।'

বাজারে দেশি-বিদেশি ভালো প্রতিষ্ঠান না থাকার বিষয়টিও তুলে ধরেন এই দুই বিশেষজ্ঞ। সেইসাথে সরকারের প্রতি পরামর্শ, পুঁজিবাজার চাঙ্গা করতে কার্যকরী নীতিমালা গ্রহণের।  

মুদ্রা পাচার, ব্যাংকিং খাতের সংকট এবং পুঁজিবাজারের পতন একটি আরেকটির সাথে পত্যক্ষভাবে জড়িত বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর