channel 24

সর্বশেষ

  • চলে গেলেন হেফাজতের আমির আল্লামা শফী

  • মানিকগঞ্জে শ্রমিক জুলহাসকে পায়ুপথে বাতাস দিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

  • বাশের চেয়ে কঞ্চি বড়!

  • নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত ১

  • মাগুরায় দুই বাস-মাইক্রোবাসের ত্রিমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৪

  • রংপুরে একই বাড়ি থেকে দুই বোনের মরদেহ উদ্ধার

  • বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা সফর: বিসিবির চিঠির উত্তর দেয়নি এসএলসি

  • ক্রিকেটারদের দ্বিতীয় ধাপের করোনা পরীক্ষা শুরু

  • পচাত্তরের কুশীলবরা এখনো আশপাশে ওৎ পেতে আছে: শ ম রেজাউল

  • দেশে করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্য, শনাক্ত ১৫৪১

  • ইসরায়েলের সাথে আরব রাষ্ট্রের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার উদ্যোগের প্রতিবাদ

  • পেঁয়াজের দামে লাগাম টানার চেষ্টা, বিভিন্ন বাজারে অভিযান

  • পা হারালেও মনোবল হারাননি ইউনুছ, অটোরিকশা চালিয়ে হাল ধরেছেন সংসারের

  • ঢাকা শহরে কোনো অবৈধ বিলবোর্ড থাকবে না: মেয়র আতিক

  • দুর্গা পূজায় সরকারি ছুটি ৩ দিন করার দাবি হিন্দু মহাজোটের

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার 'সীমান্ত হাটে' চলছে অসম বেচাকেনা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার 'সীমান্ত হাটে' চলছে অসম বেচাকেনা

ভারত-বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের নিয়ে গড়ে উঠা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সীমান্ত হাটে চলছে অসম বেচাকেনা। চলতি বছর ভারতীয় পণ্য বিক্রি হয়েছে প্রায় চার কোটি টাকার। এর বিপরিতে বাংলাদেশি পণ্য বিক্রির পরিমাণ মাত্র ৫৪ লাখ টাকা। এতে ক্ষতির মুখে দেশীয় ব্যবসায়ীরা। ভারতীয় ক্রেতাদের চাহিদা বুঝে পণ্য বিক্রির পরিকল্পনা নেয়ার পরামর্শ দিয়েছে বর্ডার হাট কমিটি।

২০১৫ সালে ভারত-বাংলাদেশ যৌথ মালিকানায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা সীমান্তে শুরু হয় 'সীমান্ত হাট'।শুরু থেকেই এ হাটে নিজ দেশের ১৫ থেকে ১৬টি পণ্য বিক্রি করছেন দুই দেশের ৫০ জন ব্যবসায়ী। শুরুতে বাজার চাঙ্গা থাকলেও এখন মন্দার দিকেহাটের বাণিজ্য।

ব্যবসায়ীরা জানান, বেশিরভাগ দোকানদার সারাদিন মশা মারে। আলটিমেটলি দুইটাকে যদি তুলনা করে বিচার করা হয় তাহলে দেখা যায় ইন্ডিয়ার যদি ১০ লক্ষ টাকা বিক্রি হয় তাহলে আমাদের ১ লক্ষ টাকাও বিক্রি হয় না। ওরা লোকজন কম ছাড়তেছে, আর আমাদের লোকজন বেশি হচ্ছে। ইন্ডিয়ার লোক আসে ২৫০ এর মতো আর আমাদের বাংলাদেশি লোক আসে প্রায় ১০০০।

এ বছরে ‌হাটটিতে ভারতীয় পণ্য বিক্রি হয়েছে প্রায় ৪ কোটি টাকার। যেখানে বাংলাদেশের পণ্য বিক্রি হয়েছে মাত্র ৫৩ লাখ টাকার। এমন অসম বিক্রির ফলে বিপাকে দেশীয় ব্যবসায়ীরা।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া বর্ডার হাট কমিটির সভাপতি শামসুজ্জমান বলেন, যে সকল প্রোডাক্ট ইন্ডিয়ায় চাহিদা রয়েছে সেগুলো যেন ব্যবসায়ীরা তাদের দোকানে সাজায় সে ব্যাপারে আমার তাদের সাথে আলোচনা করবো।
 
ভারতীয় ক্রেতাদের চাহিদা বুঝে পণ্য বিক্রির পরিকল্পনা নেয়ার পরামর্শ দিয়েছে বর্ডার হাট কমিটি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর