channel 24

সর্বশেষ

  • রাষ্ট্রীয় ব্যস্ততার কারণেই ভারত যাননি স্বরাষ্ট্র-পররাষ্ট্রমন্ত্রী: কাদের

  • খালেদা জিয়াকে জামিন না দেয়ার সিদ্ধান্ত আদালতের নয়, সরকারের: রিজভী

  • কেরাণীগঞ্জের প্লাস্টিক কারখানার অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আরও ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • ব্রিটেনের নির্বাচনে টিউলিপসহ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারীর জয়

  • যুক্তরাজ্যে নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেল কনজারভেটিভ পার্টি

সঞ্চয়পত্রের বিক্রি কমলেও সুফল মিলছে না ব্যাংক খাতে

সঞ্চয়পত্রের বিক্রি কমলেও সুফল মিলছে না ব্যাংক খাতে

মাত্র এক বছরের ব্যবধানে সঞ্চয়পত্রের বিক্রি কমেছে ৬৫ ভাগ। তবে ব্যাংক খাতে এখনও এর সুফল দেখা যাচ্ছে না। ইতিবাচক প্রভাব পড়েনি আমানতের প্রবৃদ্ধিতেও। ব্যাংকাররা বলছেন, আরও কিছুদিন পর এর প্রভাব দেখা যাবে।

মধ্যবিত্ত, অবসরভোগীর দোহাই দিয়ে সঞ্চয়পত্রের মুনাফা নিয়েছে উচ্চবিত্তের একটি বড় অংশ। যার প্রমাণ মেলে সঞ্চয়পত্র কিনতে জাতীয় পরিচয়পত্রের বাধ্যবাধকতা আরোপের মাত্র ১ বছরের ব্যবধানে এর বিক্রি তিন ভাগের এক ভাগে নেমে আসার মধ্য দিয়ে। চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) ৪ হাজার ৭০০ কোটি টাকার সঞ্চয়পত্র বিক্রি হয়েছে। অথচ আগের অর্থবছরের একই সময়ে এই বিক্রির পরিমাণ ছিলো ১৩ হাজার ৪১২ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, মানুষের চিন্তা চেতনায় পরিবর্তন আসায় লেনেদেনের ধরণের ক্ষেত্রেও পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

সঞ্চয় পরিদপ্তরের পরিসংখ্যান বলছে, গত ১০ বছরের মধ্যে সঞ্চয়পত্র বিক্রি কমে যাওয়ার প্রবণতা এবারই প্রথম।

অগ্রণী ব্যাংকের এমডি মো.শামস-উল ইসলাম জানান, সঞ্চয়পত্র কেনার ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলকভাবে এনআইডি ও টিআইএন থাকা, ব্যাংক হিসাব খোলা, অনলাইনে আবেদন করা এবং অর্থের উৎস সম্পর্কে বিবরণ দেওয়া- এই চার কারণেই কমেছে সঞ্চয়পত্রের বিক্রি।

মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের এমডি সৈয়দ মাহবুবুর রহমান বলেন, সঞ্চয়পত্রের মাধ্যমে সরকারের ঋণ নেয়ার প্রবণতা কমেছে। তাই স্বাভাবিকভাবেই বাড়ছে ব্যাংক থেকে ঋণ নেয়ার পরিমাণ। এতে বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ কমলেও সরকারি বিল-বন্ডের সুদহার কিছুটা বাড়বে। যা ব্যাংকখাতের বর্তমান অবস্থা বিবেচনায় স্বস্তিদায়ক। তবে শুধুমাত্র ব্যাংক নির্ভর না হয়ে বিকল্প উৎস খোঁজার পরামর্শ দেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর