channel 24

সর্বশেষ

  • রিজেন্ট হাসপাতাল ও জেকেজি সম্পর্কে জানা ছিল না: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

  • রিজেন্ট চেয়ারম্যান সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ

  • লাভের আশায় গরু পালন করে দাম নিয়ে দুশ্চিন্তায় খামারীরা

  • আগামী মাসে মাঠে গড়াচ্ছে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ

  • আবারও মনোবিদ আজহার আলীর ওপর আস্থা বিসিবির

  • আগস্টের প্রথম সপ্তাহ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফুটবল দলের আবাসিক ক্যাম্প

  • সাউদাম্পটন টেস্টে ৯৯ রানে পিছিয়ে ইংল্যান্ড

  • বিএফডিসিতে অসহায় শিল্পীদের সহায়তা করলেন অনন্ত-বর্ষা

  • সিলেটে বিষ খাইয়ে হত্যাচেষ্টা, মা-ছেলে কারাগারে

  • কুমিল্লায় ব্যবসায়ী আকতার হত্যার ঘটনায় মামলা

  • সাংবিধানিক কারণেই করোনার মধ্যে উপনির্বাচন: সিইসি

  • বানের জলে ডুবছে লোকালয়; সুরমা উপচে তলিয়েছে সুনামগঞ্জ শহর

  • এখনও অধরা রিজেন্ট কাণ্ডের নাটের গুরু সাহেদ

  • সাংবাদিকদের মাঝে করোনাকালীন সহায়তার চেক বিতরণ

  • অনলাইন থেকে গরু কিনলেন তিন মন্ত্রী

কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না পেঁয়াজের বাজার

কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না পেঁয়াজের বাজার

কোনো কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না পেঁয়াজের বাজার। রাজধানীতে স্থান ও মানভেদে পাইকারিতে বিক্রি হচ্ছে ১৯৫ থেকে ২২০ টাকা দরে। অতিরিক্ত এই দাম নিয়ে অস্বস্তিতে ক্রেতা-বিক্রেতা দুপক্ষই। বাজার নিয়ন্ত্রণে রাজধানীসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়েছে প্রশাসন। তবে ব্যবসায়ীরা বলছেন, আমদানি ও নতুন পেঁয়াজ বাজারে এলে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হবে।

আশ্বাস কিংবা অভিযান কোনো কিছুতেই লাগাম টানা যাচ্ছে না পেঁয়াজের দামের। শুরুটা পয়লা অক্টোবর থেকে। একশো ছোঁয় পণ্যটির দর। এরপর ৩১ অক্টোবর ১৬০, ১৩ নভেম্বর ১৯০ এবং ১৪ নভেম্বর থেকে দুই শতকের ঘরে পা দেয় পেঁয়াজ।

দাম বাড়ার কারণ হিসেবে স্বল্প মজুদের কথা বলা হলেও নতুন করে আমদানি শান্ত করতে পারেনি এ অশান্ত পেঁয়াজকে। নিয়ন্ত্রণহীন এ বাজার সামাল দেয়ার জন্য কাজ করেনি কোন পদ্ধতিও।

দাম বৃদ্ধির কারণে ক্রেতাদের পাশপাশি অস্বস্তিতে পাইকারি বিক্রেতারাও। তাদের দাবি, অতিরিক্ত এ দামের কারণে হুমকির মুখে তাদের ব্যবসা। যদি নতুন করে আমদানি শুরু না হয় তাহলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে না বলে দাবি তাদের।

পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে শুরু হয়েছে অভিযান। রাজধানীর পাশাপাশি জেলা শহরগুলোতেও চলছে কড়া নজরদারি।

অভিযান পরিচালনাকারীদের দাবি ভোক্তা অধিকার যাতে ক্ষুন্ন না হয় সেজন্য কাজ করছে প্রশাসন। আর কৃত্রিম মজুদ কারিদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখার ঘোষণাও দেন তারা।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মনজুর মো. শাহরিয়ার জানান,  বাজার নিয়ে যেন কেউ কারসাজি করতে না পারে, সে জন্য বাজার মনিটরিং করা হয়।

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে নতুন দেশি পেঁয়াজ বাজারে আসার পাশাপাশি আমদানি বৃদ্ধি পেলে পরিস্থিতি স্বাভাবিকের আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর