channel 24

সর্বশেষ

  • করোনা চিকিৎসায় হাইড্রোক্সি-ক্লোরোকুইন বন্ধের পরামর্শ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

  • করোনা যুদ্ধে নিকরোনা যুদ্ধে নিজেদের জয়ী বলে দাবি ট্রাম্পেরজেদের জয়ী বলে দাবি ট্রাম্পের

  • ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে ঘানার প্রেসিডেন্ট

  • করোনায় বিশ্বে একদিনে সর্বোচ্চ ২ লাখ ১২ হাজারের বেশি আক্রান্ত

  • সাবেক অর্থমন্ত্রী ওয়াহিদুল হকের মৃত্যু

  • বাসা ভাড়া ও পানির দাম বৃদ্ধি এবং রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধের প্রতিবাদ

  • বাংলাদেশ-আফগানিস্তানের বিশ্বকাপ বাছাই ম্যাচের ভেন্যু সিলেট

  • মেসির বার্সেলোনা ছাড়ার গুঞ্জন জোরালো হচ্ছে

  • এক মাসের মধ্যে ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরানোর পরিকল্পনা বিসিবির

  • ঢাবির গবেষণা ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রের উন্নয়নে সহায়তা করবে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন: এ কে আজাদ

  • দ্বিতীয় দফা পরীক্ষাতেও করোনা পজিটিভ মাশরাফীর

  • ভুতুড়ে বিদ্যুৎবিল কাণ্ডে ডিপিডিসির ৪ প্রকৌশলী বরখাস্ত; ৩৬ জনকে শোকজ

  • চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

  • বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনে উপনির্বাচন ১৪ জুলাই

  • চট্টগ্রামে গৃহকর্মীর মরদেহ উদ্ধার, ভবন মালিকসহ আটক ২

জনগণকে কর দেয়ায় উৎসাহিত করাই আয়কর মেলার মূল দর্শন

জনগণকে কর দেয়ায় উৎসাহিত করাই আয়কর মেলার মূল দর্শন

স্বনির্ধারনী পদ্ধতিতে জনগণকে কর দেয়ায় উৎসাহিত করাই আয়কর মেলার মূল দর্শন। পাশাপাশি কর দেয়ায় মানুষের মধ্যে যে ভীতি তাও অনেকটা কাটাতে সহায়তা করছে এই মেলা। যা কর কর্মকর্তাদেরও জনগণকে সেবা দেয়ার মানসিকতা গড়তেও সহায়তা করছে। চ্যানেল টুয়েন্টিফোরকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এসব তথ্য জানান এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

১৬ কোটি মানুষের দেশ কর দেয়ার সক্ষমতা আছে ৪ কোটির। অথচ প্রত্যক্ষ করদাতার সংখ্যাটা খুবই নগন্য। এর প্রধান কারণ হিসেবে এনবিআর বলছে, মানুষের মধ্যে কর ভীতি, হয়রানি এবং সচেতেনতার অভাব। এসব বিষয়কে মাথায় রেখেই আয়কর মেলা আয়োজনের করে আসছে এনবিআর। ফলাফল প্রতিবছরই কিছুটা হলেও বাড়ছে করদাতার সংখ্যা।

এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া বলেন, সেখানে প্রত্যেকের একটা শক্ত মনোবল নিয়ে আসেন। মানুষের মধ্যে আস্তে আস্তে কর প্রদানের ভীতি চলে যাচ্ছে। আর আমার অফিসারদেরো আমি উদ্বুদ্ধ করি যে তোমতা মেলাতে যেই সার্ভিস দিচ্ছা অফিসেও সেই সার্ভিস তোমাদের দিতে হবে।

এনবিআর চেয়ারম্যান মনে করেন, আয়কর দেয়া এখন অনেক সহজ। মেলা করদাতাদের স্বনির্ধারণী পদ্ধতিতে আয়কর দিতে উৎসাহিত করছে। তিনি বলেন, আস্তে আস্তে আমাদের দেশে স্বনির্ধারণ পদ্ধতির মাধ্যমে অ্যাকিউরিসি যখন চলে আসবে তখন এি সামান্য অসঙ্গতিও পাওয়া যাবে না।

কর না বাড়লে সরকারের পক্ষে নাগরিক সুবিধা বাড়ানো কঠিন হবে বলেও জানান তিনি। বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য দেশে কর, ভ্যাট এগুলি নিয়ে যত পরিশোধ করতে হয় সরকারকে আমাদের দেশে এত পরিশোধ করতে হয় না। ইউনিভার্সাল পেনশন আমাদের দেশেও চালু হবার চিন্তা-ভাবনা হচ্ছে। আমরা উন্নয়নের একটা ধাপে যখন পৌছে যাব, তখন এটাতো একটা সাধারণ ব্যাপার। আমাদের দেশে সরকার এখন ৪কোটি লোককে ভাতা দিয়ে খাওয়াচ্ছে।

এবারের মেলায় করদাতার সংখ্যা ৫ লাখ ছাড়াবে বলে আশা করছে এনবিআর।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর