channel 24

সর্বশেষ

  • বরিশালে কুয়েত প্রবাসীর বাড়ি থেকে ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার

  • বাড়ছে সিরামিক শিল্পের রপ্তানি আয়

  • চাহিদা বাড়ছে শীতের পোশাকের

  • বোমাসদৃশ্য বস্তুটি বোমা নয়, বালুভর্তি পাইপ

  • কারওয়ান বাজারে পেট্রোবাংলা ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে

  • রাতে বোর্নমাউথের আতিথ্য নেবে লিভারপুল, মায়োর্কার বার্সেলোনা

  • ময়মনসিংহে হাতে লেখা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ও স্মৃতিস্তম্ভ

  • ক্ষতিকর রাসায়নিক ছাড়াই বিভিন্ন জেলায় নিরাপদ সবজি উৎপাদন

  • মৌসুমের প্রথম ম্যানচেস্টার ডার্বি

  • মেঘনা নদীতে দুটি লঞ্চের সংঘর্ষে নিহত ১

  • দিল্লি হাসপাতালে গায়ে আগুন লাগা গণধর্ষণের শিকার তরুণীর মৃত্যু

  • সীমান্তে নজরদারি বাড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি

  • জোরপূর্বক রাস্তার খননের অভিযোগ যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে

  • কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প ঘিরে বেপরোয়া সন্ত্রাসী গোষ্ঠী

  • মিথিলাকে বিয়ে করলেন সৃজিত

মিয়ানমারের পরিবর্তে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী কোরিয়া

মিয়ানমারের পরিবর্তে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী কোরিয়া

মিয়ানমারকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী হচ্ছেন কোরিয়ান বিনিয়োগকারীরা। কোরিয়ার শিল্পপার্ক উন্নয়ন কোম্পানি-কেআইসি মিয়ানমারে দুটি শিল্পপার্ক তৈরীর কাজ করছে। তবে প্রায় ১শ বিনিয়োগকারী সেখান থেকে তৃতীয় কোন দেশে সরে যেতে যাচ্ছে। আর সেই তৃতীয় দেশ হিসেবে তাদের আগ্রহ বাংলাদেশে। বিশ্লেষকরা বলছেন, বাংলাদেশে মধ্যম আয়ের ক্রেতাদের বড় বাজার রয়েছে। পাশাপাশি বিদ্যুৎ, জমি এবং অবকাঠামো দিক থেকে আগের চেয়ে ভালো অবস্থার কারণে বিনিয়োগকারীরা আগ্রহী হচ্ছেন।

কোরিয়ার শিল্পপার্ক উন্নয়নকারী কোম্পানি কোরিয়া ইন্ডাস্ট্রিয়াল কমপ্লেক্স করপোরেশন কেআইসি। বর্তমানে মিয়ানমারে দুটি শিল্পপার্ক তৈরীর কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি।

অবাকাঠামো জটিলতার কারণে সেখানকার প্রায় ১শ বিনিয়োগকারী সরে যেতে চায় অন্য কোন দেশে। আর বিকল্প দেশ হিসেবে তাদের পছন্দের তালিকায় বাংলাদেশ।

শিল্পপার্ক করতে প্রায় ৪শ একর জমির চাহিদা কেআইসির। প্রকল্পের নাম দেয়া হয়েছে কোরিয়ান ইন্ডাস্ট্রিয়াল কমপ্লেক্স ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট ইন বাংলাদেশ। এ প্রকল্পে তারা বিনিয়োগ করতে চায় প্রায় ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকা।

বিশ্লেষকরা বলেছেন, ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালুসহ অন্যান্য জটিলতা কমালে আরো অনেকেই বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী হবে। বিদেশী বিনিয়োগ আকর্ষণে সব সময় বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে ছিল মিয়ানমার। তবে ২০১৮ সালে মিয়ানমারকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর