channel 24

সর্বশেষ

  • করোনায় অধ্যাপক ডা. এস এ এম গোলাম কিবরিয়ার মৃত্যু

  • এখনও বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র, ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে মামলা

  • খুলনার উপকূলীয় অঞ্চলে বসবাস ঝুঁকিপূর্ণ হলেও স্থানান্তরের উদ্যোগ নেই

  • চট্টগ্রামে সমন্বয়হীনতার কারণে হ-য-ব-র-ল অবস্থা স্বাস্থ্যখাতে

  • বাড়ছে মোবাইল ফোনে কথা বলার খরচ

  • বজ্রপাতে সারা দেশে নিহত ২২

  • করোনার কারণে এ মাসেও শুরু হচ্ছে না এইচএসসি পরীক্ষা

  • জাতিসংঘের পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড পেলো ভূমি মন্ত্রণালয়

  • পুলিশ-চিকিৎসকসহ দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল

  • করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা যাবে ১ মিনিটেই!

  • করোনা থেকে বাঁচতে প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই উত্তম: প্রধানমন্ত্রী

  • সড়কে যানবাহনের চাপ বাড়লেও রেল ও নৌপথে যাত্রী কম

  • বরিশালে ইমামকে জুতার মালা পরিয়ে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা

  • করোনায় অনিশ্চিত এ বছরের হজযাত্রা

  • করোনায় মারা গেছেন রানা প্লাজার মালিক আব্দুল খালেক

সপ্তাহ জুড়ে পতনের ধারাবাহিকতায় দেশের পুঁজি বাজার

সপ্তাহ জুড়ে পতনের ধারাবাহিকতায় দেশের পুঁজি বাজার

সেপ্টেম্বর মাসে দেশের পুঁজিবাজারে সূচকের বেশ উত্তান-পতন থাকলেও অক্টোবর মাসের শুরুটা ছিলো নিম্নমুখী ধারায়। তবে মাসের তৃতীয় সপ্তাহে কিছুটা বাড়ে ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক। আর মাসের শেষ দিকে আবারো সূচক পতনের সেই পুরোনো চিত্র।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক কমেছে ৯০ পয়েন্ট। তবে গড় লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক কমেছে ৩০৯ পয়েন্ট, কমেছে গড় লেনদেনও। অধিকাংশ শেয়ারের দাম কমেছে দুই স্টক এক্সচেঞ্জেই।

বছরের শুরু থেকেই বেশ অস্থিতিশীল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ- ডিএসইর সূচক। অধিকাংশ সময়েই দেখা গেছে বড় পতন। এরই মাঝে ইতিবাচক ধারাও দেখা গেছে বিভিন্ন সপ্তাহে। সে ধারাবাহিকতায় টানা ৩ সপ্তাহে পতনের পর চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ শেষ হয় সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারায়।

অক্টোবর মাসের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ৩০ পয়েন্ট বেড়ে গেলো সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস শুরু হয় ৪ হাজার ৭১২ পয়েন্টে। দ্বিতীয় দিনে কমে ৩৪ পয়েন্ট। আর পরের ৩ কার্যদিবসে মোট ৯৩ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শেষ হয় ৪ হাজার ৭৭১ পয়েন্টে, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ৮৯ পয়েন্ট বেশি।

সূচক বাড়লেও কমে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৩২৫ কোটি টাকা। সপ্তাহের সর্বনিম্ন ২৬৯ কোটি টাকা লেনদেন হয় সোমবার। সর্বোচ্চ ৩৮৫ কোটি টাকা লেনদেন হয় বুধবার। আগের সপ্তাহের চেয়ে কিছুটা কমে গড় লেনদেন হয় ৩৩১ কোটি টাকা।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ- সিএসইতেও সপ্তাহজুড়ে সূচকের উত্থান-পতনে ডিএসইকে অনুসরণ করে। আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ৭৯ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শুরু হয় ১৪ হাজার ৩শ পয়েন্টে। দ্বিতীয় দিনে কমে ৭৫ পয়েন্ট। আর পরের ৩ কার্যদিবসে ২৫৮ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শেষ হয় ১৪ হাজার ৪৮৩ পয়েন্টে, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ২৬২ পয়েন্ট বেশি।

সূচকের সাথে বাড়ে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয় ১৫ কোটি টাকা। সপ্তাহের সর্বনিম্ন ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয় সোমবার। সর্বোচ্চ ৯০ কোটি টাকা লেনদেন হয় বৃহস্পতিবার। সপ্তাহের ব্যবধানে কিছুটা বেড়ে গড় লেনদেন হয় ৩০ কোটি টাকা।

লেনদেন হওয়া শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে ২০৮টির দাম বাড়ার বিপরীতে কমে ৭৫টির। আর অপরিবর্তিত ছিলো ২৫টির দাম।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর