channel 24

সর্বশেষ

  • কেউ অন্ধকারে থাকবে না, মুজিববর্ষে সব ঘরে আলো জ্বলবে: প্রধানমন্ত্রী...

  • বিদ্যুৎ অপচয় না করে, ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার আহবান

  • রেলের দুর্বলতা চিহ্নিত করে সমাধানের চেষ্টা করা হবে...

  • কোনো কিছুই গোপন করা হবে না: রেলমন্ত্রী

  • বেপরোয়া আচরণে সড়কের মতো দুর্ঘটনা রাজনীতিতেও ঘটতে পারে: কাদের

  • দ্রুত বিচার আইনে আবরার হত্যা মামলার বিচার সম্পন্ন হবে: আইনমন্ত্রী

  • ভিসির অপসারণ দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ চলছে

  • গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি...

  • নাসিরউদ্দিনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুদক

  • বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যা: ২৫ জনকে আসামি করে চার্জশিট জমা...

  • হত্যায় সরাসরি অংশ নেয় ১১ জন; ১৪ জনের ঘটনায় সম্পৃক্ততা...

  • পলাতক ৪ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন...

  • মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়সহ হল প্রশাসনের ব্যর্থতা রয়েছে: মনিরুল ইসলাম

সপ্তাহ জুড়ে পতনের ধারাবাহিকতায় দেশের পুঁজি বাজার

সপ্তাহ জুড়ে পতনের ধারাবাহিকতায় দেশের পুঁজি বাজার

সেপ্টেম্বর মাসে দেশের পুঁজিবাজারে সূচকের বেশ উত্তান-পতন থাকলেও অক্টোবর মাসের শুরুটা ছিলো নিম্নমুখী ধারায়। তবে মাসের তৃতীয় সপ্তাহে কিছুটা বাড়ে ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক। আর মাসের শেষ দিকে আবারো সূচক পতনের সেই পুরোনো চিত্র।

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক কমেছে ৯০ পয়েন্ট। তবে গড় লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক কমেছে ৩০৯ পয়েন্ট, কমেছে গড় লেনদেনও। অধিকাংশ শেয়ারের দাম কমেছে দুই স্টক এক্সচেঞ্জেই।

বছরের শুরু থেকেই বেশ অস্থিতিশীল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ- ডিএসইর সূচক। অধিকাংশ সময়েই দেখা গেছে বড় পতন। এরই মাঝে ইতিবাচক ধারাও দেখা গেছে বিভিন্ন সপ্তাহে। সে ধারাবাহিকতায় টানা ৩ সপ্তাহে পতনের পর চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ শেষ হয় সূচকের ঊর্ধ্বমুখী ধারায়।

অক্টোবর মাসের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ৩০ পয়েন্ট বেড়ে গেলো সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস শুরু হয় ৪ হাজার ৭১২ পয়েন্টে। দ্বিতীয় দিনে কমে ৩৪ পয়েন্ট। আর পরের ৩ কার্যদিবসে মোট ৯৩ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শেষ হয় ৪ হাজার ৭৭১ পয়েন্টে, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ৮৯ পয়েন্ট বেশি।

সূচক বাড়লেও কমে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৩২৫ কোটি টাকা। সপ্তাহের সর্বনিম্ন ২৬৯ কোটি টাকা লেনদেন হয় সোমবার। সর্বোচ্চ ৩৮৫ কোটি টাকা লেনদেন হয় বুধবার। আগের সপ্তাহের চেয়ে কিছুটা কমে গড় লেনদেন হয় ৩৩১ কোটি টাকা।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ- সিএসইতেও সপ্তাহজুড়ে সূচকের উত্থান-পতনে ডিএসইকে অনুসরণ করে। আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ৭৯ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শুরু হয় ১৪ হাজার ৩শ পয়েন্টে। দ্বিতীয় দিনে কমে ৭৫ পয়েন্ট। আর পরের ৩ কার্যদিবসে ২৫৮ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শেষ হয় ১৪ হাজার ৪৮৩ পয়েন্টে, যা আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের চেয়ে ২৬২ পয়েন্ট বেশি।

সূচকের সাথে বাড়ে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয় ১৫ কোটি টাকা। সপ্তাহের সর্বনিম্ন ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয় সোমবার। সর্বোচ্চ ৯০ কোটি টাকা লেনদেন হয় বৃহস্পতিবার। সপ্তাহের ব্যবধানে কিছুটা বেড়ে গড় লেনদেন হয় ৩০ কোটি টাকা।

লেনদেন হওয়া শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে ২০৮টির দাম বাড়ার বিপরীতে কমে ৭৫টির। আর অপরিবর্তিত ছিলো ২৫টির দাম।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর