channel 24

সর্বশেষ

  • বিচারপতিদের শপথ ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে; ফুল কোর্ট সভা বাতিল

  • লিবিয়ায় নিহত ২৬ বাংলাদেশির মধ্যে ২৩ জনের পরিচয় মিলেছে

  • 'আদালতের অনুমতি ছাড়া মোরশেদ খানের বিদেশ যাওয়া আইন সিদ্ধ হয়নি'

  • ছেলে সন্তানের বাবা হয়েছেন আশরাফুল

  • শ্বেতাঙ্গ পুলিশের নৃশংসতায় ৯ রাজ্যে বিক্ষোভ; ৪ পুলিশ অফিসার বরখাস্ত

  • মাটিতে পুঁতে রাখার ১১ মাস পর ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

  • মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও সিরি আ

  • সোমবার থেকে চলবে গণপরিবহন, রোববার নৌযান

  • জন্মের মাত্র একদিনের মাথায় প্রাণঘাতী করোনার সাথে যুদ্ধ

  • লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গুলি করে হত্যা, আহত ১১

  • কর্মস্থলে যোগ দিতে চট্টগ্রামে ফিরছে মানুষজন

  • পার্বত্য জেলাগুলোতে সেনাবাহিনীর খাদ্য সহায়তা অব্যাহত

  • করোনা চিকিৎসায় চট্টগ্রামের বেসরকারি হাসপাতালগুলো পুরোপুরি তৎপর নয়

  • কুষ্টিয়ায় করোনা রোগীদের সেবায় একদল স্বেচ্ছাসেবী

  • চট্টগ্রামে নতুন করে ২‘শ ২৯ জন করোনায় আক্রান্ত

রাজধানীতে ব্যাচেলরদের নতুন ঠিকানা সুপার হোস্টেল

রাজধানীতে ব্যাচেলরদের নতুন ঠিকানা সুপার হোস্টেল

বাড়িভাড়া নিয়ে বিড়ম্বনার গল্প আছে হাজারো। আর ব্যাচেলর হলে, ভাড়া পাওয়াই দায়। এছাড়া, বেশিরভাগ মেস বা হোস্টেলে নেই মানসম্মত পরিবেশ। ঢাকায় এসে কয়েকবছর আগে, এমন বিড়ম্বনায় পড়েছিলেন, এক চীনা নাগরিক। তবে, এই সমস্যাই তাকে দিয়েছে নতুন ব্যবসার ধারণা। গড়ে তুলেছেন ব্যাচেলরদের জন্য ভিন্নধর্মী হোস্টেল। যেখানে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের অত্যাধুনিক সুযোগ সুবিধা।

তিলোত্তমা কিংবা মেগাসিটি যে নামেই ডাকা হোক না কেন, রাজধানী ঢাকায় প্রতিদিন নানা কারণে যুক্ত হচ্ছেন, ১৭শরও বেশি মানুষ। প্রায় পৌনে দুই কোটি মানুষের এ নগরে, যাদের বড় সংকট আবাসন।

আর সেই সংকটেই সম্ভাবনা দেখছেন দুই চীনা উদ্যোক্তা। ব্যাচেলরদের আবাসিক সমস্যা সমাধানে, চালু করেছেন আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন সুপার হোস্টেল।

বাড্ডা এলাকায় এই সুপার হোস্টেলটির নাম নিউইয়র্ক-7। গ্রাহকদের আকৃষ্ট করতে বিভিন্ন এলাকায় নিউইয়র্ক-3 থেকে 8 নামে খোলা হয়েছে এমন ছয়টি শাখা। যার একটি কেবল নারীদের জন্য।   

ভবনের ভেতরে ঢুকলে, প্রথমেই চোখে পড়বে এই লবি। যেখানে সময় কাটাতে পারেন এখানকার বাসিন্দারা। অতিথি এলে এখানেই রয়েছে সাক্ষাতের সুযোগ। তাছাড়াও কেউ গান-বাজনার অনুশিলনও চাইলে করতে পারে লবিতে।

লবির বাইরে রয়েছে মোটরসাইকেল পার্কিং সুবিধা। তার পাশেই ডাইনিং রুম। তিন বেলা খাবারের ব্যবস্থা থাকলেও, চাহিদা বেশি রাতেই। রয়েছে স্বয়ংক্রিয় মেশিনে প্রতিদিন এক সেট কাপড় পরিষ্কারের সুযোগ।  

একটি ফ্ল্যাটে রয়েছে একাধিক রুম। যার প্রতিটিতে তিন তলা বিছানায়, ৬ থেকে ৯ জনের থাকার ব্যবস্থা। প্রতিটি বিছানায় আছে আলাদা পর্দা, লাইট এবং লকার। ভবনের বেশিভাগ অংশই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। নজর রাখা হয়, নিয়মিত পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার দিকেও।  

ছাদে রয়েছে ব্যায়ামাগার। স্ট্যান্ডার্ড শ্রেণিরটিতে এসি না থাকলেও, রয়েছে বিজনেসে। বিনোদনের জন্য রয়েছে খেলাধুলার ব্যবস্থাও।

নেলসন ঝাং ও জিমি ঝাং-দুই বন্ধুর হাত ধরে ২০১৭ সালে ঢাকা যাত্রা শুরু করে এই সুপার হোস্টেল।

জিমি ঝাং বলেন, কয়েকবছর আগে ঢাকায় এসে বন্ধুদের সাথে মেসগুলোতে আমি গিয়েছি। যেগুলোর পরিবেশ খুবই নোংরা। ব্যাচেলর হওয়ায় বাসা খুঁজতে গিয়ে পড়তে হয় সমস্যায়। সবার একটাই প্রশ্ন বিবাহিত কিনা। দুবছর এ সমস্যা নিয়ে গবেষণা করে, এই হোস্টেল চালুর সিদ্ধান্ত নেয়। এখন বেশ সাড়া পাচ্ছি। পরিকল্পনা আছে অন্তত ১শ টি শাখা গড়ে তোলার।

ভারতের মুম্বাইয়েও এমন হোস্টেল চালুর পরিকল্পনা রয়েছে তাদের।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর