channel 24

সর্বশেষ

  • লঙ্কান ঘাটিতে প্রথম আঘাত মিরাজের

  • ঈদকে সামনে রেখে ঝুঁকি নিয়ে দোকান খুলছেন গোপালগঞ্জের ব্যবসায়ীরা

  • একক দেশের সাথে ভ্যাকসিনের চুক্তি ছিল বোকামি

  • করোনার দুঃসময়ে অসুস্থতার প্রতি মুহূর্ত কাটে অজানা আতঙ্কে

  • বোরোর ফলন ভালো হলেও শ্রমিক সংকটে দুঃশ্চিন্তায় সুনামগঞ্জ ও নওগাঁর কৃষকরা

  • ২৫ এপ্রিল খুলছে দোকানপাট ও শপিংমল

  • করোনায় খেয়ে না খেয়ে দিন কাটছে পথশিশুদের

  • ভারতে ভয়াবহ হচ্ছে করোনা পরিস্থিতি, ভেঙ্গে পড়েছে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা

  • ক্যান্ডিতে ৫০০ রানের কোটা পেরিয়েছে বাংলাদেশ

  • নানা সংকটে নাটোর সদর হাসপাতাল, নেই আইসিইউ ও সেন্ট্রাল অক্সিজেন

  • ধর্ষণ মামলার পর আত্মগোপনে বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি

  • চট্টগ্রামে ব্যাংক কর্মকর্তার আত্মহত্যা: বিচার না পাওয়ার শঙ্কায় স্বজনরা

  • মেসির জোড়া গোলে গোল উৎসব কাতালানদের

  • ৩০ এপ্রিল মাঠে ফিরছে দেশের ফুটবল

  • নারায়ণগঞ্জে গ্যাস লিকেজ থেকে আগুনে শিশুসহ দগ্ধ ১১

গত সপ্তাহে সূচকের নিম্নমুখী ধারায় ছিল দুই পুঁজিবাজার

গত সপ্তাহে সূচকের নিম্নমুখী ধারায় ছিল দুই পুঁজিবাজার

আবারো সূচকের নিম্নমুখী ধারা ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ- ডিএসইতে। প্রথম কার্যদিবসে প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ছিলো, ৫ হাজার ২শ ৭৩ পয়েন্ট। পরের তিন কার্যদিবসে সূচক ছিলো নিম্নমুখী। তবে বৃহস্পতিবার ৩৪ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শেষ হয়, ৫ হাজার ২শ ৩০ পয়েন্টে; যা আগের সপ্তাহের চেয়ে ৪৫ পয়েন্ট কম।

সূচকের সাথে কমেছে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয়, সপ্তাহের সর্বোচ্চ ৩শ ৫৮ কোটি টাকা। সপ্তাহের সর্বনিম্ন ২শ ৫১ কোটি টাকা লেনদেন হয় মঙ্গলবার। পরের দুই কার্যদিবসে বাড়ে লেনদেন।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বাড়ে ১২২টির; কমে ১৯৫টির। আর অপরিবর্তিত ছিলো ৩৩টির দর। সপ্তাহের ব্যবধানে ১৩৬ কোটি টাকা কমে গড় লেনদেন নামে, ২শ ৯২ কোটি টাকায়।

ডিএসইতে দাম বাড়ার শীর্ষে ছিল - ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড, এলআর গ্লোবাল বাংলাদেশ, মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওয়ান, ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড, পপুলার লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড।

আর দাম কমার শীর্ষে ছিল - এস.এস. স্টিল লিমিটেড, ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিং স্টেশন লিমিটেড, দুলামিয়া কটন স্পিনিং মিলস লিমিটেড, এসকোয়ার নিট কম্পোজিট লিমিটেড, ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড

এদিকে, সূচকের নিম্নমুখী ধারা ছিলো চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ- সিএসইতেও। প্রথম কার্যদিবসে সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ছিলো ১৬ হাজার ১শ ৭৩ পয়েন্ট। পরের ৩ কার্যদিবসে সূচক কমে, মোট ২৬১ পয়েন্ট। তবে বৃহস্পতিবার ৮৯ পয়েন্ট বেড়ে সপ্তাহ শেষ হয়, ১৬ হাজার ১ পয়েন্টে যা আগের সপ্তাহের চেয়ে ১৮৫ পয়েন্ট কম।

সূচকের সাথে কমেছে গড় লেনদেন। প্রথম কার্যদিবসে লেনদেন হয় সপ্তাহের সর্বোচ্চ ২২ কোটি টাকা। সপ্তাহের সর্বনিম্ন ১১ কোটি টাকা লেনদেন হয় বুধবার।

সিএসইতে লেনদেন হওয়া শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দাম বাড়ে ৯৯টির, কমে ১৬৭টির। অপরিবর্তিত ছিল ২০টির দাম। আগের সপ্তাহের তুলনায় ৬ কোটি টাকা কমে গড় লেনদেন হয় ১৬ কোটি টাকা। দুই স্টক এক্সচেঞ্জেই কমেছে অধিকাংশ শেয়ারের দাম।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

বিজনেস 24 খবর