channel 24

সর্বশেষ

  • খালেদা জিয়ার মুক্তিতে দলীয়ভাবে ব্যর্থ হয়ে...

  • বিএনপি সরকারের ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে: সেতুমন্ত্রী

  • সমঝোতা নয়, আইনি পথেই খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে: মওদুদ

  • মানহানির ২ মামলায় হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার ৬ মাসের জামিন

  • মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি বন্ধ ও ধ্বংসের নির্দেশ হাইকোর্টের...

  • একমাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ

  • শেষ ধাপে ২০ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে...

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নাসিমার বাড়িতে দুর্বৃত্তের অগ্নিসংযোগ...

  • সিরাজগঞ্জে আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ২...

  • কারচুপির অভিযোগে গাজীপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইজাদুরের ভোট বর্জন

  • বিশ্বকাপ: আফগানিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাট করছে ইংল্যান্ড

বদলে যাচ্ছে সমুদ্রের রঙ, চোখে পড়বে এ শতকের শেষেই

বদলে যাচ্ছে সমুদ্রের রঙ, চোখে পড়বে এ শতকের শেষেই

জলবায়ুর বিরুপ প্রভাবে কত কিছুই তো বদলে যাচ্ছে। এবার সেই পরিবর্তনের তালিকায় সাগর, মহাসাগরের জলের রঙ। যেই বদলটা চোখে পড়বে চলতি শতকের শেষ দিকে। তখন পৃথিবীর ৫০ ভাগ সমুদ্রের রঙে আসবে পরিবর্তন কোনো এলাকা ধারণ করবে কালচে নীল, কোনটা গাঢ় সবুজ কিংবা ভিন্ন কোনো রঙ। সেই সাথে বড় রকমের পরিবর্তন ঘটবে সমুদ্রের খাদ্য ও কার্বনচক্রে। তৈরি হবে এমনসব অজানা পরিস্থিতি যার জন্য এখনও প্রস্তুত নয় মানুষ।

বদলে যাচ্ছে সাগর মহাসাগরের রঙ। যা বোঝা যাবে এ শতকের শেষ দিকে। পৃথিবীর চারপাশে প্রদক্ষিণ করে চলা কৃত্রিম উপগ্রহের যান্ত্রিক চোখে গত দুদশকে যে তথ্য জোগাড় হয়েছে, তার ভিত্তিতেই এমন ধারণা ম্যাসাচুসেটস ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি এমআইটির একদল গবেষকের।

তবে কি থাকবেনা সমুদ্রের নীল রং কিংবা কোথাও কোথাও একটু সবুজ? এমআইটির গবেষকরা জানাচ্ছেন, পৃথিবীর অন্তত ৫০ ভাগ সমুদ্রের রং পাল্টে স্বচ্ছ নীল হবে কালচে নীল, আর সবুজ হয়ে যাবে আরো সবুজ।

মূলত জলবায়ু পরিবর্তনের ফলেই এমনটা হবে।  এ শতকের শেষ নাগাদ পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা বাড়বে অন্তত ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ফলে, ঘটবে সমুদ্রের জলের ধারায় পরিবর্তন। কিছু এলাকায় পানি হয়ে যাবে বেশি ঠান্ডা আর কিছু এলাকায় অতিরিক্ত গরম। আর তাতেই পাল্টাবে সমুদ্রের জলে থাকা 'ফাইটোপ্লাংকটনের উপস্থিতি। পালটে যাবে রঙ।

সূর্যালোক যখন সমুদ্রের জলে পড়ে তখন সূর্যরশ্মির নীল বাদে বাকি সব রংকেই পানির অনু শুষে নেয়। ফলে জল ধারণ করে নীল রং। আর যেখানকার পানিতে ফাইটোপ্লাংকট্ন থাকে তারা নীল শুষে নিয়ে বিকিরণ করে সবুজ। ফলে পানি ধারণ করে সবুজ রং।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে যে এলাকায় পানির উষ্ণতা বাড়বে, সেখানে বাড়বে ফাইটোপ্ল্যাংকটোনের বংশবিস্তার। আর কিছু এলাকায় পানির গতিপথ পরিবর্তনে কমে যাবে এর উপস্থিতি। ফলে কিছু এলাকা হয়ে উঠবে গাড় সবুজ, আর কিছু এলাকা ফাইটোপ্ল্যাংক্টনের অনুপস্থিতিতে কালচে নীল। তবে গবেষকরা বলছেন, কিছু এলাকায় ফাইটোপ্ল্যাংক্টনের প্রজাতিরও হতে পারে পরিবর্তন, যা দিতে পারে সমুদ্রের জলকে লাল, বাদামী কিংবা ভিন্ন কোন রং।

কিন্তু সাগরের জলের রং বদলে গেলেই বা কি? গবেষকরা জানাচ্ছেন, এর পেছনের ছবিটা ভয়াবহ অনিশ্চিত। পৃথিবীর অর্ধেক সালোকসংশ্লেষণই হয় এই শৈবালকণাদের ক্লোরোফিলে। এদের পরিমাণ ব্যাপকভাবে কমে বা বেড়ে গেলে সমুদ্রের খাদ্যচক্র ও কার্বনচক্রে ঘটবে বড়সড় পরিবর্তন। তৈরি হবে অজানা সব পরিস্থিতি। তবে সেই বদলটা মানুষ কিংবা পৃথিবীর জীবকূলের পক্ষে ভালো না মন্দ, তা নিয়ে সুস্পষ্ট কোনো কিছুই এখনও বোঝা যাচ্ছে না।

একবিংশ শতাব্দির শেষ নাগাদ সমুদ্রের এই রং পরিবর্তন অবশ্য খালি চোখে সেভাবে বোঝা যাবে না, বদলটা চোখে পড়বে বিমানে উড়তে উড়তে ওপর থেকে দেখলে, অথবা স্যাটেলাইটের চোখে। কোন জায়গা হয়ে পড়বে কালচে, আর কোথাও গাড় সবুজ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

তথ্য প্রযুক্তি খবর